প্রেমিকের সঙ্গে পালানোর চেষ্টা, মেয়েকে গুলি করে হত্যা করলেন বাবা
jugantor
প্রেমিকের সঙ্গে পালানোর চেষ্টা, মেয়েকে গুলি করে হত্যা করলেন বাবা

  অনলাইন ডেস্ক  

২৭ জুলাই ২০২১, ১৪:৪৯:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

ফাইল ছবি

প্রেমিকের সঙ্গে পালানোর চেষ্টা করায় নিজেরকিশোরী মেয়েকে গুলি করে হত্যা করেছেন এক ব্যক্তি।

সোমবার ভারতের উত্তরপ্রদেশের বদায়ুঁ জেলার পারোলি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় মেয়েটির বাবাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আনন্দবাজার পত্রিকারএক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত দুবছর ধরে স্থানীয় এক যুবকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে ১৭ বছরের ওই কিশোরীর। তারা বিয়ে করতে চাইছিল। সম্পর্কের কথা পরিবারের লোককে জানিয়েছিল মেয়েটি। মা আপত্তি না করলেও মেয়েটির বাবা রাজি হননি। এরপর থেকে মেয়েটির বাড়ির বাইরে বের হওয়া বন্ধ হয়ে যায়।

এক মাসেরও বেশি সময় বাড়িতে আটক থাকার পর, সোমবার ভোরে পালানোর চেষ্টা করে মেয়েটি। তার বাবা নিষেধ করলেও শোনেনি সে। একপর্যায়ে দেশি বন্দুক দিয়ে মেয়েকে গুলি করেন। মেয়েকে খুনের পর পালানোর চেষ্টাও করেন তিনি। কিন্তু তার স্ত্রী থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে গ্রেফতার করে তাকে।

বিলসি থানার এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। স্ত্রী নিজেও এই ঘটনার সাক্ষী। এ বিষয়ে আমরা প্রতিবেশীদের বয়ান নথিভুক্ত করেছি।

প্রেমিকের সঙ্গে পালানোর চেষ্টা, মেয়েকে গুলি করে হত্যা করলেন বাবা

 অনলাইন ডেস্ক 
২৭ জুলাই ২০২১, ০২:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

প্রেমিকের সঙ্গে পালানোর চেষ্টা করায় নিজের কিশোরী মেয়েকে গুলি করে হত্যা করেছেন এক ব্যক্তি। 

সোমবার ভারতের উত্তরপ্রদেশের বদায়ুঁ জেলার পারোলি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

এ ঘটনায় মেয়েটির বাবাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত দুবছর ধরে স্থানীয় এক যুবকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে ১৭ বছরের ওই  কিশোরীর। তারা বিয়ে করতে চাইছিল। সম্পর্কের কথা পরিবারের লোককে জানিয়েছিল মেয়েটি। মা আপত্তি না করলেও মেয়েটির বাবা রাজি হননি। এরপর থেকে মেয়েটির বাড়ির বাইরে বের হওয়া বন্ধ হয়ে যায়।

এক মাসেরও বেশি সময় বাড়িতে আটক থাকার পর, সোমবার ভোরে পালানোর চেষ্টা করে মেয়েটি। তার বাবা  নিষেধ করলেও শোনেনি সে।  একপর্যায়ে দেশি বন্দুক দিয়ে মেয়েকে গুলি করেন। মেয়েকে খুনের পর পালানোর চেষ্টাও করেন তিনি। কিন্তু তার স্ত্রী থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে গ্রেফতার করে তাকে।

বিলসি থানার এক পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, স্ত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। স্ত্রী নিজেও এই ঘটনার সাক্ষী। এ বিষয়ে আমরা প্রতিবেশীদের বয়ান নথিভুক্ত করেছি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন