জেল থেকে ছাড়া পেলেন গাদ্দাফিপুত্র সাদি
jugantor
জেল থেকে ছাড়া পেলেন গাদ্দাফিপুত্র সাদি

  অনলাইন ডেস্ক  

০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:৫২:০৩  |  অনলাইন সংস্করণ

লিবিয়ার প্রয়াত একনায়ক মুয়াম্মার গাদ্দাফির ছেলে সাদি গাদ্দাফিকে জেল থেকে ছেড়ে দিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ।

কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আলজাজিরা এ তথ্য জানায়।

রোববার একটি সূত্র বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে জানায়, ছাড়া পাওয়ার পরই তাৎক্ষণিকভাবে একটি ফ্লাইটে ৪৭ বছর বয়সি সাদি ইস্তান্বুলের উদ্দেশে রওনা হন।

২০১১ সালে দেশজুড়ে বিক্ষোভ চলার সময় সাদি গাদ্দাফি নাইজারে পালিয়ে যান। এরপর ২০১৪ সালে তাকে লিবিয়ায় ফিরিয়ে এনে জেলে বন্দি করে রাখা হয়। এরপর থেকেই তিনি জেলে ছিলেন।

২০১১ সালে বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে সংঘটিত অপরাধে সম্পৃক্ত থাকা ও ২০০৫ সালে ফুটবল কোচ বশির আল-রায়ানিকে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে সাদির বিরুদ্ধে।

পরে ২০১৮ সালে তাকে বশির আল-রায়ানি হত্যা মামলা থেকে খালাস দেওয়া হয়।

দীর্ঘ ১০ বছর ধরে লিবিয়ায় বিশৃঙ্খলা, বিভক্তি এবং সহিংসতা অব্যাহত রয়েছে। এখন পর্যন্ত সংঘাতে গাদ্দাফির তিন সন্তান নিহত হয়েছেন।

শান্তি প্রতিষ্ঠার চেষ্টায় মার্চে দেশটিতে জাতীয় ঐক্য সরকার স্থাপিত হয়। এই সরকারের অধীনে ডিসেম্বরে দেশটিতে নির্বাচন আয়োজনেরকথা রয়েছে।

সরকারি সূত্রটি জানিয়েছে, জ্যেষ্ঠ উপজাতীয় নেতা ও প্রধানমন্ত্রী আবদুল হামিদ ডিবেইবির মধ্যে আলোচনার ফলশ্রুতিতে সাদি মুক্তি পান।

এই আলোচনায় সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ফাতি বাশাগাও ছিলেন বলে জানিয়েছে অপর একসূত্র।

জেল থেকে ছাড়া পেলেন গাদ্দাফিপুত্র সাদি

 অনলাইন ডেস্ক 
০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

লিবিয়ার প্রয়াত একনায়ক মুয়াম্মার গাদ্দাফির ছেলে সাদি গাদ্দাফিকে জেল থেকে ছেড়ে দিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ।

কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আলজাজিরা এ তথ্য জানায়।

রোববার একটি সূত্র বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে জানায়, ছাড়া পাওয়ার পরই তাৎক্ষণিকভাবে একটি ফ্লাইটে ৪৭ বছর বয়সি সাদি ইস্তান্বুলের উদ্দেশে রওনা হন।

২০১১ সালে দেশজুড়ে বিক্ষোভ চলার সময় সাদি গাদ্দাফি নাইজারে পালিয়ে যান। এরপর ২০১৪ সালে তাকে লিবিয়ায় ফিরিয়ে এনে জেলে বন্দি করে রাখা হয়। এরপর থেকেই তিনি জেলে ছিলেন।

২০১১ সালে বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে সংঘটিত অপরাধে সম্পৃক্ত থাকা ও ২০০৫ সালে ফুটবল কোচ বশির আল-রায়ানিকে হত্যার অভিযোগ আনা হয়েছে সাদির বিরুদ্ধে।

পরে ২০১৮ সালে তাকে বশির আল-রায়ানি হত্যা মামলা থেকে খালাস দেওয়া হয়।

দীর্ঘ ১০ বছর ধরে লিবিয়ায় বিশৃঙ্খলা, বিভক্তি এবং সহিংসতা অব্যাহত রয়েছে। এখন পর্যন্ত সংঘাতে গাদ্দাফির তিন সন্তান নিহত হয়েছেন।

শান্তি প্রতিষ্ঠার চেষ্টায় মার্চে দেশটিতে জাতীয় ঐক্য সরকার স্থাপিত হয়। এই সরকারের অধীনে ডিসেম্বরে দেশটিতে নির্বাচন আয়োজনের কথা রয়েছে।

সরকারি সূত্রটি জানিয়েছে, জ্যেষ্ঠ উপজাতীয় নেতা ও প্রধানমন্ত্রী আবদুল হামিদ ডিবেইবির মধ্যে আলোচনার ফলশ্রুতিতে সাদি মুক্তি পান।

এই আলোচনায় সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ফাতি বাশাগাও ছিলেন বলে জানিয়েছে অপর এক সূত্র।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন