কাশ্মীরে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে ২৪ ঘণ্টায় নিহত ৫
jugantor
কাশ্মীরে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে ২৪ ঘণ্টায় নিহত ৫

  অনলাইন ডেস্ক  

২৫ আগস্ট ২০২১, ১১:২৬:৩৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতনিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের বারামুল্লা জেলার সোপোরে এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে তিন গেরিলা নিহত হয়েছে। এর আগে শ্রীনগরে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে দুই গেরিলা নিহত হয়েছিল।

এর ফলে গত ২৪ ঘণ্টায় পৃথক সংঘর্ষে ৫ গেরিলার মৃত্যু হলো। মঙ্গলবার পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলিবারুদ উদ্ধার করেছে। কাশ্মীর জোনের পুলিশের মহাপরিদর্শক জানিয়েছেন, চলতি বছরে পুলিশ একশর বেশি সন্ত্রাসীকে হত্যা করেছে। খবর দ্য ডনের।

জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ জানিয়েছে, সংশ্লিষ্ট এলাকায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। ফলে গত ২৪ ঘণ্টায় পাঁচজন এবং গত ছয় দিনে ১০ জন সন্ত্রাসী নিহত হলো।

জম্মু-কাশ্মীরে ২০২১ সালে এ পর্যন্ত মোট ১০৭ সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে বলেও পুলিশ জানিয়েছে।

সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে পুলিশ সোপোরে এলাকার মোবাইল ইন্টারনেট পরিসেবা বন্ধ করা হয়েছে এবং বাডগাম ও বারমুল্লার মধ্যে ট্রেন পরিষেবাও স্থগিত করা হয়েছে।

পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, সোমবার সকালে আব্বাস শেখ এবং তার সহযোগী সাকিব মঞ্জুর শহরের আলোচিবাগ এলাকায় পুলিশের সঙ্গে এক এনকাউন্টারে নিহত হয়েছে।

কাশ্মীর জোনের পুলিশ মহাপরিদর্শক বিজয় কুমার বলেন, আমরা এলাকায় তাদের উপস্থিতি সম্পর্কে অবগত ছিলাম। সাধারণ পোশাকে থাকা পুলিশ সদস্যরা সঙ্গে সঙ্গে এলাকাটি ঘিরে ফেলে এবং সন্ত্রাসীদের চ্যালেঞ্জ জানায়। এ সময়ে সন্ত্রাসীরা তাদের ওপরে গুলি চালায়। পুলিশ পাল্টা গুলিবর্ষণ করলে দুজনেই নিহত হন।

এর পর একই দিনে কাশ্মীরের বারামুল্লা জেলার সোপোরে এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে আরও তিন গেরিলা যোদ্ধা নিহত হন।

কাশ্মীরে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে ২৪ ঘণ্টায় নিহত ৫

 অনলাইন ডেস্ক 
২৫ আগস্ট ২০২১, ১১:২৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতনিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের বারামুল্লা জেলার সোপোরে এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে তিন গেরিলা নিহত হয়েছে। এর আগে শ্রীনগরে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে দুই গেরিলা নিহত হয়েছিল।

এর ফলে গত ২৪ ঘণ্টায় পৃথক সংঘর্ষে ৫ গেরিলার মৃত্যু হলো। মঙ্গলবার পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলিবারুদ উদ্ধার করেছে। কাশ্মীর জোনের পুলিশের মহাপরিদর্শক জানিয়েছেন, চলতি বছরে পুলিশ একশর বেশি সন্ত্রাসীকে হত্যা করেছে। খবর দ্য ডনের।     

জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ জানিয়েছে, সংশ্লিষ্ট এলাকায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। ফলে গত ২৪ ঘণ্টায় পাঁচজন এবং গত ছয় দিনে ১০ জন সন্ত্রাসী নিহত হলো।

জম্মু-কাশ্মীরে ২০২১ সালে এ পর্যন্ত মোট ১০৭ সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে বলেও পুলিশ জানিয়েছে।

সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে পুলিশ সোপোরে এলাকার মোবাইল ইন্টারনেট পরিসেবা বন্ধ করা হয়েছে এবং বাডগাম ও বারমুল্লার মধ্যে ট্রেন পরিষেবাও স্থগিত করা হয়েছে।      

পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, সোমবার সকালে আব্বাস শেখ এবং তার সহযোগী সাকিব মঞ্জুর শহরের আলোচিবাগ এলাকায় পুলিশের সঙ্গে এক এনকাউন্টারে নিহত হয়েছে।

কাশ্মীর জোনের পুলিশ মহাপরিদর্শক বিজয় কুমার বলেন, আমরা এলাকায় তাদের উপস্থিতি সম্পর্কে অবগত ছিলাম। সাধারণ পোশাকে থাকা পুলিশ সদস্যরা সঙ্গে সঙ্গে এলাকাটি ঘিরে ফেলে এবং সন্ত্রাসীদের চ্যালেঞ্জ জানায়। এ সময়ে সন্ত্রাসীরা তাদের ওপরে গুলি চালায়। পুলিশ পাল্টা গুলিবর্ষণ করলে দুজনেই নিহত হন।

এর পর একই দিনে কাশ্মীরের বারামুল্লা জেলার সোপোরে এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে আরও তিন গেরিলা যোদ্ধা নিহত হন।  

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : কাশ্মীর সংকট