বলসোনারোর অভিশংসন দাবিতে ব্রাজিলের রাজপথে হাজারও মানুষ 
jugantor
বলসোনারোর অভিশংসন দাবিতে ব্রাজিলের রাজপথে হাজারও মানুষ 

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৫ জুলাই ২০২১, ১২:৪০:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

বলসোনারোর অভিশংসন দাবিতে ব্রাজিলের রাজপথে হাজারও মানুষ 

ব্রাজিলে প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারোর অভিশংসনের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন কয়েক হাজার মানুষ। মহামারির কারণে দেশটিতে ভয়াবহ পরিস্থিতির জন্য বলসোনারোর উদাসীনতাকে দায়ী করে এই বিক্ষোভ হচ্ছে। খবর এএফপির।

বামপন্থী রাজনৈতিক দল, শ্রমিক ইউনিয়ন ও সামাজিক গোষ্ঠীর ডাকে চতুর্থ সপ্তাহের মতো বিক্ষোভ চলছে লাতিন আমেরিকার দেশটিতে। ব্রাজিলের ৪০০টি শহরে এই বিক্ষোভের পরিকল্পনা রয়েছে।

জাইর বলসোনারোর বিরুদ্ধে টিকা কেনায় সরকারি অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে। এ নিয়ে তদন্ত চলছে।

স্থানীয় সময় শনিবার রিও ডি জেনিরোতে কয়েক হাজার মানুষ লাল পোশাক ও মাস্ক পরে বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন। বিক্ষোভকারীরা এ সময় ‘কেউ আর কিছু নিতে পারবে না’, ‘দুর্নীতিবাজ বিদায় হও’ বলে স্লোগান দেন।

বিক্ষোভের আয়োজকেরা বলছেন, গণতন্ত্র রক্ষা ও ব্রাজিলের অধিবাসীদের জীবন রক্ষার জন্য বলসোনারোকে সরিয়ে দেওয়া প্রয়োজন।

রিও ডি জেনিরোসহ ব্রাজিলের অন্য শহরগুলোতে বিক্ষোভকারীরা দেরিতে টিকাদান কর্মসূচি শুরু, বেকারত্বের উচ্চহারের জন্য বলসোনারোর সরকারকে দায়ী করেন। মহামারিতে ক্ষতিগ্রস্ত ও দরিদ্র জনগণের জন্য জরুরি ত্রাণের দাবি জানান বিক্ষোভকারীরা।

লেইস ডি ওলিভিয়েরা নামের ৬৫ বছরের এক সমাজকর্মী এএফপিকে বলেন, ‘গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য আমাদের লড়াই করা প্রয়োজন। এই সরকারের কাজে যারা হতাশ ও নিপীড়নের শিকার, তাদের সবার রাস্তায় নেমে বিক্ষোভে অংশ নেওয়া উচিত।’

গতকাল বিকেল পর্যন্ত ব্রাজিলের ২৬ রাজ্যের ২০টিতে বলসোনারোবিরোধী বিক্ষোভ চলেছে। দেশটির গণমাধ্যমে বিক্ষোভের ছবি ও খবর প্রকাশিত হয়েছে।

গত ৩০ জুন কংগ্রেসে বিরোধীরা বলসোনারোর অভিশংসনরে দাবি উত্থাপন করেন। তবে স্পিকারসহ কংগ্রেসে বলসোনারোর পক্ষে যথেষ্ট সমর্থন থাকায় অভিশংসনের উদ্যোগ নেওয়া হয়নি।

বলসোনারোর অভিশংসন দাবিতে ব্রাজিলের রাজপথে হাজারও মানুষ 

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৫ জুলাই ২০২১, ১২:৪০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বলসোনারোর অভিশংসন দাবিতে ব্রাজিলের রাজপথে হাজারও মানুষ 
ছবি: সংগৃহীত

ব্রাজিলে প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারোর অভিশংসনের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন কয়েক হাজার মানুষ। মহামারির কারণে দেশটিতে ভয়াবহ পরিস্থিতির জন্য বলসোনারোর উদাসীনতাকে দায়ী করে এই বিক্ষোভ হচ্ছে। খবর এএফপির।

বামপন্থী রাজনৈতিক দল, শ্রমিক ইউনিয়ন ও সামাজিক গোষ্ঠীর ডাকে চতুর্থ সপ্তাহের মতো বিক্ষোভ চলছে লাতিন আমেরিকার দেশটিতে। ব্রাজিলের ৪০০টি শহরে এই বিক্ষোভের পরিকল্পনা রয়েছে। 

জাইর বলসোনারোর বিরুদ্ধে টিকা কেনায় সরকারি অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে। এ নিয়ে তদন্ত চলছে।

স্থানীয় সময় শনিবার রিও ডি জেনিরোতে কয়েক হাজার মানুষ লাল পোশাক ও মাস্ক পরে বিক্ষোভে অংশ নিয়েছেন। বিক্ষোভকারীরা এ সময় ‘কেউ আর কিছু নিতে পারবে না’, ‘দুর্নীতিবাজ বিদায় হও’ বলে স্লোগান দেন।

বিক্ষোভের আয়োজকেরা বলছেন, গণতন্ত্র রক্ষা ও ব্রাজিলের অধিবাসীদের জীবন রক্ষার জন্য বলসোনারোকে সরিয়ে দেওয়া প্রয়োজন।

রিও ডি জেনিরোসহ ব্রাজিলের অন্য শহরগুলোতে বিক্ষোভকারীরা দেরিতে টিকাদান কর্মসূচি শুরু, বেকারত্বের উচ্চহারের জন্য বলসোনারোর সরকারকে দায়ী করেন। মহামারিতে ক্ষতিগ্রস্ত ও দরিদ্র জনগণের জন্য জরুরি ত্রাণের দাবি জানান বিক্ষোভকারীরা।

লেইস ডি ওলিভিয়েরা নামের ৬৫ বছরের এক সমাজকর্মী এএফপিকে বলেন, ‘গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য আমাদের লড়াই করা প্রয়োজন। এই সরকারের কাজে যারা হতাশ ও নিপীড়নের শিকার, তাদের সবার রাস্তায় নেমে বিক্ষোভে অংশ নেওয়া উচিত।’

গতকাল বিকেল পর্যন্ত ব্রাজিলের ২৬ রাজ্যের ২০টিতে বলসোনারোবিরোধী বিক্ষোভ চলেছে। দেশটির গণমাধ্যমে বিক্ষোভের ছবি ও খবর প্রকাশিত হয়েছে।

গত ৩০ জুন কংগ্রেসে বিরোধীরা বলসোনারোর অভিশংসনরে দাবি উত্থাপন করেন। তবে স্পিকারসহ কংগ্রেসে বলসোনারোর পক্ষে যথেষ্ট সমর্থন থাকায় অভিশংসনের উদ্যোগ নেওয়া হয়নি।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন