গোপনে ইরান সফর করা ইসরাইলি নিজ দেশে আটক
jugantor
গোপনে ইরান সফর করা ইসরাইলি নিজ দেশে আটক

  অনলাইন ডেস্ক  

২৭ জুলাই ২০২১, ১১:২৫:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

ইসরাইলের এক ইহুদি নাগরিককে গোপনে ইরান সফরের অভিযোগে আটক করেছে তেলআবিবের পুলিশ ও গোয়েন্দা শাখার লোকজন।

আটক ব্যক্তি ইসরাইলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে কর্মরত ছিলেন বলে জানা যায়। খবর দ্যা হারেৎজের।

ইসরাইলি গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, গত মাসে তাকে পুলিশ হেফাজত থেকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে এবং তার বিরুদ্ধে এখন ইসরাইলের পুলিশ ও অভ্যন্তরীণ গুপ্তচর সংস্থা শিন বেথ তদন্ত চালাচ্ছে।

গত ৯ জুন শুনানির সময় ইসরাইলের একটি আদালত আটক ব্যক্তিকে পুলিশ হেফাজত থেকে মুক্তি দেওয়ার নির্দেশ দেয়। তার মামলায এখন রাষ্ট্রীয় আইনজীবীর দপ্তরে রয়েছে, যাতে তাকে দোষী সাব্যস্ত করা হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ইসরাইলের গণমাধ্যম জানিয়েছে, মামলার বিস্তারিত যেন প্রকাশ না হয়, সে জন্য সরকারি কৌঁসুলির দপ্তর থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সন্দেহভাজনে আটক ব্যক্তির পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি। তবে দৈনিক হারেৎজ জানিয়েছে, তিনি ইরান সফরের সময় দেশটির গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। এ কারণে তার বিরুদ্ধে গোয়েন্দাবৃত্তির অভিযোগ আনা হতে পারে।

আটক ব্যক্তির আইনজীবী জানিয়েছেন, তার মক্কেল একজন ছাত্র এবং তিনি পর্যটক হিসেবে ইরান সফর করেছেন। বিষয়টি তিনি তার পরিবার এবং বন্ধুদের কাছে কখনও গোপন করেননি। তিনি একজন সাধারণ তরুণ নাগরিক।

ইরান দখলদার ইসরাইলকে অবৈধ রাষ্ট্র মনে করে। সে জন্য কোনো ইসরাইলি নাগরিককে তেলআবিব ইরান সফরের অনুমতি দেয় না।

গোপনে ইরান সফর করা ইসরাইলি নিজ দেশে আটক

 অনলাইন ডেস্ক 
২৭ জুলাই ২০২১, ১১:২৫ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইসরাইলের এক ইহুদি নাগরিককে গোপনে ইরান সফরের অভিযোগে আটক করেছে তেলআবিবের পুলিশ ও গোয়েন্দা শাখার লোকজন।

আটক ব্যক্তি ইসরাইলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে কর্মরত ছিলেন বলে জানা যায়। খবর দ্যা হারেৎজের।

ইসরাইলি গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, গত মাসে তাকে পুলিশ হেফাজত থেকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে এবং তার বিরুদ্ধে এখন ইসরাইলের পুলিশ ও অভ্যন্তরীণ গুপ্তচর সংস্থা শিন বেথ তদন্ত চালাচ্ছে।

গত ৯ জুন শুনানির সময় ইসরাইলের একটি আদালত আটক ব্যক্তিকে পুলিশ হেফাজত থেকে মুক্তি দেওয়ার নির্দেশ দেয়। তার মামলায এখন রাষ্ট্রীয় আইনজীবীর দপ্তরে রয়েছে, যাতে তাকে দোষী সাব্যস্ত করা হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ইসরাইলের গণমাধ্যম জানিয়েছে, মামলার বিস্তারিত যেন প্রকাশ না হয়, সে জন্য সরকারি কৌঁসুলির দপ্তর থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সন্দেহভাজনে আটক ব্যক্তির পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি। তবে দৈনিক হারেৎজ জানিয়েছে, তিনি ইরান সফরের সময় দেশটির গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। এ কারণে তার বিরুদ্ধে গোয়েন্দাবৃত্তির অভিযোগ আনা হতে পারে।

আটক ব্যক্তির আইনজীবী জানিয়েছেন, তার মক্কেল একজন ছাত্র এবং তিনি পর্যটক হিসেবে ইরান সফর করেছেন। বিষয়টি তিনি তার পরিবার এবং বন্ধুদের কাছে কখনও গোপন করেননি। তিনি একজন সাধারণ তরুণ নাগরিক।

ইরান দখলদার ইসরাইলকে অবৈধ রাষ্ট্র মনে করে। সে জন্য কোনো ইসরাইলি নাগরিককে তেলআবিব ইরান সফরের অনুমতি দেয় না।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ইরানের পরমাণু সমঝোতা