হেরাতে তালেবানের হামলায় পুলিশের এক শীর্ষ কর্মকর্তাসহ নিহত ৩
jugantor
হেরাতে তালেবানের হামলায় পুলিশের এক শীর্ষ কর্মকর্তাসহ নিহত ৩

  অনলাইন ডেস্ক  

০৫ আগস্ট ২০২১, ১৫:৫৭:৫৪  |  অনলাইন সংস্করণ

আফগানিস্তানে সরকারি বাহিনীর সঙ্গে তীব্র লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে তালেবান। বুধবার রাতে হেরাত শহরের বিভিন্ন জায়গায় অন্তত সাতটি হামলা চালিয়েছে সশস্ত্র গোষ্ঠীটি। এসব হামলায় পুলিশের এক শীর্ষ কর্মকর্তাসহ নিরাপত্তা বাহিনীর ৩ সদস্য নিহত হয়েছেন।

হেরাত প্রদেশের গভর্নর আবদুস সবুর কাআনির বরাত দিয়ে আফগানিস্তানের গণমাধ্যম টোলো নিউজ এ তথ্য জানায়।

গভর্নর বলেন, তালেবান হেরাত শহরের ২, ৩, ১০ ও ১১ নম্বর জেলায় বুধবার রাতে হামলা চালিয়েছে। এ সময় ১০ নম্বর জেলার পুলিশপ্রধান ওয়াহিদ আহমাদ কোহিস্তানিসহ নিরাপত্তা বাহিনীর দুই সদস্য নিহত হন। তবে এসব হামলায় কোনো বেসামরিক নাগরিকের মৃত্যু হয়নি।

কাআনি বলেন, তালেবানের অবস্থানে বিমান চালানো হয়েছে। এসব হামলায় তালেবানের ‘শতাধিক সদস্য মারা গেছে এবং আহত হয়েছেন কয়েক ডজন’।

‘হামলা চালিয়ে তখনই তাদের হত্যা করা হয়, যখন তারা হেরাত শহরে ঢোকার চেষ্টা করে’, যোগ করেন কাআনি।

তবে তালেবানের পক্ষ থেকে হতাহতের বিষয়ে কোনো মন্তব্য করা হয়নি।

খবরে বলা হয়, ৯ দিন ধরে হেরাত শহরে সংঘর্ষ চলছে।

‘হেরাতে তালেবান পাকিস্তানের সমর্থন নিয়ে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে’ বলে অভিযোগ গণপ্রতিরোধ বাহিনীর নেতা মোহাম্মদ ইসমাইল খান।

দীর্ঘ ২০ বছর পর আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করছে যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্ররা। এর মধ্যে দেশের প্রায় অর্ধেকেরও বেশি জেলার দখল নিয়েছে তালেবান। সশস্ত্র গোষ্ঠীটির এ অগ্রযাত্রা রুখতে হিমশিম খাচ্ছে আফগান সরকার।

হেরাতে তালেবানের হামলায় পুলিশের এক শীর্ষ কর্মকর্তাসহ নিহত ৩

 অনলাইন ডেস্ক 
০৫ আগস্ট ২০২১, ০৩:৫৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আফগানিস্তানে সরকারি বাহিনীর সঙ্গে তীব্র লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে তালেবান। বুধবার রাতে হেরাত শহরের বিভিন্ন জায়গায় অন্তত সাতটি হামলা চালিয়েছে সশস্ত্র গোষ্ঠীটি। এসব হামলায় পুলিশের এক শীর্ষ কর্মকর্তাসহ নিরাপত্তা বাহিনীর ৩ সদস্য নিহত হয়েছেন।

হেরাত প্রদেশের গভর্নর আবদুস সবুর কাআনির বরাত দিয়ে আফগানিস্তানের গণমাধ্যম টোলো নিউজ এ তথ্য জানায়।

গভর্নর বলেন, তালেবান হেরাত শহরের ২, ৩, ১০ ও ১১ নম্বর জেলায় বুধবার রাতে হামলা চালিয়েছে। এ সময় ১০ নম্বর জেলার পুলিশপ্রধান ওয়াহিদ আহমাদ কোহিস্তানিসহ নিরাপত্তা বাহিনীর দুই সদস্য নিহত হন। তবে এসব হামলায় কোনো বেসামরিক নাগরিকের মৃত্যু হয়নি।

কাআনি বলেন, তালেবানের অবস্থানে বিমান চালানো হয়েছে। এসব হামলায় তালেবানের ‘শতাধিক সদস্য মারা গেছে এবং আহত হয়েছেন কয়েক ডজন’।

‘হামলা চালিয়ে তখনই তাদের হত্যা করা হয়, যখন তারা হেরাত শহরে ঢোকার চেষ্টা করে’, যোগ করেন কাআনি।

তবে তালেবানের পক্ষ থেকে হতাহতের বিষয়ে কোনো মন্তব্য করা হয়নি।

খবরে বলা হয়, ৯ দিন ধরে হেরাত শহরে সংঘর্ষ চলছে।

‘হেরাতে তালেবান পাকিস্তানের সমর্থন নিয়ে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে’ বলে অভিযোগ গণপ্রতিরোধ বাহিনীর নেতা মোহাম্মদ ইসমাইল খান।

দীর্ঘ ২০ বছর পর আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করছে যুক্তরাষ্ট্র এবং তার মিত্ররা। এর মধ্যে দেশের প্রায় অর্ধেকেরও বেশি জেলার দখল নিয়েছে তালেবান। সশস্ত্র গোষ্ঠীটির এ অগ্রযাত্রা রুখতে হিমশিম খাচ্ছে আফগান সরকার।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন