যুক্তরাষ্ট্রকে দোষারোপ করে যা বললেন আফগান প্রেসিডেন্ট
jugantor
যুক্তরাষ্ট্রকে দোষারোপ করে যা বললেন আফগান প্রেসিডেন্ট

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৩ আগস্ট ২০২১, ১১:৩৪:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

যুক্তরাষ্ট্রকে দোষারোপ করে যা বললেন আফগান প্রেসিডেন্ট

আফগানিস্তানের দ্রুত অবনতিশীল নিরাপত্তা পরিস্থিতির জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ‘হুট করে’ নেওয়া সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তকে দায়ী করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি।

সরকারি বাহিনী এবং তালেবান যোদ্ধাদের তুমুল লড়াইয়ের মধ্যে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সোমবার পার্লামেন্টে নিরাপত্তা পরিকল্পনা তুলে ধরেন তিনি।

এ সময় আফগান প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, নিরাপত্তা পরিকল্পনায় ওয়াশিংটনের পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। ‘হুট করে’ আফগানিস্তান থেকে বিদেশি সেনা প্রত্যাহার করে নেওয়ার সিদ্ধান্তের কারণে দেশ আজ সংকটে পড়েছে।

এ সময় আফগান প্রেসিডেন্ট নিরাপত্তা পরিকল্পনার বিষয়ে পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ ও নিম্নকক্ষের সমর্থন চান। এ ছাড়া জনগণের কাছেও এ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সমর্থন কামনা করেন।

আশরাফ ঘানির আহ্বানের পর পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ ও নিম্নকক্ষ এক যৌথ বিবৃতিতে প্রেসিডেন্টের নিরাপত্তা পরিকল্পনার প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানায়। যদিও এ নিরাপত্তা পরিকল্পনা প্রত্যাখ্যান করেছে তালেবান।

এক বিবৃতিতে তালেবানের পক্ষ থেকে বলা হয়, আশরাফ ঘানির বিবৃতি আজেবাজে কথা ছাড়া কিছুই নয়। তিনি নিজের খারাপ (মানসিক) অবস্থা এবং ভুল নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করছিলেন।

কান্দাহার, হেরাত ও লস্করগাহসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় তীব্র লড়াই চলছে তালেবান ও আফগান যোদ্ধাদের মধ্যে।

দীর্ঘ ২০ বছর পর আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করছে যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্ররা। এর মধ্যে দেশের প্রায় অর্ধেকেরও বেশি জেলার দখল নিয়েছে তালেবান। সশস্ত্র গোষ্ঠীটির এ অগ্রযাত্রা রুখতে হিমশিম খাচ্ছে আফগান সরকার। প্রায় প্রতিদিনই কোনো না কোনো এলাকার দখল চলে যাচ্ছে সশস্ত্র গোষ্ঠীটির হাতে।


যুক্তরাষ্ট্রকে দোষারোপ করে যা বললেন আফগান প্রেসিডেন্ট

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৩ আগস্ট ২০২১, ১১:৩৪ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
যুক্তরাষ্ট্রকে দোষারোপ করে যা বললেন আফগান প্রেসিডেন্ট
আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি।

আফগানিস্তানের দ্রুত অবনতিশীল নিরাপত্তা পরিস্থিতির জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ‘হুট করে’ নেওয়া সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তকে দায়ী করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি।

সরকারি বাহিনী এবং তালেবান যোদ্ধাদের তুমুল লড়াইয়ের মধ্যে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সোমবার পার্লামেন্টে নিরাপত্তা পরিকল্পনা তুলে ধরেন তিনি।  

এ সময় আফগান প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, নিরাপত্তা পরিকল্পনায় ওয়াশিংটনের পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। ‘হুট করে’ আফগানিস্তান থেকে বিদেশি সেনা প্রত্যাহার করে নেওয়ার সিদ্ধান্তের কারণে দেশ আজ সংকটে পড়েছে। 

এ সময় আফগান প্রেসিডেন্ট নিরাপত্তা পরিকল্পনার বিষয়ে পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ ও নিম্নকক্ষের সমর্থন চান। এ ছাড়া জনগণের কাছেও এ পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সমর্থন কামনা করেন।

আশরাফ ঘানির আহ্বানের পর পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ ও নিম্নকক্ষ এক যৌথ বিবৃতিতে প্রেসিডেন্টের নিরাপত্তা পরিকল্পনার প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানায়। যদিও এ নিরাপত্তা পরিকল্পনা প্রত্যাখ্যান করেছে তালেবান।

এক বিবৃতিতে তালেবানের পক্ষ থেকে বলা হয়, আশরাফ ঘানির বিবৃতি আজেবাজে কথা ছাড়া কিছুই নয়। তিনি নিজের খারাপ (মানসিক) অবস্থা এবং ভুল নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করছিলেন।

কান্দাহার, হেরাত ও লস্করগাহসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় তীব্র লড়াই চলছে তালেবান ও আফগান যোদ্ধাদের মধ্যে।  

দীর্ঘ ২০ বছর পর আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করছে যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্ররা। এর মধ্যে দেশের প্রায় অর্ধেকেরও বেশি জেলার দখল নিয়েছে তালেবান। সশস্ত্র গোষ্ঠীটির এ অগ্রযাত্রা রুখতে হিমশিম খাচ্ছে আফগান সরকার। প্রায় প্রতিদিনই কোনো না কোনো এলাকার দখল চলে যাচ্ছে সশস্ত্র গোষ্ঠীটির হাতে।


 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন