আজাদ কাশ্মীরে সরকার গঠন করছে ইমরান খানের দল
jugantor
আজাদ কাশ্মীরে সরকার গঠন করছে ইমরান খানের দল

  অনলাইন ডেস্ক  

২৬ জুলাই ২০২১, ১১:৩২:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

পাকিস্তাননিয়ন্ত্রিত আজাদ-জম্মু-কাশ্মীরে (এজেকে) অনুষ্ঠিত নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে ক্ষমতাসীন দল প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পার্টি পাকিস্তান তেহরিক-ই ইনসাফ (পিটিআই)।

রোববার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন পিটিআইয়ের প্রার্থীরা।খবর আনাদোলুর।

এ জয়ের ফলে আগামী ৫ বছরের জন্য আজাদ কাশ্মীরের ৫৩ সদস্যের অ্যাসেম্বলির কতৃত্ব থাকবে ইমরান খানের দলের হাতে।

নির্বাচনে মোট ভোটার সংখ্যা ছিল ৩২ লাখ। এর মধ্যে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন ১৮ লাখের মতো ভোটার।

৫৩ আসনের মধ্যে ৪৫টিতে সরাসরি ভোট হয়। আর বাকি আটটি আসন সংসদে নির্বাচিত দলগুলোর মধ্যে আনুপাতিক হারে বণ্টন করা হয়।

আজাদ কাশ্মীরে সরকার গঠন করতে প্রয়োজন ২৭ আসন। বেসরকারি ফলে ইমরান খানের পিটিআই পেয়েছে ৩০টির বেশি আসন।

সব আসনেই সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ (এন) ও আরেক প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টুর দল পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) সঙ্গে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে পিটিআই প্রার্থীদের।

এর মধ্যে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন মুসলিম লীগের ৫ এবং পিপিপির ৪ প্রার্থী।

১৯৭৫ সাল থেকে আজাদ কাশ্মীরে পাকিস্তানের ক্ষমতাসীন দলই সরকার গঠন করে আসছে।

নির্বাচনী সহিংসতায় দুজন নিহত হয়েছে বলে স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে।

আজাদ কাশ্মীরে সরকার গঠন করছে ইমরান খানের দল

 অনলাইন ডেস্ক 
২৬ জুলাই ২০২১, ১১:৩২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পাকিস্তাননিয়ন্ত্রিত আজাদ-জম্মু-কাশ্মীরে (এজেকে) অনুষ্ঠিত নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে ক্ষমতাসীন দল প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পার্টি পাকিস্তান তেহরিক-ই ইনসাফ (পিটিআই)।

রোববার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন পিটিআইয়ের প্রার্থীরা।খবর আনাদোলুর।

এ জয়ের ফলে আগামী ৫ বছরের জন্য আজাদ কাশ্মীরের ৫৩ সদস্যের অ্যাসেম্বলির কতৃত্ব থাকবে ইমরান খানের দলের হাতে।

নির্বাচনে মোট ভোটার সংখ্যা ছিল ৩২ লাখ। এর মধ্যে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন ১৮ লাখের মতো ভোটার।

৫৩ আসনের মধ্যে ৪৫টিতে সরাসরি ভোট হয়। আর বাকি আটটি আসন সংসদে নির্বাচিত দলগুলোর মধ্যে আনুপাতিক হারে বণ্টন করা হয়।

আজাদ কাশ্মীরে সরকার গঠন করতে প্রয়োজন ২৭ আসন। বেসরকারি ফলে ইমরান খানের পিটিআই পেয়েছে ৩০টির বেশি আসন।

সব আসনেই সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ (এন) ও আরেক প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টুর দল পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) সঙ্গে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে পিটিআই প্রার্থীদের।

এর মধ্যে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন মুসলিম লীগের ৫ এবং পিপিপির ৪ প্রার্থী।

১৯৭৫ সাল থেকে আজাদ কাশ্মীরে পাকিস্তানের ক্ষমতাসীন দলই সরকার গঠন করে আসছে।

নির্বাচনী সহিংসতায় দুজন নিহত হয়েছে বলে স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন