শিক্ষার্থীদের অ্যাকাউন্টে ১০ লাখ করে টাকা দিচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার
jugantor
মমতার নতুন দৃষ্টান্ত
শিক্ষার্থীদের অ্যাকাউন্টে ১০ লাখ করে টাকা দিচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার

  অনলাইন ডেস্ক  

২৪ জুন ২০২১, ২০:৩৩:১৪  |  অনলাইন সংস্করণ

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

নতুন সরকার গঠনের মাত্র দেড় মাসের মধ্যেই নির্বাচনী অঙ্গীকার পূরণ করছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভার নির্বাচনের আগেই স্টুডেন্টস ক্রেডিট কার্ডের কথা ঘোষণা করেছিলেন তিনি। আর নির্বাচন শেষে সরকার গড়ার দেড় মাসের মধ্যে সেই প্রতিশ্রুতি পূরণের কাজ শুরু করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নবান্ন থেকে বৃহস্পতিবার তিনি জানান, আগামী ৩০ জুন থেকে চালু হচ্ছে স্টুডেন্টস ক্রেডিট কার্ড। এই কার্ডের মাধ্যমে ২৪ বছর পর্যন্ত যেকোনো শিক্ষার্থী পড়াশোনার জন্য ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত ন্যূনতম সুদে লোন নিতে পারবে। দশম শ্রেণি থেকেই এই ক্রেডিট কার্ড নেওয়া যাবে। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

খবরে বলা হয়, নির্বাচনের আগে ইশতেহারে স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের কথা। পড়াশোনার জন্য শিক্ষার্থীদের ১০ লাখ টাকা ঋণ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বৃহস্পতিবার নবান্ন থেকে সাংবাদিকদের এক ব্রিফিংয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, ‘‌ক্যাবিনেটে অনুমোদন পেয়েছে এই প্রকল্প। দশম শ্রেণি থেকেই এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন শিক্ষার্থীরা।’‌

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‌পড়াশোনা করার জন্য আর ঘরবাড়ি বিক্রি করতে হবে না। ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে হলে পশ্চিমবঙ্গ সরকার গ্যারেন্টার হবে। পড়াশোনার জন্য বাবা–মায়েদের যেরকম চিন্তা করতে হয়, তা আর করার প্রয়োজন নেই। রাজ্য সরকার আপনাদের পাশে আছে। আজকের দিনটি পড়ুয়াদের। রাজ্যে দশম শ্রেণিতে প্রতি বছর প্রায় ১০ লাখ পড়ুয়া থাকে। দ্বাদশ শ্রেণিতে থাকে সাড়ে ৯ লাখ। দশম থেকে স্নাতক, স্নাতকোত্তর–সহ যাবতীয় পড়াশোনার জন্য রাজ্যের পক্ষ থেকে এবার পড়ুয়াদের ১০ লাখ টাকা করে আর্থিক সাহায্য করা হবে। যা ক্রেডিট হবে তা ফেরত দেওয়ার জন্য চাকরি পাওয়ার পর ১৫ বছর সময় পাবেন শিক্ষার্থীরা।’‌

অনলাইনেই এই কার্ড সংগ্রহ করা যাবে। কীভাবে আবেদন করতে হবে এবং কীভাবে এই কার্ড পাওয়া যাবে, তা আগামী ৩০ জুন প্রকল্পের সূচনার পরই জানানো হবে। একুশের নির্বাচনের আগে তৃণমূল সুপ্রিমো কৃষকদের কথা দিয়েছিলেন, ক্ষমতায় ফিরলে এই ভাতার অঙ্ক দ্বিগুণ বাড়ানো হবে। ক্ষমতায় ফিরে সেই কথাও রেখেছেন তিনি। চলতি মাসের শুরুতেই মন্ত্রিসভার অনুমোদন পায় ভাতা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত। ১৭ জুন থেকে শুরু হয়েছে টাকা বন্টন। এবার অনুমোদিত হল স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড প্রকল্পও।

মমতার নতুন দৃষ্টান্ত

শিক্ষার্থীদের অ্যাকাউন্টে ১০ লাখ করে টাকা দিচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার

 অনলাইন ডেস্ক 
২৪ জুন ২০২১, ০৮:৩৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

নতুন সরকার গঠনের মাত্র দেড় মাসের মধ্যেই নির্বাচনী অঙ্গীকার পূরণ করছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভার নির্বাচনের আগেই স্টুডেন্টস ক্রেডিট কার্ডের কথা ঘোষণা করেছিলেন তিনি। আর নির্বাচন শেষে সরকার গড়ার দেড় মাসের মধ্যে সেই প্রতিশ্রুতি পূরণের কাজ শুরু করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নবান্ন থেকে বৃহস্পতিবার তিনি জানান, আগামী ৩০ জুন থেকে চালু হচ্ছে স্টুডেন্টস ক্রেডিট কার্ড। এই কার্ডের মাধ্যমে ২৪ বছর পর্যন্ত যেকোনো শিক্ষার্থী পড়াশোনার জন্য ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত ন্যূনতম সুদে লোন নিতে পারবে। দশম শ্রেণি থেকেই এই ক্রেডিট কার্ড নেওয়া যাবে। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের। 

খবরে বলা হয়, নির্বাচনের আগে ইশতেহারে স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের কথা। পড়াশোনার জন্য শিক্ষার্থীদের ১০ লাখ টাকা ঋণ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

বৃহস্পতিবার নবান্ন থেকে সাংবাদিকদের এক ব্রিফিংয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, ‘‌ক্যাবিনেটে অনুমোদন পেয়েছে এই প্রকল্প। দশম শ্রেণি থেকেই এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন শিক্ষার্থীরা।’‌

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‌পড়াশোনা করার জন্য আর ঘরবাড়ি বিক্রি করতে হবে না। ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে হলে পশ্চিমবঙ্গ সরকার গ্যারেন্টার হবে। পড়াশোনার জন্য বাবা–মায়েদের যেরকম চিন্তা করতে হয়, তা আর করার প্রয়োজন নেই। রাজ্য সরকার আপনাদের পাশে আছে। আজকের দিনটি পড়ুয়াদের। রাজ্যে দশম শ্রেণিতে প্রতি বছর প্রায় ১০ লাখ পড়ুয়া থাকে। দ্বাদশ শ্রেণিতে থাকে সাড়ে ৯ লাখ। দশম থেকে স্নাতক, স্নাতকোত্তর–সহ যাবতীয় পড়াশোনার জন্য রাজ্যের পক্ষ থেকে এবার পড়ুয়াদের ১০ লাখ টাকা করে আর্থিক সাহায্য করা হবে। যা ক্রেডিট হবে তা ফেরত দেওয়ার জন্য চাকরি পাওয়ার পর ১৫ বছর সময় পাবেন শিক্ষার্থীরা।’‌

অনলাইনেই এই কার্ড সংগ্রহ করা যাবে। কীভাবে আবেদন করতে হবে এবং কীভাবে এই কার্ড পাওয়া যাবে, তা আগামী ৩০ জুন প্রকল্পের সূচনার পরই জানানো হবে। একুশের নির্বাচনের আগে তৃণমূল সুপ্রিমো কৃষকদের কথা দিয়েছিলেন, ক্ষমতায় ফিরলে এই ভাতার অঙ্ক দ্বিগুণ বাড়ানো হবে। ক্ষমতায় ফিরে সেই কথাও রেখেছেন তিনি। চলতি মাসের শুরুতেই মন্ত্রিসভার অনুমোদন পায় ভাতা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত। ১৭ জুন থেকে শুরু হয়েছে টাকা বন্টন। এবার অনুমোদিত হল স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড প্রকল্পও।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : পশ্চিমবঙ্গ নির্বাচন ২০২১