অন্তঃসত্ত্বা নারীকে কাঁধে নিয়ে ৮ কিলোমিটার হাঁটল গ্রামবাসী (ভিডিও)
jugantor
অন্তঃসত্ত্বা নারীকে কাঁধে নিয়ে ৮ কিলোমিটার হাঁটল গ্রামবাসী (ভিডিও)

  অনলাইন ডেস্ক  

২৫ জুলাই ২০২১, ০১:২২:২৮  |  অনলাইন সংস্করণ

অন্তঃসত্ত্বা নারীকে কাঁধে নিয়ে ৮ কিলোমিটার হাঁটল গ্রামবাসী (ভিডিও)

বাঁশের সঙ্গে বাঁধা হয়েছে চাদর। সেই চাদরে শোয়ানো হয়েছে অন্তঃসত্ত্বা এক নারীকে। উঁচু-নিচু কর্দমাক্ত রাস্তা কোদালের সাহায্যে সমান করে সেই নারীকে কাঁধে নিয়ে ছুটছেন কয়েকজন।

দেখে মনে হতে পারে দুইশ বছর আগের কোনো ঘটনা। কিংবা কোন যুদ্ধবিধ্বস্ত অঞ্চলের চিত্র। কিন্তু না, ভারতের মধ্য প্রদেশের রাজপুরা গ্রামে গত বৃহস্পতিবার এই ঘটনা ঘটেছে।

এনডিটিভি বুধবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ওই গ্রামের সুনিতা (২০) নামে তরুণীর প্রসব যন্ত্রণা ওঠে। ওই গ্রামের যোগাযোগ ব্যবস্থা এতোটাই নাজুক যে সেখানে কোনো যানবাহন চলে না। পাশের গ্রাম থেকে চড়া যায় যানবাহনে। বাধ্য হয়ে সুনিতার পরিবার গ্রামবাসীদের সহায়তায় কাঁধে করে পাশের রানি কাজল গ্রামের দিকে ছোটেন।

আট কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে রানি কাজলে পৌঁছানোর পর সেখানে অপেক্ষমান অ্যাম্বুলেন্সে তুলে দেন সুনিতাকে। ওই অ্যাম্বুলেন্সে করে ২০ কিলোমিটার দূরের হাসপাতালে পৌঁছান সুনিতা।

শুক্রবার হাসপাতালে সন্তান প্রসব করেন সুনিতা। মা আর শিশু দুজনই সুস্থ আছেন বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

রাজপুরা গ্রাম থেকে নিকটস্থ হাসপাতালের দূরত্ব ২৮ কিলোমিটার।তার মধ্যে আট কিলোমিটার রাস্তা মাটির তৈরি। বছরের বেশিরভাগ সময় সেখানে কোনো যানবাহন চলাচল করতে পারে না। ওই গ্রামে কেউ অসুস্থ হলে জরুরি ভিত্তিতে হাসপাতালে নিতে দুর্ভোগ পোহাতে হয়। দীর্ঘদিন ধরেই রাস্তার জন্য গ্রামের বাসিন্দারা আবেদন জানিয়ে আসছেন বলে এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

অন্তঃসত্ত্বা নারীকে কাঁধে নিয়ে ৮ কিলোমিটার হাঁটল গ্রামবাসী (ভিডিও)

 অনলাইন ডেস্ক 
২৫ জুলাই ২০২১, ০১:২২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
অন্তঃসত্ত্বা নারীকে কাঁধে নিয়ে ৮ কিলোমিটার হাঁটল গ্রামবাসী (ভিডিও)
প্রতীকী ছবি

বাঁশের সঙ্গে বাঁধা হয়েছে চাদর। সেই চাদরে শোয়ানো হয়েছে অন্তঃসত্ত্বা এক নারীকে। উঁচু-নিচু কর্দমাক্ত রাস্তা কোদালের সাহায্যে সমান করে সেই নারীকে কাঁধে নিয়ে ছুটছেন কয়েকজন।

দেখে মনে হতে পারে দুইশ বছর আগের কোনো ঘটনা। কিংবা কোন যুদ্ধবিধ্বস্ত অঞ্চলের চিত্র। কিন্তু না, ভারতের মধ্য প্রদেশের রাজপুরা গ্রামে গত বৃহস্পতিবার এই ঘটনা ঘটেছে।

এনডিটিভি বুধবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ওই গ্রামের সুনিতা (২০) নামে তরুণীর প্রসব যন্ত্রণা ওঠে। ওই গ্রামের যোগাযোগ ব্যবস্থা এতোটাই নাজুক যে সেখানে কোনো যানবাহন চলে না। পাশের গ্রাম থেকে চড়া যায় যানবাহনে। বাধ্য হয়ে সুনিতার পরিবার গ্রামবাসীদের সহায়তায় কাঁধে করে পাশের রানি কাজল গ্রামের দিকে ছোটেন।

আট কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে রানি কাজলে পৌঁছানোর পর সেখানে অপেক্ষমান অ্যাম্বুলেন্সে তুলে দেন সুনিতাকে। ওই অ্যাম্বুলেন্সে করে ২০ কিলোমিটার দূরের হাসপাতালে পৌঁছান সুনিতা।

শুক্রবার হাসপাতালে সন্তান প্রসব করেন সুনিতা। মা আর শিশু দুজনই সুস্থ আছেন বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

রাজপুরা গ্রাম থেকে নিকটস্থ হাসপাতালের দূরত্ব ২৮ কিলোমিটার।তার মধ্যে আট কিলোমিটার রাস্তা মাটির তৈরি। বছরের বেশিরভাগ সময় সেখানে কোনো যানবাহন চলাচল করতে পারে না। ওই গ্রামে কেউ অসুস্থ হলে জরুরি ভিত্তিতে হাসপাতালে নিতে দুর্ভোগ পোহাতে হয়। দীর্ঘদিন ধরেই রাস্তার জন্য গ্রামের বাসিন্দারা আবেদন জানিয়ে আসছেন বলে এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন