আফগানিস্তানের সঙ্গে সীমান্ত বন্ধের ঘোষণা ইরানের
jugantor
আফগানিস্তানের সঙ্গে সীমান্ত বন্ধের ঘোষণা ইরানের

  অনলাইন ডেস্ক  

১৯ জুলাই ২০২১, ১৫:৩৬:৪৫  |  অনলাইন সংস্করণ

পবিত্র ঈদুল আজহা ও আরাফা দিবস উপলক্ষে আফগানিস্তানের সঙ্গে ৫ দিন সীমান্ত বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে ইরান।

ইরানের শুল্ক অধিদপ্তরের মুখপাত্র সাইয়্যেদ রুহুল্লাহ লাতিফি রোববার বলেছেন, আফগানিস্তানের সঙ্গে তার দেশের সীমান্ত ও স্থলবন্দরগুলোর কার্যক্রম পাঁচ দিন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।খবর ইরনার।

তিনি রোববার তেহরানে এক ঘোষণায় বলেন, সোমবার সকাল থেকে আগামী শুক্রবার পর্যন্ত দু’দেশের সীমান্ত বন্ধ থাকবে। ফলে স্থলবন্দরগুলো দিয়ে কোনো ধরনের পণ্য লেনদেন হবে না।

লাতিফি জানান, পবিত্র ঈদুল আজহা ও আরাফা দিবস উপলক্ষে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তিনি এই পাঁচদিন আফগানিস্তান সীমান্তে কোনো ধরনের পণ্য না পাঠাতে ইরানি ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানান।

ইরানের শুল্ক অধিদপ্তরের মুখপাত্র বলেন, আগামী শনিবার থেকে স্থলবন্দরগুলোর কার্যক্রম যথারীতি স্বাভাবিক নিয়মে চলবে।

সাম্প্রতিক সময়ে আফগানিস্তানে সরকারি সৈন্যদের সঙ্গে তালেবানের সংঘর্ষ তীব্র আকার ধারন করার ঘটনায় দু’দেশের সীমান্ত বাণিজ্যে এর নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে।

গত সপ্তাহে দু’দেশের মধ্যকার তিনটি স্থলবন্দরের দু’টির আফগান অংশ তালেবান দখল করে নিলে ইরান বন্দর দু’টি সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয়। পরবর্তীতে অবশ্য এসব স্থলবন্দরের কার্যক্রম আবার চালু করা হয় এবং রোববার পর্যন্ত তিন স্থলবন্দর- মাহিরুদ, দোগারুন ও মিলাক চালু ছিল।

আফগানিস্তানের সঙ্গে সীমান্ত বন্ধের ঘোষণা ইরানের

 অনলাইন ডেস্ক 
১৯ জুলাই ২০২১, ০৩:৩৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পবিত্র ঈদুল আজহা ও আরাফা দিবস উপলক্ষে আফগানিস্তানের সঙ্গে ৫ দিন সীমান্ত বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছে ইরান।

ইরানের শুল্ক অধিদপ্তরের মুখপাত্র সাইয়্যেদ রুহুল্লাহ লাতিফি রোববার বলেছেন, আফগানিস্তানের সঙ্গে তার দেশের সীমান্ত ও স্থলবন্দরগুলোর কার্যক্রম পাঁচ দিন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।খবর ইরনার।

তিনি রোববার তেহরানে এক ঘোষণায় বলেন, সোমবার সকাল থেকে আগামী শুক্রবার পর্যন্ত দু’দেশের সীমান্ত বন্ধ থাকবে। ফলে স্থলবন্দরগুলো দিয়ে কোনো ধরনের পণ্য লেনদেন হবে না।

লাতিফি জানান, পবিত্র ঈদুল আজহা ও আরাফা দিবস উপলক্ষে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তিনি এই পাঁচদিন আফগানিস্তান সীমান্তে কোনো ধরনের পণ্য না পাঠাতে ইরানি ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানান।

ইরানের শুল্ক অধিদপ্তরের মুখপাত্র বলেন, আগামী শনিবার থেকে স্থলবন্দরগুলোর কার্যক্রম যথারীতি স্বাভাবিক নিয়মে চলবে।

সাম্প্রতিক সময়ে আফগানিস্তানে সরকারি সৈন্যদের সঙ্গে তালেবানের সংঘর্ষ তীব্র আকার ধারন করার ঘটনায় দু’দেশের সীমান্ত বাণিজ্যে এর নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে।

গত সপ্তাহে দু’দেশের মধ্যকার তিনটি স্থলবন্দরের দু’টির আফগান অংশ তালেবান দখল করে নিলে ইরান বন্দর দু’টি সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেয়। পরবর্তীতে অবশ্য এসব স্থলবন্দরের কার্যক্রম আবার চালু করা হয় এবং রোববার পর্যন্ত তিন স্থলবন্দর- মাহিরুদ, দোগারুন ও মিলাক চালু ছিল।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন