এরদোগানের সঙ্গে বৈঠক করবে তালেবান
jugantor
এরদোগানের সঙ্গে বৈঠক করবে তালেবান

  অনলাইন ডেস্ক  

১৪ আগস্ট ২০২১, ২১:২৫:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান। ফাইল ছবি

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগানের সঙ্গে ‘অনুকূল পরিস্থিতিতে’ আফগান সংকট নিয়ে বৈঠকে বসবেন তালেবান নেতারা।

বৃহস্পতিবার মিডল ইস্ট আইয়ের কাছে পাঠানো এক লিখিত বিবৃতিতে এ কথা জানান সশস্ত্র গোষ্ঠীটির মুখপাত্র মোহাম্মদ নাইম।

বুধবার সিএনএন তুর্ককে এক সাক্ষাৎকারে এরদোগান জানিয়েছিলেন, আফগানিস্তানের অস্থিতিশীল অবস্থার অবসানে তিনি তালেবান নেতার সঙ্গে সাক্ষাতে প্রস্তুত রয়েছেন।

তালেবান মুখপাত্র মোহাম্মদ নাঈম বলেন, সবাই আমাদের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করতে পারবেন। তবে আমরা একটা ভালো পরিস্থিতিতে এসব বৈঠক করব।

মিডল ইস্ট মনিটরের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, দোহায় তুর্কি দূতাবাসও এ ব্যাপারে যোগাযোগের মাধ্যম হতে পারে।

আফগানিস্তানের কাবুল বিমানবন্দরের দায়িত্বে তুরস্ককে তালেবানরা মেনে নেবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তালেবান মুখপাত্র মোহাম্মদ নাঈম বলেন, এ বিষয়ে আমাদের অবস্থান আগের মতোই আছে। তুরস্কের প্রতি আমাদের বক্তব্য হলো-সব বিদেশি বাহিনীকে আমাদের দেশ ত্যাগ করতে হবে।

তুরস্কের প্রতিরক্ষামন্ত্রী হুলুসি আকার পাকিস্তান সফরের সময় তুর্কি বাহিনীকে যাতে তালেবানরা মেনে নেয় সে বিষয়ে আলোচনার প্রস্তাব দেওয়ার কয়েকদিন পর তালেবানদের পক্ষ থেকে এ সিদ্ধান্ত জানানো হয়।

এ বিষয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও চান এ বিষয়ে তুরস্ক ও তালেবানরা সরাসরি আলোচনার টেবিলে বসুক।

আফগানিস্তানের মুখপাত্র আরও বলেন, আফগানরা আফগানিস্তান ছেড়ে যাক আমরা তা চাই না। বরং, দেশের বাইরে যেসব আফগান নাগরিকরা রয়েছেন তারাও ফিরে আসুক সেটাই আমরা চাই। যারা মনে করছেন, তালেবানের শাস্তির ভয়ে তারা পালিয়ে যাচ্ছেন। তাদের জানা উচিত এসব কথা সম্পূর্ণ অসত্য।

এরদোগানের সঙ্গে বৈঠক করবে তালেবান

 অনলাইন ডেস্ক 
১৪ আগস্ট ২০২১, ০৯:২৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান। ফাইল ছবি
তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান। ফাইল ছবি

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগানের সঙ্গে ‘অনুকূল পরিস্থিতিতে’ আফগান সংকট নিয়ে বৈঠকে বসবেন তালেবান নেতারা। 

বৃহস্পতিবার মিডল ইস্ট আইয়ের কাছে পাঠানো এক লিখিত বিবৃতিতে এ কথা জানান সশস্ত্র গোষ্ঠীটির মুখপাত্র মোহাম্মদ নাইম। 

বুধবার সিএনএন তুর্ককে এক সাক্ষাৎকারে এরদোগান জানিয়েছিলেন, আফগানিস্তানের অস্থিতিশীল অবস্থার অবসানে তিনি তালেবান নেতার সঙ্গে সাক্ষাতে প্রস্তুত রয়েছেন।

তালেবান মুখপাত্র মোহাম্মদ নাঈম বলেন, সবাই আমাদের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করতে পারবেন। তবে আমরা একটা ভালো পরিস্থিতিতে এসব বৈঠক করব। 

মিডল ইস্ট মনিটরের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়, দোহায় তুর্কি দূতাবাসও এ ব্যাপারে যোগাযোগের মাধ্যম হতে পারে।

আফগানিস্তানের কাবুল বিমানবন্দরের দায়িত্বে তুরস্ককে তালেবানরা মেনে নেবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তালেবান মুখপাত্র মোহাম্মদ নাঈম বলেন, এ বিষয়ে আমাদের অবস্থান আগের মতোই আছে। তুরস্কের প্রতি আমাদের বক্তব্য হলো-সব বিদেশি বাহিনীকে আমাদের দেশ ত্যাগ করতে হবে।

তুরস্কের প্রতিরক্ষামন্ত্রী হুলুসি আকার পাকিস্তান সফরের সময় তুর্কি বাহিনীকে যাতে তালেবানরা মেনে নেয় সে বিষয়ে আলোচনার প্রস্তাব দেওয়ার কয়েকদিন পর তালেবানদের পক্ষ থেকে এ সিদ্ধান্ত জানানো হয়।

এ বিষয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও চান এ বিষয়ে তুরস্ক ও তালেবানরা সরাসরি আলোচনার টেবিলে বসুক।

আফগানিস্তানের মুখপাত্র আরও বলেন, আফগানরা আফগানিস্তান ছেড়ে যাক আমরা তা চাই না। বরং, দেশের বাইরে যেসব আফগান নাগরিকরা রয়েছেন তারাও ফিরে আসুক সেটাই আমরা চাই। যারা মনে করছেন, তালেবানের শাস্তির ভয়ে তারা পালিয়ে যাচ্ছেন। তাদের জানা উচিত এসব কথা সম্পূর্ণ অসত্য।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : আফগানিস্তানে তালেবানের পুনরুত্থান