গজনি ঘিরে রেখেছে তালেবান
jugantor
গজনি ঘিরে রেখেছে তালেবান

  যুগান্তর ডেস্ক  

১২ জুলাই ২০২১, ১৯:৪১:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

গজনি ঘিরে রেখেছে তালেবান

আফগানিস্তানের মধ্যাঞ্চলীয় শহর গজনি জেলার নিয়ন্ত্রণ নিতে শহরটি ঘিরে রেখেছে তালেবান যোদ্ধারা। ইতোমধ্যে শহরটি চারপাশ থেকে ঘিরে ফেলা হয়েছে।

সোমবার আফগান কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে লড়াইয়ের জন্য সাধারণ মানুষের বাড়িঘরে ঢুকে পড়েছে তালেবান যোদ্ধারা।

গজনি প্রদেশের কাউন্সিল সদস্য হাসান রেজাই বলেন, গজনি নগরীর পরিস্থিতি খুবই জটিল। তালেবান সাধারণ মানুষের ঘরবাড়িতে আস্তানা গেড়েছে এবং আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর (এএনডিএসএফ) ওপর গুলি ছুড়ছে। একারণে তালেবানের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো এএনডিএসএফ এর জন্য খুবই কঠিন হয়ে পড়েছে।

গজনিতে বহু বছর ধরেই তালেবানের শক্তিশালী উপস্থিতি রয়েছে। প্রাদেশিক পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তালেবানের এবারের হামলাটি সবচেয়ে তীব্র। সরকারি বাহিনী হারানো এলাকার নিয়ন্ত্রণ ফিরে পেতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

দীর্ঘ দুই দশকের যুদ্ধপীড়িত দেশ আফগানিস্তান থেকে আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে সকল বিদেশি সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

এই ঘোষণার পর আফগানিস্তানের বিদ্রোহীগোষ্ঠী তালেবান দেশটিতে সরকারি বাহিনীর ওপর আক্রমণ বাড়িয়েছে। প্রতিদিন দেশটির বিভিন্ন অঞ্চলে তালেবান ও সরকারি বাহিনীর মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের খবর আসছে।

সাম্প্রতিক সময়ে আফগানিস্তানের ৮৫ শতাংশ এলাকা নিজেদের দখলে নেওয়ার দাবি করেছে তালেবান, যদি কাবুল সরকার এ দাবি প্রত্যাখ্যান করেছে।

গজনি ঘিরে রেখেছে তালেবান

 যুগান্তর ডেস্ক 
১২ জুলাই ২০২১, ০৭:৪১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
গজনি ঘিরে রেখেছে তালেবান
ছবি: রয়টার্স

আফগানিস্তানের মধ্যাঞ্চলীয় শহর গজনি জেলার নিয়ন্ত্রণ নিতে শহরটি ঘিরে রেখেছে তালেবান যোদ্ধারা। ইতোমধ্যে শহরটি চারপাশ থেকে ঘিরে ফেলা হয়েছে। 

সোমবার আফগান কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে লড়াইয়ের জন্য সাধারণ মানুষের বাড়িঘরে ঢুকে পড়েছে তালেবান যোদ্ধারা।

গজনি প্রদেশের কাউন্সিল সদস্য হাসান রেজাই বলেন, গজনি নগরীর পরিস্থিতি খুবই জটিল। তালেবান সাধারণ মানুষের ঘরবাড়িতে আস্তানা গেড়েছে এবং আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর (এএনডিএসএফ) ওপর গুলি ছুড়ছে। একারণে তালেবানের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো এএনডিএসএফ এর জন্য খুবই কঠিন হয়ে পড়েছে।

গজনিতে বহু বছর ধরেই তালেবানের শক্তিশালী উপস্থিতি রয়েছে। প্রাদেশিক পুলিশ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তালেবানের এবারের হামলাটি সবচেয়ে তীব্র। সরকারি বাহিনী হারানো এলাকার নিয়ন্ত্রণ ফিরে পেতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

দীর্ঘ দুই দশকের যুদ্ধপীড়িত দেশ আফগানিস্তান থেকে আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে সকল বিদেশি সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। 

এই ঘোষণার পর আফগানিস্তানের বিদ্রোহীগোষ্ঠী তালেবান দেশটিতে সরকারি বাহিনীর ওপর আক্রমণ বাড়িয়েছে। প্রতিদিন দেশটির বিভিন্ন অঞ্চলে তালেবান ও সরকারি বাহিনীর মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের খবর আসছে। 

সাম্প্রতিক সময়ে আফগানিস্তানের ৮৫ শতাংশ এলাকা নিজেদের দখলে নেওয়ার দাবি করেছে তালেবান, যদি কাবুল সরকার এ দাবি প্রত্যাখ্যান করেছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন-তালেবান শান্তি আলোচনা