পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে ইমরানের কথা বলার অধিকার নেই: মরিয়ম
jugantor
পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে ইমরানের কথা বলার অধিকার নেই: মরিয়ম

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৪ জুন ২০২১, ১৬:১৮:৫২  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান পাকিস্তানের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি মানতে নারাজ মুসলিম লীগের (এন) ভাইস প্রেসিডেন্ট মরিয়ম নওয়াজ। সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ কন্যা বলেছেন, তিনি জনগণের ভোটে নির্বাচিত হননি। তিনি মনোনীত (সেনাবাহিনীর) হয়েছেন। তাই পাকিস্তানের পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে তার কথা বলার কোনো অধিকার নেই।

বুধবার ইসলামাবাদে এক সমাবেশে দেওয়া বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন। খবর দ্য ডনের।

এইচবিওতে ইমরান খানের দেওয়া সাক্ষাৎকারের বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে মরিয়ম বলেন, তিনি কী করে এ ধরণের মন্তব্য করলেন সেটি আমার বুঝে আসছে না।

সপ্তাহ খানে আগে দেওয়া ওই সাক্ষাৎকারে ইমরান বলেছিলেন, কাশ্মীর ইস্যুতে বিবাদ না করে পাকিস্তান-ভারতের জনগণ শান্তিপূর্ণ বসবাস নিশ্চিত করতে পারে। তিনি বলেন, পাকিস্তানের পরমাণু কর্মসূচির একমাত্র উদ্দেশ্য ডেটারেন্স (প্রতিপক্ষকে নিবৃত রাখা)। কাউকে আক্রমণের উদ্দেশে আমরা পরমাণু কর্মসূচি পরিচালনা করছি না।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করে মরিয়ম নওয়াজ বলেন, তিনি পাকিস্তানের পরমাণু স্থাপনার পাহারাদার নন। দেশের ২২ কোটি মানুষ পরমাণু স্থাপনা রক্ষা করে আসছে। তাই এ নিয়ে তার বক্তব্য দেওয়ার অধিকার নেই।

তিনি বলেন, পরমাণু কর্মসূচি ঠিক রাখতে সাবেক প্রধানমন্ত্রী জুলফিকার আলী ভুট্টো শহীদ হয়েছেন। আর নওয়াজ শরীর নির্বাসিত জীবন কাটিয়েছেন।

পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে ইমরানের কথা বলার অধিকার নেই: মরিয়ম

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৪ জুন ২০২১, ০৪:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান পাকিস্তানের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি মানতে নারাজ মুসলিম লীগের (এন) ভাইস প্রেসিডেন্ট মরিয়ম নওয়াজ।  সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ কন্যা  বলেছেন, তিনি জনগণের ভোটে নির্বাচিত হননি।  তিনি মনোনীত (সেনাবাহিনীর) হয়েছেন।  তাই পাকিস্তানের পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে তার কথা বলার কোনো অধিকার নেই।

বুধবার ইসলামাবাদে এক সমাবেশে দেওয়া বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।  খবর দ্য ডনের।

এইচবিওতে ইমরান খানের দেওয়া সাক্ষাৎকারের বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে মরিয়ম বলেন, তিনি কী করে এ ধরণের মন্তব্য করলেন সেটি আমার বুঝে আসছে না।

সপ্তাহ খানে আগে দেওয়া ওই সাক্ষাৎকারে ইমরান বলেছিলেন, কাশ্মীর ইস্যুতে বিবাদ না করে পাকিস্তান-ভারতের জনগণ শান্তিপূর্ণ বসবাস নিশ্চিত করতে পারে।  তিনি বলেন, পাকিস্তানের পরমাণু কর্মসূচির একমাত্র উদ্দেশ্য ডেটারেন্স (প্রতিপক্ষকে নিবৃত রাখা)।  কাউকে আক্রমণের উদ্দেশে আমরা পরমাণু কর্মসূচি পরিচালনা করছি না।  

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করে মরিয়ম নওয়াজ বলেন, তিনি পাকিস্তানের পরমাণু স্থাপনার পাহারাদার নন।  দেশের ২২ কোটি মানুষ পরমাণু স্থাপনা রক্ষা করে আসছে।  তাই এ নিয়ে তার বক্তব্য দেওয়ার অধিকার নেই।  

তিনি বলেন, পরমাণু কর্মসূচি ঠিক রাখতে সাবেক প্রধানমন্ত্রী জুলফিকার আলী ভুট্টো শহীদ হয়েছেন।  আর নওয়াজ শরীর নির্বাসিত জীবন কাটিয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন