মৃত্যুর কাছে হার মানলেন নেদারল্যান্ডসের সেই সাংবাদিক
jugantor
মৃত্যুর কাছে হার মানলেন নেদারল্যান্ডসের সেই সাংবাদিক

  অনলাইন ডেস্ক  

১৫ জুলাই ২০২১, ২২:৪২:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

পিটার আর ডি ভ্রাইস

নেদারল্যান্ডসের প্রখ্যাত অপরাধবিষয়ক সাংবাদিক পিটার আর ডি ভ্রাইস মারা গেছেন। এক সপ্তাহ আগে আমস্টার্ডামে অস্ত্রধারীরা তাকে গুলি করে।

বৃহস্পতিবার পিটারের আত্মীয়রা জানান, তিনি শেষ পর্যন্ত লড়াই করেছেন কিন্তু মৃত্যুর কাছে হেরে গেছেন। গত ৬ জুলাই থেকে মারাত্মক আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি।

আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, একটি টিভি শোতে অংশ নিয়ে ফেরার পথে রাস্তায় তার ওপর হামলা হয়। সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায়, তিনি রাস্তায় পড়ে আছেন। তার মাথায় খুব কাছ থেকে ৫ রাউন্ড গুলি করা হয়।

৬৪ বছরের পিটার সাংবাদিক মহলে কালো ঘোড়া হিসেবে পরিচিত ছিলেন। ভয় বলে কোনো বিষয়ই তার ছিল না। লম্বা কেরিয়ারে বহু গুরুত্বপূর্ণ ক্রাইম স্টোরি করেছেন। যার জন্য প্রাণের হুমকিও এসেছে।

এক সময় দেশের একটি টেলিভিশন চ্যানেলে নেদারল্যান্ডসের বড় বড় অপরাধীদের নিয়ে একটি অনুষ্ঠান করতেন পিটার। ওই সময়েই তিনি জানিয়েছিলেন, পুলিশ এবং প্রশাসন জানিয়েছে, তার জীবনের ঝুঁকি তৈরি হয়েছে। কিন্তু বিষয়টিকে কখনই বিশেষ গুরুত্ব দেননি তিনি।

সাংবাদিক পিটার আর ডি ভ্রাইস বহু অমীমাংসিত অপরাধেরসমাধান এবং অপরাধের শিকার ভুক্তভোগী পরিবারকে সমর্থনের জন্য বিখ্যাত। তিনি অন্তত ৫০০টি হত্যাকাণ্ডের ঘটনা তদন্ত করেছেন।

মৃত্যুর কাছে হার মানলেন নেদারল্যান্ডসের সেই সাংবাদিক

 অনলাইন ডেস্ক 
১৫ জুলাই ২০২১, ১০:৪২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
পিটার আর ডি ভ্রাইস
লম্বা কেরিয়ারে বহু গুরুত্বপূর্ণ ক্রাইম স্টোরি করেছেন পিটার আর ডি ভ্রাইস। ফাইল ছবি

নেদারল্যান্ডসের প্রখ্যাত অপরাধবিষয়ক সাংবাদিক পিটার আর ডি ভ্রাইস মারা গেছেন। এক সপ্তাহ আগে আমস্টার্ডামে অস্ত্রধারীরা তাকে গুলি করে।

বৃহস্পতিবার পিটারের আত্মীয়রা জানান, তিনি শেষ পর্যন্ত লড়াই করেছেন কিন্তু মৃত্যুর কাছে হেরে গেছেন। গত ৬ জুলাই থেকে মারাত্মক আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। 

আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, একটি টিভি শোতে অংশ নিয়ে ফেরার পথে রাস্তায় তার ওপর হামলা হয়। সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায়, তিনি রাস্তায় পড়ে আছেন। তার মাথায় খুব কাছ থেকে ৫ রাউন্ড গুলি করা হয়।

৬৪ বছরের পিটার সাংবাদিক মহলে কালো ঘোড়া হিসেবে পরিচিত ছিলেন। ভয় বলে কোনো বিষয়ই তার ছিল না। লম্বা কেরিয়ারে বহু গুরুত্বপূর্ণ ক্রাইম স্টোরি করেছেন। যার জন্য প্রাণের হুমকিও এসেছে। 

এক সময় দেশের একটি টেলিভিশন চ্যানেলে নেদারল্যান্ডসের বড় বড় অপরাধীদের নিয়ে একটি অনুষ্ঠান করতেন পিটার। ওই সময়েই তিনি জানিয়েছিলেন, পুলিশ এবং প্রশাসন জানিয়েছে, তার জীবনের ঝুঁকি তৈরি হয়েছে। কিন্তু বিষয়টিকে কখনই বিশেষ গুরুত্ব দেননি তিনি।

সাংবাদিক পিটার আর ডি ভ্রাইস বহু অমীমাংসিত অপরাধের সমাধান এবং অপরাধের শিকার ভুক্তভোগী পরিবারকে সমর্থনের জন্য বিখ্যাত। তিনি অন্তত ৫০০টি হত্যাকাণ্ডের ঘটনা তদন্ত করেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন