মুকুল রায়কে নিয়ে মমতার সেই বক্তব্যে বিজেপির প্রতিবাদ
jugantor
মুকুল রায়কে নিয়ে মমতার সেই বক্তব্যে বিজেপির প্রতিবাদ

  অনলাইন ডেস্ক  

২৫ জুন ২০২১, ১৭:২০:০১  |  অনলাইন সংস্করণ

বিজেপির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।  

তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেয়া ‌বিজেপির সাবেক কেন্দ্রীয় সহসভাপতি মুকুল রায়কে নিয়ে পশ্চিমবঙ্গ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছে বিজেপি। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

খবরে বলা হয়, শুক্রবার রাজ্য সরকারের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা মানা উচিত বলে সোচ্চার হয়েছেন বিজেপির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

তিনি বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে থেকে মুকুল রায়কে দলে যুক্ত করেছেন। এখন তিনি তাকে বিজেপির লোক বলছেন। কোনও আইন মানা হচ্ছে না। পরম্পরা অনুযায়ী বিজেপি থেকে মনোনীত ব্যক্তিকেই সদস্য করা উচিত। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপি থেকে কাউকে নিতে চাইছেন না। গতবার বিরোধীদের জন্য ১৫টি পদ ছিল। এবার ১০টি দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। ওনারা নির্বাচনে জিতে সরকার গড়েছেন। ওঁদের ইচ্ছা হলে কোনও পদ দিতে নাও পারেন। কিন্তু গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা মেনেই চলা উচিত।’

বৃহস্পতিবার একপ্রকার চ্যালেঞ্জের সুরে জানিয়ে দেন, মুকুলকেই পিএসি চেয়ারম্যান পদে সমর্থন করবে তৃণমূল কংগ্রেস।

এই পরিস্থিতিতে বিজেপি মুকুল রায়ের মনোনয়ন বাতিলের দাবিতে বিধানসভার সচিবকে চিঠি দেয়। যদিও সেই আবেদন খারিজ হয়ে গিয়েছে। বিধানসভার পক্ষ থেকে প্রকাশিত ২০ জনের মনোনয়ন তালিকায় নাম রয়েছে মুকুল রায়ের।

নবান্নে সংবাদ সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, যে কেউ আবেদন করতে পারেন। তাছাড়া মুকুল রায় তো বিজেপির সদস্য। আমরা তাকেই সমর্থন করব। এতে অসুবিধার কী আছে!‌ ওদের লোককেই তো জায়গা দিচ্ছি।

প্রসঙ্গত, সোমবারের মধ্যে বিধানসভার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পাবলিক একাউন্টস কমিটির নির্বাচন। এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে শাসক ও বিরোধী পক্ষের মধ্যে শুরু হয়েছে টানাপোড়েন। প্রথম থেকেই এই কমিটির চেয়ারম্যানের পদ দাবি করে আসছে বিরোধীরা। সাধারণত রীতি অনুযায়ী বিরোধীদের হাতে এই কমিটির দায়িত্ব থাকলেও চেয়ারম্যান কে হবেন স্পিকারের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত।

মুকুল রায়কে নিয়ে মমতার সেই বক্তব্যে বিজেপির প্রতিবাদ

 অনলাইন ডেস্ক 
২৫ জুন ২০২১, ০৫:২০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বিজেপির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।  
বিজেপির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি

তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেয়া ‌বিজেপির সাবেক কেন্দ্রীয় সহসভাপতি মুকুল রায়কে নিয়ে পশ্চিমবঙ্গ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়েছে বিজেপি। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের। 

খবরে বলা হয়, শুক্রবার রাজ্য সরকারের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা মানা উচিত বলে সোচ্চার হয়েছেন বিজেপির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।  

তিনি বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে থেকে মুকুল রায়কে দলে যুক্ত করেছেন। এখন তিনি তাকে বিজেপির লোক বলছেন। কোনও আইন মানা হচ্ছে না। পরম্পরা অনুযায়ী বিজেপি থেকে মনোনীত ব্যক্তিকেই সদস্য করা উচিত। কিন্তু মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিজেপি থেকে কাউকে নিতে চাইছেন না। গতবার বিরোধীদের জন্য ১৫টি পদ ছিল। এবার ১০টি দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। ওনারা নির্বাচনে জিতে সরকার গড়েছেন। ওঁদের ইচ্ছা হলে কোনও পদ দিতে নাও পারেন। কিন্তু গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা মেনেই চলা উচিত।’

বৃহস্পতিবার একপ্রকার চ্যালেঞ্জের সুরে জানিয়ে দেন, মুকুলকেই পিএসি চেয়ারম্যান পদে সমর্থন করবে তৃণমূল কংগ্রেস।

এই পরিস্থিতিতে বিজেপি মুকুল রায়ের মনোনয়ন বাতিলের দাবিতে বিধানসভার সচিবকে চিঠি দেয়। যদিও সেই আবেদন খারিজ হয়ে গিয়েছে। বিধানসভার পক্ষ থেকে প্রকাশিত ২০ জনের মনোনয়ন তালিকায় নাম রয়েছে মুকুল রায়ের।

নবান্নে সংবাদ সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, যে কেউ আবেদন করতে পারেন। তাছাড়া মুকুল রায় তো বিজেপির সদস্য। আমরা তাকেই সমর্থন করব। এতে অসুবিধার কী আছে!‌ ওদের লোককেই তো জায়গা দিচ্ছি। 

প্রসঙ্গত, সোমবারের মধ্যে বিধানসভার অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ পাবলিক একাউন্টস কমিটির নির্বাচন। এই নির্বাচনকে কেন্দ্র করে শাসক ও বিরোধী পক্ষের মধ্যে শুরু হয়েছে টানাপোড়েন। প্রথম থেকেই এই কমিটির চেয়ারম্যানের পদ দাবি করে আসছে বিরোধীরা। সাধারণত রীতি অনুযায়ী বিরোধীদের হাতে এই কমিটির দায়িত্ব থাকলেও চেয়ারম্যান কে হবেন স্পিকারের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : পশ্চিমবঙ্গ নির্বাচন ২০২১