সিনেটে বিল পাশ: উইঘুরদের তৈরি চীনা পণ্য নিষিদ্ধ যুক্তরাষ্ট্রে
jugantor
সিনেটে বিল পাশ: উইঘুরদের তৈরি চীনা পণ্য নিষিদ্ধ যুক্তরাষ্ট্রে

  অনলাইন ডেস্ক  

১৫ জুলাই ২০২১, ২৩:৩০:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

চীনে সংখ্যালঘু উইঘুর মুসলিমদের ডিটেনশন ক্যাম্পে আটক রেখে তাদের দিয়ে জোর করে বানানো পণ্য আমদানি নিষিদ্ধ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

এসব চীনা পণ্যে নিষেধাজ্ঞা জারি করতে এবার কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে আমেরিকা। শিনজিয়াং প্রদেশ থেকে পণ্য আমদানি বন্ধ করতে বুধবার আমেরিকার সেনেটে বিল পাশ হয়েছে।

এর পর এই বিল চলে যাবে হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভে। কংগ্রেসের দুই কক্ষে এই বিল পাশ হওয়ার পর প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তাতে স্বাক্ষর করলেই আইনে পরিণত হবে ওই বিল। খবর রয়টার্সের।

চীন সরকারের বিরুদ্ধে উইঘুর মুসলিমদের ওপর অত্যাচারের অভিযোগ তুলে আন্তর্জাতিক মঞ্চে একাধিক বার সরব হয়েছে আমেরিকা।

এবার এই বিষয়ে কড়া পদক্ষেপ নিতে সেনেটে ‘উইঘুর ফোর্সড লেবার প্রিভেনশন অ্যাক্ট’ পেশ করলেন রিপাবলিকান সিনেটর মার্কো রুবিও এবং ডেমোক্র্যাট সিনেটর জেফ মার্কেলে।

রুবিও বলেন, চীনা কমিউনিস্ট পার্টির সরকার যে অপরাধ করে চলেছে দিনের পর দিন, তা থেকে চোখ ফিরিয়ে নেওয়া সম্ভব নয়। উইঘুর মুসলিমদের ওপর নির্যাতন চালিয়ে যদি কেউ মুনাফা করতে চায়, তাদের সেই সুযোগ দেওয়া হবে না।

চিনের উত্তর-পশ্চিমের স্বশাসিত শিনজিয়াং প্রদেশে সংখ্যালঘু উইঘুর এবং অন্য মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষের ওপর নৃশংস অত্যাচার চালাচ্ছে বলে বেশ কয়েক বছর ধরে একাধিক অভিযোগ প্রকাশ্যে এসেছে।

এই বিষয়টি নিয়ে সরব হয়ে একাধিক মানবাধিকার সংগঠনের দাবি, শিনজিয়াংয়ে ডিটেনশন ক্যাম্প তৈরি করে প্রায় ১০ লক্ষের বেশি উইঘুর মুসলিমকে আটক করে রেখেছে চিনা সরকার। আমেরিকাও বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, উইঘুরদের প্রতি যে ভাবে অত্যাচার চালানো হচ্ছে, তা গণহত্যারই সমান।

সিনেটে বিল পাশ: উইঘুরদের তৈরি চীনা পণ্য নিষিদ্ধ যুক্তরাষ্ট্রে

 অনলাইন ডেস্ক 
১৫ জুলাই ২০২১, ১১:৩০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চীনে সংখ্যালঘু উইঘুর মুসলিমদের ডিটেনশন ক্যাম্পে আটক রেখে তাদের দিয়ে জোর করে বানানো পণ্য আমদানি নিষিদ্ধ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

এসব চীনা পণ্যে নিষেধাজ্ঞা জারি করতে এবার কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে আমেরিকা। শিনজিয়াং প্রদেশ থেকে পণ্য আমদানি বন্ধ করতে বুধবার আমেরিকার সেনেটে বিল পাশ হয়েছে।

এর পর এই বিল চলে যাবে হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভে। কংগ্রেসের দুই কক্ষে এই বিল পাশ হওয়ার পর প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তাতে স্বাক্ষর করলেই আইনে পরিণত হবে ওই বিল। খবর রয়টার্সের।

চীন সরকারের বিরুদ্ধে উইঘুর মুসলিমদের ওপর অত্যাচারের অভিযোগ তুলে আন্তর্জাতিক মঞ্চে একাধিক বার সরব হয়েছে আমেরিকা।

এবার এই বিষয়ে কড়া পদক্ষেপ নিতে সেনেটে ‘উইঘুর ফোর্সড লেবার প্রিভেনশন অ্যাক্ট’ পেশ করলেন রিপাবলিকান সিনেটর মার্কো রুবিও এবং ডেমোক্র্যাট সিনেটর জেফ মার্কেলে।

রুবিও বলেন, চীনা কমিউনিস্ট পার্টির সরকার যে অপরাধ করে চলেছে দিনের পর দিন, তা থেকে চোখ ফিরিয়ে নেওয়া সম্ভব নয়। উইঘুর মুসলিমদের ওপর নির্যাতন চালিয়ে যদি কেউ মুনাফা করতে চায়, তাদের সেই সুযোগ দেওয়া হবে না।

চিনের উত্তর-পশ্চিমের স্বশাসিত শিনজিয়াং প্রদেশে সংখ্যালঘু উইঘুর এবং অন্য মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষের ওপর নৃশংস অত্যাচার চালাচ্ছে বলে বেশ কয়েক বছর ধরে একাধিক অভিযোগ প্রকাশ্যে এসেছে।

এই বিষয়টি নিয়ে সরব হয়ে একাধিক মানবাধিকার সংগঠনের দাবি, শিনজিয়াংয়ে ডিটেনশন ক্যাম্প তৈরি করে প্রায় ১০ লক্ষের বেশি উইঘুর মুসলিমকে আটক করে রেখেছে চিনা সরকার। আমেরিকাও বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, উইঘুরদের প্রতি যে ভাবে অত্যাচার চালানো হচ্ছে, তা গণহত্যারই সমান।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : চীনে উইঘুর নির্যাতন

আরও খবর