বিমানবন্দরেই করোনা হাসপাতাল
jugantor
বিমানবন্দরেই করোনা হাসপাতাল

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৯ জুলাই ২০২১, ১৭:৪২:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

বিমানবন্দরেই করোনা হাসপাতাল

করোনা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় বিমানবন্দরেই একটি কার্গো গুদামকে পরিণত করা হয়েছে করোনা হাসপাতালে। ওই হাসপাতালে করোনা রোগীদের জন্য কার্ডবোর্ড দিয়ে বানানো হয়েছে বিছানা। একসঙ্গে ১৮শ’ রোগী চিকিৎসা নিতে পারবেন সেখানে।

সম্প্রতি থাইল্যান্ডে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। তাই যেসব করোনা রোগীর অবস্থা কিছুটা ভালো তাদের ব্যাংককের ডন মুয়াং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে স্থাপিত ওই ফিল্ড হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হবে বলে বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে হাসপাতালের পরিচালক রেইনথং নান্না বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানান, এই ফিল্ড হাসপাতাল একসঙ্গে অনেক রোগীর চিকিৎসা দিতে পারবে। তবে এই হাসপাতালে যেসব রোগীর অবস্থা মোটামুটি স্থিতিশীল তাদের চিকিৎসা দেওয়া হবে। যেসব রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক তাদের অন্য হাসপাতালে স্থানান্তর করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার দেশটিতে বুধবার সর্বোচ্চ ১৬ হাজার ৫৩৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।বুধবার মৃত্যু হয়েছে ১৩৩ জনের। এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫ লাখ ৪৩ হাজার ৩৬১ জন। দেশটিতে করোনায় এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ৩৯৭ জনের।

বিমানবন্দরেই করোনা হাসপাতাল

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৯ জুলাই ২০২১, ০৫:৪২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বিমানবন্দরেই করোনা হাসপাতাল
ছবি : সংগৃহীত

করোনা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় বিমানবন্দরেই একটি কার্গো গুদামকে পরিণত করা হয়েছে করোনা হাসপাতালে। ওই হাসপাতালে করোনা রোগীদের জন্য কার্ডবোর্ড দিয়ে বানানো হয়েছে বিছানা। একসঙ্গে ১৮শ’ রোগী চিকিৎসা নিতে পারবেন সেখানে।

সম্প্রতি থাইল্যান্ডে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। তাই যেসব করোনা রোগীর অবস্থা কিছুটা ভালো তাদের ব্যাংককের ডন মুয়াং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে স্থাপিত ওই ফিল্ড হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হবে বলে বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে হাসপাতালের পরিচালক রেইনথং নান্না বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানান, এই ফিল্ড হাসপাতাল একসঙ্গে অনেক রোগীর চিকিৎসা দিতে পারবে। তবে এই হাসপাতালে যেসব রোগীর অবস্থা মোটামুটি স্থিতিশীল তাদের চিকিৎসা দেওয়া হবে। যেসব রোগীর অবস্থা আশঙ্কাজনক তাদের অন্য হাসপাতালে স্থানান্তর করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার দেশটিতে বুধবার সর্বোচ্চ ১৬ হাজার ৫৩৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।বুধবার মৃত্যু হয়েছে ১৩৩ জনের। এ পর্যন্ত দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫ লাখ ৪৩ হাজার ৩৬১ জন। দেশটিতে করোনায় এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ৩৯৭ জনের।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন