আড়াই মাসের মধ্যেই পরমাণু অস্ত্রের রসদ ইরানের হাতে!
jugantor
আড়াই মাসের মধ্যেই পরমাণু অস্ত্রের রসদ ইরানের হাতে!

  অনলাইন ডেস্ক  

০৬ আগস্ট ২০২১, ০০:১০:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

আর মাত্র আড়াই মাসের মধ্যেই ইরানের হাতে পরমাণু অস্ত্র তৈরির রসদ পৌঁছে যাবে বলে ইসরাইল আশঙ্কা প্রকাশ করেছে।

ইসরাইলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেনি গ্যান্টজ বুধবার আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেছেন, আগামী ১০ সপ্তাহের মধ্যে ইরানের হাতে পারমাণবিক বোমা তৈরির সরঞ্জাম এসে পৌঁছাবে। খবর স্পুটনিকের।

আর ইরান যদি তা করে, তাহলে ২০১৫ সালে ৬ জাতির সঙ্গে করা জয়েন্ট কমপ্রিহেনসিভ প্ল্যান অব অ্যাকশন (জেসিপিওএ) চুক্তি ভঙ করবে তেহরান।

এ ব্যাপারে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য রাষ্ট্রগুলোর কাছে অভিযোগ জানান ইসরাইলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী।

যদিও ২০১৮ সালে ওই চুক্তি থেকে এক তরফাভাবে যুক্তরাষ্ট্র নিজেকে প্রত্যাহার করে নেয় সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমলে।

অবশ্য চুক্তিতে সই করা অন্য ৫ দেশ- চীন, রাশিয়া, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য ও জাার্মানির সঙ্গে এ বছরের ৯ এপ্রিল থেকে ইউরোপীয় ইউনিয়নও অস্ট্রিয়ার ভিয়েনায় দঢায় দফায় আলোচনা করে যাচ্ছে ইরানকে জেসিপিওএতে ফেরানোর জন্য।

কিন্তু ইরানের সাফ কথা, আগে তেহরানের ওপর আরোপিত সব নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে হবে, তার পর আলোচনা।

অন্যদিকে, বাইডেন প্রশাসন বলছে- ইরান যদি আগে পরমাণু চুক্তিতে ফিরে আসে, তবেই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হবে।

ইসরাইলের পররাষ্ট্র মন্ত্রী ইয়াইর ল্যাপিড বলেছেন, তেলআবিব আক্রান্ত হলে আমাদের জনগনের নিরাপত্তার জন্য আমরাও পাল্টা হামলা চালাবো।

আড়াই মাসের মধ্যেই পরমাণু অস্ত্রের রসদ ইরানের হাতে!

 অনলাইন ডেস্ক 
০৬ আগস্ট ২০২১, ১২:১০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আর মাত্র আড়াই মাসের মধ্যেই ইরানের হাতে পরমাণু অস্ত্র তৈরির রসদ পৌঁছে যাবে বলে ইসরাইল আশঙ্কা প্রকাশ করেছে।

ইসরাইলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেনি গ্যান্টজ বুধবার আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেছেন, আগামী ১০ সপ্তাহের মধ্যে ইরানের হাতে পারমাণবিক বোমা তৈরির সরঞ্জাম এসে পৌঁছাবে। খবর স্পুটনিকের।

আর ইরান যদি তা করে, তাহলে ২০১৫ সালে ৬ জাতির সঙ্গে করা জয়েন্ট কমপ্রিহেনসিভ প্ল্যান অব অ্যাকশন (জেসিপিওএ) চুক্তি ভঙ করবে তেহরান।

এ ব্যাপারে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য রাষ্ট্রগুলোর কাছে অভিযোগ জানান ইসরাইলের প্রতিরক্ষামন্ত্রী।

যদিও ২০১৮ সালে ওই চুক্তি থেকে এক তরফাভাবে যুক্তরাষ্ট্র নিজেকে প্রত্যাহার করে নেয় সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমলে।

অবশ্য চুক্তিতে সই করা অন্য ৫ দেশ- চীন, রাশিয়া, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য ও জাার্মানির সঙ্গে  এ বছরের ৯ এপ্রিল থেকে ইউরোপীয় ইউনিয়নও অস্ট্রিয়ার ভিয়েনায় দঢায় দফায় আলোচনা করে যাচ্ছে ইরানকে জেসিপিওএতে ফেরানোর জন্য।

কিন্তু ইরানের সাফ কথা, আগে তেহরানের ওপর আরোপিত সব নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করতে হবে, তার পর আলোচনা।
 
অন্যদিকে, বাইডেন প্রশাসন বলছে- ইরান যদি আগে পরমাণু চুক্তিতে ফিরে আসে, তবেই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হবে।

ইসরাইলের পররাষ্ট্র মন্ত্রী ইয়াইর ল্যাপিড বলেছেন, তেলআবিব আক্রান্ত হলে আমাদের জনগনের নিরাপত্তার জন্য আমরাও পাল্টা হামলা চালাবো।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন-ইরান সংকট