স্ত্রীর পুঁতে রাখা দেহ ১১ মাস পর উদ্ধার! (ভিডিও)

প্রকাশ : ০৫ মে ২০১৮, ১৯:৩৭ | অনলাইন সংস্করণ

  যুগান্তর ডেস্ক   

ঘরের মেঝে থেকে মৃতদেহ উদ্ধারের দৃশ্য

দীর্ঘদিন ধরে স্ত্রীকে নিয়ে কলকাতায় থাকতেন গোপাল সরদার। প্রায় ১ বছর আগে রায়দিঘির নন্দকুমারপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের নারায়ণপুরে একটি গ্রামের বাড়িতে আসেন গোপাল। সেখানেই স্বামী-স্ত্রী বসবাস শুরু করেন।

কিন্তু আচমকাই নিখোঁজ হয়ে যান গোপালের স্ত্রী সোমা সরদার। গোপাল থানায় অভিযোগ করেন যে তার স্ত্রী নিখোঁজ হয়েছে। তারপর বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজিও শুরু হয়।

স্ত্রী নিখোঁজ রহস্যের কিনারা মিলেছে প্রায় ১ বছর পর গত শুক্রবার। গোপালের মামা মারা যাওয়ায় তার এক আত্মীয় পাঁচু নাইয়া সেখানে আসেন।

সেখানে গোপালের বাড়ির পাশের একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে পচা গন্ধ পান তিনি। ঘরের ভিতরে মাটি খোঁড়া অবস্থায় দেখে সন্দেহ হয় পাঁচুর। প্রতিবেশীদের ডেকে বিষয়টি দেখান তিনি।

পরে পুলিশ এসে ঘরের মেঝে খুঁড়ে একটি কঙ্কাল উদ্ধার করে। প্রাথমিক অনুমান, উদ্ধার হওয়া কঙ্কালটি নিখোঁজ সোমা সরদারের। স্বামীর বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক জেনে যাওয়ার জন্যই গোপাল তার স্ত্রীকে খুন করে মেঝেতে পুঁতে দিয়েছিল বলে অভিযোগ পরিবারের।

ঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্ত গোপাল। তার খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে রায়দীঘি থানার পুলিশ।