ভ্যাকসিন নিলেই তরুণরা পাবেন ১৫০ ইউরোর ভাউচার
jugantor
ভ্যাকসিন নিলেই তরুণরা পাবেন ১৫০ ইউরোর ভাউচার

  মতিউর রহমান মুন্না, গ্রিস থেকে  

২৪ জুলাই ২০২১, ০২:৫৬:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো ইউরোপের দেশ গ্রিসও করোনার থাবায় বিপর্যস্ত। দেশটিতেতে অবস্থানরত বাংলাদেশিসহ বিভিন্ন দেশি মানুষের মধ্যে করোনার ভ্যাকসিন নিতে আগ্রহ নেই তেমন।

এ অবস্থায় গ্রিসের কমবয়সী নাগরিকদের করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন দানে উৎসাহিত করতে নতুন উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।

১৮ থেকে ২৫ বছর বয়সীদের কেউ করোনার ভ্যাকসিন নিলেই পাবেন Freedom pass নামক ১৫০ ইউরোর একটি ভাউচার। অর্থাৎ যাদের জন্ম ১ জানুয়ারি ১৯৯৬ থেকে ২০০৩ এর মধ্যে, তারাই এ ফ্রিডমপাসের আবেদন করতে পারবে। যাদের Taxis net code বা ক্লিদারিথমস নেই তারা সরাসরি কেপ (ΚΕΠ)এ গিয়ে ফ্রিডমপাসের আবেদন করতে পারবে। তবে আবেদনের পূর্বে কমপক্ষে একটি ভ্যাকসিন দেয়া হয়েছে এমন প্রমাণ দেখাতে হবে।

এই আবেদনের জন্য freedompass.gov.gr প্লাটফর্মটি ২০ জুলাই মঙ্গলবার থেকে চালু হয়েছে ।

নতুন প্রজন্মকে ভ্যাকসিন গ্রহণে উদ্বুদ্ধ ও উৎসাহিত করার জন্যই গ্রিসে সরকারী এ ব্যাবস্থাপনায় ইতিমধ্যে ১লক্ষ ৩০ হাজার তরুণ যুবা আবেদন করেছেন। এতে বাংলাদেশি তরুণরাও উৎসাহিত হয়ে ভ্যাকসিন নিচ্ছেন।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন গ্রিসের সহ-সভাপতি শাহনূর রিপন বলেন- করোনার ভ্যাকসিন নেওয়ার বিষয়ে তরুণদের মাঝে যে অনীহা রয়েছে, তা দূর করতে ইতোমধ্যেই Freedom pass নামক ১৫০ ইউরোর একটি ভাউচার প্রদান কার্যক্রম শুরু করেছে গ্রিস সরকার। এ উদ্যোগটি সত্যি প্রশংসনীয়। এতে বাংলাদেশি তরুণরাও আনন্দের সঙ্গে ভ্যাকসিন নিচ্ছেন।

ভ্যাকসিন নিলেই তরুণরা পাবেন ১৫০ ইউরোর ভাউচার

 মতিউর রহমান মুন্না, গ্রিস থেকে 
২৪ জুলাই ২০২১, ০২:৫৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো ইউরোপের দেশ গ্রিসও করোনার থাবায় বিপর্যস্ত। দেশটিতেতে অবস্থানরত বাংলাদেশিসহ বিভিন্ন দেশি মানুষের মধ্যে করোনার ভ্যাকসিন নিতে আগ্রহ নেই তেমন। 

এ অবস্থায় গ্রিসের কমবয়সী নাগরিকদের করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন দানে উৎসাহিত করতে নতুন উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।

১৮ থেকে ২৫ বছর বয়সীদের কেউ করোনার ভ্যাকসিন নিলেই পাবেন Freedom pass নামক ১৫০ ইউরোর একটি ভাউচার। অর্থাৎ যাদের জন্ম ১ জানুয়ারি ১৯৯৬ থেকে ২০০৩ এর মধ্যে, তারাই  এ ফ্রিডমপাসের আবেদন করতে পারবে। যাদের Taxis net code বা ক্লিদারিথমস নেই তারা সরাসরি কেপ (ΚΕΠ)এ  গিয়ে  ফ্রিডমপাসের আবেদন করতে পারবে। তবে আবেদনের পূর্বে কমপক্ষে একটি ভ্যাকসিন দেয়া হয়েছে এমন প্রমাণ দেখাতে হবে।

এই আবেদনের জন্য freedompass.gov.gr প্লাটফর্মটি ২০ জুলাই মঙ্গলবার থেকে চালু হয়েছে । 

নতুন প্রজন্মকে ভ্যাকসিন গ্রহণে উদ্বুদ্ধ ও উৎসাহিত করার জন্যই গ্রিসে সরকারী এ ব্যাবস্থাপনায় ইতিমধ্যে ১লক্ষ ৩০ হাজার  তরুণ যুবা আবেদন করেছেন। এতে বাংলাদেশি তরুণরাও উৎসাহিত হয়ে ভ্যাকসিন নিচ্ছেন।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন গ্রিসের সহ-সভাপতি শাহনূর রিপন বলেন- করোনার ভ্যাকসিন নেওয়ার বিষয়ে তরুণদের মাঝে যে অনীহা রয়েছে, তা দূর করতে ইতোমধ্যেই Freedom pass নামক ১৫০ ইউরোর একটি ভাউচার প্রদান কার্যক্রম শুরু করেছে গ্রিস সরকার। এ উদ্যোগটি সত্যি প্রশংসনীয়। এতে বাংলাদেশি তরুণরাও আনন্দের সঙ্গে ভ্যাকসিন নিচ্ছেন। 
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন