নেপালে আস্থা ভোটে জয়ী হলেন শের বাহাদুর
jugantor
নেপালে আস্থা ভোটে জয়ী হলেন শের বাহাদুর

  অনলাইন ডেস্ক  

১৯ জুলাই ২০২১, ১৮:৩৩:৫২  |  অনলাইন সংস্করণ

আস্থা ভোটে জয়ী নেপালের নতুন প্রধানমন্ত্রী শের বাহাদুর দিউবা

নেপালের নতুন প্রধানমন্ত্রী শের বাহাদুর দিউবা পার্লামেন্টে গুরুত্বপুর্ণ আস্থা ভোটে জয়ী হয়েছেন।

মে মাসে ভেঙে দেওয়া পার্লামেন্ট সুপ্রিম কোর্টের রায়ে পুনর্বহাল হওয়ার কয়েকদিনের মধ্যেই রোববার এ ভোট অনুষ্ঠিত হয়।

দেশটির ২৭৫ আসন বিশিষ্ট পার্লামেন্টে আস্থা ভোটে জয় পাওয়ার জন্য ১৩৬ ভোট দরকার ছিল। দিউবা পেয়েছেন ১৬৫ ভোট। বিপক্ষে পড়ে ৮৩ ভোট।

ভোটের আগে ৭৪ বছর বয়সী দিউবা বলেন, অব্যাহত রাজনৈতিক সন্দেহ, অনিশ্চয়তা ও অস্থিতিশীলতা গণতন্ত্রকে দূর্বল করেছে।সুতরাং রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার পথে হাঁটা আমাদের জন্য এখন গুরুত্বপূর্ণ।

দেশটিতে কয়েকমাস ধরে চলা রাজনৈতিক অস্থিরতা শেষে দিউবা মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন।

নতুন করে দায়িত্ব নেয়ার ৩০ দিনের মধ্যে এই আস্থা ভোটের আয়োজন করতে হয়। আস্থা ভোটে হেরে গেলে তাকে দেশজুড়ে নতুন নির্বাচন দিতে হতো।

দায়িত্ব নেয়ার পর পরই দিউবা বলেছিলেন, মহামারি প্রতিরোধ করাকেই তিনি অগ্রাধিকার দেবেন।

দেশটিতে এ পর্যন্ত প্রায় ছয় লাখ ৭০ হাজার লোক করোনায় আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে নয় হাজার ৫শরও বেশি লোক।

উল্লেখ্য, ১৯৯৫ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত দিউবা চারবার নেপালের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন।

সূত্র: এএফপি

নেপালে আস্থা ভোটে জয়ী হলেন শের বাহাদুর

 অনলাইন ডেস্ক 
১৯ জুলাই ২০২১, ০৬:৩৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
আস্থা ভোটে জয়ী নেপালের নতুন প্রধানমন্ত্রী শের বাহাদুর দিউবা
শের বাহাদুর দিউবা। ফাইল ছবি

নেপালের নতুন প্রধানমন্ত্রী শের বাহাদুর দিউবা পার্লামেন্টে গুরুত্বপুর্ণ আস্থা ভোটে জয়ী হয়েছেন।

মে মাসে ভেঙে দেওয়া পার্লামেন্ট সুপ্রিম কোর্টের রায়ে পুনর্বহাল হওয়ার কয়েকদিনের মধ্যেই রোববার এ ভোট অনুষ্ঠিত হয়।

দেশটির ২৭৫ আসন বিশিষ্ট পার্লামেন্টে আস্থা ভোটে জয় পাওয়ার জন্য ১৩৬ ভোট দরকার ছিল। দিউবা পেয়েছেন ১৬৫ ভোট। বিপক্ষে পড়ে ৮৩ ভোট।

ভোটের আগে ৭৪ বছর বয়সী দিউবা বলেন, অব্যাহত রাজনৈতিক সন্দেহ, অনিশ্চয়তা ও অস্থিতিশীলতা গণতন্ত্রকে দূর্বল করেছে। সুতরাং রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার পথে হাঁটা আমাদের জন্য এখন গুরুত্বপূর্ণ। 

দেশটিতে কয়েকমাস ধরে চলা রাজনৈতিক অস্থিরতা শেষে দিউবা মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন। 

নতুন করে দায়িত্ব নেয়ার ৩০ দিনের মধ্যে এই আস্থা ভোটের আয়োজন করতে হয়। আস্থা ভোটে হেরে গেলে তাকে দেশজুড়ে নতুন নির্বাচন দিতে হতো। 

দায়িত্ব নেয়ার পর পরই দিউবা বলেছিলেন, মহামারি প্রতিরোধ করাকেই তিনি অগ্রাধিকার দেবেন। 

দেশটিতে এ পর্যন্ত প্রায় ছয় লাখ ৭০ হাজার লোক করোনায় আক্রান্ত হয়েছে এবং মারা গেছে নয় হাজার ৫শরও বেশি লোক। 

উল্লেখ্য, ১৯৯৫ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত দিউবা  চারবার নেপালের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন।

সূত্র: এএফপি

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন