সিসিটিভিতে ধরা পড়ল দূতাবাসে পেট্রোল বোমা হামলার দৃশ্য (ভিডিও)
jugantor
সিসিটিভিতে ধরা পড়ল দূতাবাসে পেট্রোল বোমা হামলার দৃশ্য (ভিডিও)

  অনলাইন ডেস্ক  

২৮ জুলাই ২০২১, ২০:১৫:২১  |  অনলাইন সংস্করণ

দুই ব্যক্তি কিউবার দূতাবাস ভবনে পেট্রোল বোমা ছুড়ে মারছে।

মঙ্গলবার ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে কিউবার দূতাবাসে পেট্রোল বোমা হামলা হয়। সিসিটিভির ফুটেজে এই হামলার দৃশ্য ধরা পড়েছে। এতে দেখা যায়, দুই ব্যক্তি কিউবারদূতাবাস ভবনে পেট্রোল বোমা ছুড়ে মারছে।

ওই পেট্রোল বোমা হামলায় দূতাবাস ভবনে সামান্য আগুন ধরলেও ফায়ার সার্ভিসের দল আসার আগেই তা নিভিয়ে ফেলা হয়।

পুলিশের বরাতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, হামলার ঘটনায় তদন্ত শুরু হয়েছে। তবে হামলার নেপথ্য কারণ সম্পর্কে এখনো কিছু জানা যায়নি। ঘটনার পর দূতাবাস ভবনের চারপাশে নিরাপত্তা জোরদার করছে ফ্রান্স।

ঘটনার পর কিউবার দূতাবাস এক বিবৃতিতে জানায়, দুই ব্যক্তি তিনটি পেট্রোল বোমা ছুড়ে মারে।

হামলার জন্য কিউবা পরোক্ষভাবে যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করে। কিউবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক টুইট বার্তায় জানায়, এর জন্য তারা দায়ী, যারা আমাদের দেশের বিরুদ্ধে সহিংসতা ও বিদ্বেষকে উসকে দেওয়ার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত।

কিউবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্রুনো রোদ্রিগেজ এক টুইট বার্তায় বলেন, আমাদের দেশের বিরুদ্ধে অব্যাহত অপপ্রচার এবং উসকানি সৃষ্টির জন্য আমরা যুক্তরাষ্ট্র সরকারকে দায়ী করি।

সম্প্রতি কিউবায় অর্থনৈতিক সংকট, করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থতা আর মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নিয়ে ব্যাপক সরকারবিরোধী বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। কমিউনিস্টশাসিত দেশটির সরকার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ওপর ব্যাপক কড়াকড়ি আরোপ করেছে।

কিউবায় বিক্ষোভ শুরু হওয়ার পর সোমবার যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্তত বিশটি দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দেশটিতে পুনরায় ইন্টারনেট সুবিধা সচলের জন্য কিউবা সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

সিসিটিভিতে ধরা পড়ল দূতাবাসে পেট্রোল বোমা হামলার দৃশ্য (ভিডিও)

 অনলাইন ডেস্ক 
২৮ জুলাই ২০২১, ০৮:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
দুই ব্যক্তি কিউবার দূতাবাস ভবনে পেট্রোল বোমা ছুড়ে মারছে।
দুই ব্যক্তি কিউবার দূতাবাস ভবনে পেট্রোল বোমা ছুড়ে মারে

মঙ্গলবার  ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে কিউবার দূতাবাসে পেট্রোল বোমা হামলা হয়। সিসিটিভির ফুটেজে এই হামলার দৃশ্য ধরা পড়েছে। এতে দেখা যায়, দুই ব্যক্তি কিউবার দূতাবাস ভবনে পেট্রোল বোমা ছুড়ে মারছে। 

ওই পেট্রোল বোমা হামলায় দূতাবাস ভবনে সামান্য আগুন ধরলেও ফায়ার সার্ভিসের দল আসার আগেই তা নিভিয়ে ফেলা হয়।

পুলিশের বরাতে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, হামলার ঘটনায় তদন্ত শুরু হয়েছে। তবে হামলার নেপথ্য কারণ সম্পর্কে এখনো কিছু জানা যায়নি। ঘটনার পর দূতাবাস ভবনের চারপাশে নিরাপত্তা জোরদার করছে ফ্রান্স।

ঘটনার পর কিউবার দূতাবাস এক বিবৃতিতে জানায়, দুই ব্যক্তি তিনটি পেট্রোল বোমা ছুড়ে মারে। 

হামলার জন্য কিউবা পরোক্ষভাবে যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করে। কিউবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক টুইট বার্তায় জানায়, এর জন্য তারা দায়ী, যারা আমাদের দেশের বিরুদ্ধে সহিংসতা ও বিদ্বেষকে উসকে দেওয়ার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত।

কিউবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্রুনো রোদ্রিগেজ এক টুইট বার্তায় বলেন, আমাদের দেশের বিরুদ্ধে অব্যাহত অপপ্রচার এবং উসকানি সৃষ্টির জন্য আমরা যুক্তরাষ্ট্র সরকারকে দায়ী করি।

সম্প্রতি কিউবায় অর্থনৈতিক সংকট, করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থতা আর মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নিয়ে ব্যাপক সরকারবিরোধী বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। কমিউনিস্টশাসিত দেশটির সরকার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ওপর ব্যাপক কড়াকড়ি আরোপ করেছে।

কিউবায় বিক্ষোভ শুরু হওয়ার পর সোমবার যুক্তরাষ্ট্রসহ অন্তত বিশটি দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দেশটিতে পুনরায় ইন্টারনেট সুবিধা সচলের জন্য কিউবা সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন