উত্তরবঙ্গে বিজেপির দুর্গ পতনের পদধ্বনি, দল ছাড়ছেন ৩ বিধায়ক 
jugantor
উত্তরবঙ্গে বিজেপির দুর্গ পতনের পদধ্বনি, দল ছাড়ছেন ৩ বিধায়ক 

  অনলাইন ডেস্ক  

২৬ জুন ২০২১, ১২:২৪:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

উত্তরের বিজেপি শিবিরে এবার বড় ভাঙনের আশঙ্কা রয়েছে।

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উত্তরবঙ্গকে পৃথক রাজ্য করার দাবিকে ঘিরে বিজেপির অভ্যন্তরে ব্যাপক কোন্দল দেখা দিয়েছে। আলোচিত ওই ইস্যুতে দ্বিধাবিভক্ত গেরুয়া শিবির। কোন্দলের জেরে উত্তরবঙ্গের অন্তত ৩জন বিজেপি বিধায়ক তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিতে পারেন। এ নিয়ে বিশেষ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে হিন্দুস্তান টাইমস।

খবরে বলা হয়, উত্তরের বিজেপি শিবিরে এবার বড় ভাঙনের আশঙ্কা রয়েছে। উত্তরবঙ্গের অন্তত ৩জন বিজেপি বিধায়ক ঘাসফুল শিবিরে যোগ দিতে পারেন। এনিয়ে নানা জল্পনা ছড়িয়েছে উত্তরের রাজনীতির আঙিনায়। এখানেই প্রশ্ন উঠছে উত্তরের কোন তিন বিধায়ক তৃণমূল শিবিরে যোগ দিতে পারেন। তবে গোটা ঘটনায় যথেষ্ট অস্বস্তি বেড়েছে বিজেপি শিবিরে।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে আরও বলা হয়, কারা কারা গোপনে তৃণমূলের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন সেটাও আঁচ করার চেষ্টা করছেন বিজেপি নেতৃত্ব। কিন্তু চাইলেও যে তাদের আটকানো যাবে না এটাও বুঝতে পারছে বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব। তবে শেষ পর্যন্ত তাদের বোঝানোর চেষ্টা করবে গেরুয়া শিবির।

সদ্য সমাপ্ত বিধানসভা নির্বাচনে কোচবিহার, দার্জিলিং, আলিপুরদুয়ারে, জলপাইগুড়িতে ভালো ফল করেছে বিজেপি। কিন্তু তারপরেও স্বস্তিতে নেই বিজেপি। বিজেপির আলিপুরদুয়ার জেলা সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ শর্মাও ইতিমধ্যে দল ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। উত্তরবঙ্গকে পৃথক রাজ্য করার যে দাবি আলিপুরদুয়ারের বিজেপি এমপি জন বারলা তুলেছেন তার সঙ্গে একমত হতে পারেননি তিনি।

তবে শুধু গঙ্গাপ্রসাদ শর্মাই নন, বিজেপির একাধিক জনপ্রতিনিধি এই দাবির সঙ্গে একমত হতে পারছেন না। পাশাপাশি বিরোধী দলের বিধায়ক হিসাবে নিজের এলাকায় যে সার্বিক উন্নয়ন সম্ভব নয় এটাও হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছেন তারা । সব মিলিয়ে তারা এবার যেতে চান তৃণমূল শিবিরে।

উত্তরবঙ্গে বিজেপির দুর্গ পতনের পদধ্বনি, দল ছাড়ছেন ৩ বিধায়ক 

 অনলাইন ডেস্ক 
২৬ জুন ২০২১, ১২:২৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
উত্তরের বিজেপি শিবিরে এবার বড় ভাঙনের আশঙ্কা রয়েছে।
উত্তরের বিজেপি শিবিরে এবার বড় ভাঙনের আশঙ্কা রয়েছে। ফাইল ছবি: হিন্দুস্তান টাইমস

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উত্তরবঙ্গকে পৃথক রাজ্য করার দাবিকে ঘিরে বিজেপির অভ্যন্তরে ব্যাপক কোন্দল দেখা দিয়েছে। আলোচিত ওই ইস্যুতে দ্বিধাবিভক্ত গেরুয়া শিবির। কোন্দলের জেরে উত্তরবঙ্গের অন্তত ৩জন বিজেপি বিধায়ক তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিতে পারেন। এ নিয়ে বিশেষ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে হিন্দুস্তান টাইমস। 

খবরে বলা হয়, উত্তরের বিজেপি শিবিরে এবার বড় ভাঙনের আশঙ্কা রয়েছে।  উত্তরবঙ্গের অন্তত ৩জন বিজেপি বিধায়ক ঘাসফুল শিবিরে যোগ দিতে পারেন। এনিয়ে নানা জল্পনা ছড়িয়েছে উত্তরের রাজনীতির আঙিনায়। এখানেই প্রশ্ন উঠছে উত্তরের কোন তিন বিধায়ক তৃণমূল শিবিরে যোগ দিতে পারেন। তবে গোটা ঘটনায় যথেষ্ট অস্বস্তি বেড়েছে বিজেপি শিবিরে।

হিন্দুস্তান টাইমসের খবরে আরও বলা হয়, কারা কারা গোপনে তৃণমূলের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন সেটাও আঁচ করার চেষ্টা করছেন বিজেপি নেতৃত্ব। কিন্তু চাইলেও যে তাদের আটকানো যাবে না এটাও বুঝতে পারছে বিজেপির রাজ্য নেতৃত্ব। তবে শেষ পর্যন্ত তাদের বোঝানোর চেষ্টা করবে গেরুয়া শিবির।

সদ্য সমাপ্ত বিধানসভা নির্বাচনে কোচবিহার, দার্জিলিং, আলিপুরদুয়ারে, জলপাইগুড়িতে ভালো ফল করেছে বিজেপি। কিন্তু তারপরেও স্বস্তিতে নেই বিজেপি। বিজেপির আলিপুরদুয়ার জেলা সভাপতি গঙ্গাপ্রসাদ শর্মাও ইতিমধ্যে দল ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। উত্তরবঙ্গকে পৃথক রাজ্য করার যে দাবি আলিপুরদুয়ারের বিজেপি এমপি জন বারলা তুলেছেন তার সঙ্গে একমত হতে পারেননি তিনি। 

তবে শুধু গঙ্গাপ্রসাদ শর্মাই নন,  বিজেপির একাধিক জনপ্রতিনিধি এই দাবির সঙ্গে একমত হতে পারছেন না। পাশাপাশি বিরোধী দলের বিধায়ক হিসাবে নিজের এলাকায় যে সার্বিক উন্নয়ন সম্ভব নয় এটাও হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছেন তারা । সব মিলিয়ে তারা এবার যেতে চান তৃণমূল শিবিরে।  

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : পশ্চিমবঙ্গ নির্বাচন ২০২১