তালেবানের দাপট: আফগান প্রেসিডেন্টকে সহযোগিতার আশ্বাস বাইডেনের
jugantor
তালেবানের দাপট: আফগান প্রেসিডেন্টকে সহযোগিতার আশ্বাস বাইডেনের

  অনলাইন ডেস্ক  

২৪ জুলাই ২০২১, ২২:২২:০৫  |  অনলাইন সংস্করণ

সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দেওয়ার পর গত এপ্রিল মাস থেকে তালেবানদের হামলা বেড়েছে।

তালেবানের দাপটে উদ্বিগ্ন আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনিকে আশ্বস্ত করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, আফগানিস্তানে সংকটজনক পরিস্থিতি মোকাবেলায় শুক্রবার বাইডেন আফগানিস্তানে ১০ কোটি ডলার জরুরি তহবিল বরাদ্দের অনুমোদন দিয়েছেন।

এক বিবৃতিতে হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, কূটনৈতিকভাবে যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তানের পাশে থাকবে। আফগানিস্তানের কয়েক হাজার অভিবাসন প্রত্যাশীকে সরিয়ে নেওয়ারও প্রস্তুতি নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন সরকারের জন্য কাজ করায় তারা তালেবানদের হামলার টার্গেট হতে পারেন বলে আশঙ্কা রয়েছে।

আগামী ৩১ আগস্ট আফগানিস্তানে মার্কিন সেনা অভিযান শেষ হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্র সেনা সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দেওয়ার পর গত এপ্রিল মাস থেকে তালেবানদের হামলা বেড়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের জ্যেষ্ঠ মার্কিন কর্মকর্তা জানান, আফগানিস্তানের প্রায় অর্ধেক এলাকা নিয়ন্ত্রণে নিয়েছেন তালেবানরা। তবে বৃহস্পতিবার আফগানিস্তানের সরকারি সেনাদের হটিয়ে ৯০ শতাংশ সীমান্ত এলাকা নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার দাবি করেছে তালেবান।

শুক্রবার আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এ দাবিকে ‘পুরোপুরি মিথ্যা’ বলে উড়িয়ে দিয়ে বলেছে, দেশের সীমান্ত এখনো সরকারি বাহিনীগুলোর হাতে।

এদিকে চলতি সপ্তাতে মার্কিন কংগ্রেসের সঙ্গে ভার্চ্যুয়াল এক আলোচনায় আফগান প্রতিনিধি দল সেনা প্রত্যাহারের বিষয়টি সামনে রেখে বিমানবাহিনীর রক্ষণাবেক্ষণ ও উন্নয়নে যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগিতা চেয়েছে।

তালেবানের দাপট: আফগান প্রেসিডেন্টকে সহযোগিতার আশ্বাস বাইডেনের

 অনলাইন ডেস্ক 
২৪ জুলাই ২০২১, ১০:২২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দেওয়ার পর গত এপ্রিল মাস থেকে তালেবানদের হামলা বেড়েছে।
বিদেশি সেনা সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণার পর থেকে তালেবানদের হামলা বেড়েছে। ছবি: রয়টার্স

তালেবানের দাপটে উদ্বিগ্ন আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনিকে আশ্বস্ত করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, আফগানিস্তানে সংকটজনক পরিস্থিতি মোকাবেলায় শুক্রবার বাইডেন আফগানিস্তানে ১০ কোটি ডলার জরুরি তহবিল বরাদ্দের অনুমোদন দিয়েছেন।

এক বিবৃতিতে হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, কূটনৈতিকভাবে যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তানের পাশে থাকবে। আফগানিস্তানের কয়েক হাজার অভিবাসন প্রত্যাশীকে সরিয়ে নেওয়ারও প্রস্তুতি নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন সরকারের জন্য কাজ করায় তারা তালেবানদের হামলার টার্গেট হতে পারেন বলে আশঙ্কা রয়েছে।

আগামী ৩১ আগস্ট আফগানিস্তানে মার্কিন সেনা অভিযান শেষ হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্র সেনা সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দেওয়ার পর গত এপ্রিল মাস থেকে তালেবানদের হামলা বেড়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের জ্যেষ্ঠ মার্কিন কর্মকর্তা জানান, আফগানিস্তানের প্রায় অর্ধেক এলাকা নিয়ন্ত্রণে নিয়েছেন তালেবানরা। তবে বৃহস্পতিবার আফগানিস্তানের সরকারি সেনাদের হটিয়ে ৯০ শতাংশ সীমান্ত এলাকা নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার দাবি করেছে তালেবান।

শুক্রবার আফগানিস্তানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এ দাবিকে ‘পুরোপুরি মিথ্যা’ বলে উড়িয়ে দিয়ে বলেছে, দেশের সীমান্ত এখনো সরকারি বাহিনীগুলোর হাতে।

এদিকে চলতি সপ্তাতে মার্কিন কংগ্রেসের সঙ্গে ভার্চ্যুয়াল এক আলোচনায় আফগান প্রতিনিধি দল সেনা প্রত্যাহারের বিষয়টি সামনে রেখে বিমানবাহিনীর রক্ষণাবেক্ষণ ও উন্নয়নে যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগিতা চেয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন