তালেবানকে স্বীকৃতির বিষয়ে যা ভাবছে ভারত-অস্ট্রেলিয়া
jugantor
তালেবানকে স্বীকৃতির বিষয়ে যা ভাবছে ভারত-অস্ট্রেলিয়া

  অনলাইন ডেস্ক  

১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:৩৭:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

তালেবান

আফগানিস্তানে ক্ষমতায় থাকা শক্তি হিসেবে তালেবানকে স্বীকৃতি দিয়েছে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া।

রোববার ভারত অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে একটি যৌথ বিবৃতিতে স্বীকার করেছে, তালেবান আফগানিস্তান জুড়ে ক্ষমতা ও কর্তৃত্ব দখল করেছে। একটি দেশের ক্ষমতাসীন শক্তি হিসেবে তালেবানকে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া স্বীকৃতি দিয়েছে।

তবে একক ও সরকারিভাবে তালেবানকে এখনো স্বীকৃতি দেয়নি ভারত ও অস্ট্রেলিয়া।

ভারত আফগানিস্তানের পরিস্থিতির ওপর প্রতিনিয়ত নজর রাখছে। সে দেশে আটকে থাকা ভারতীয়দের দেশে ফেরানোই এখন একমাত্র লক্ষ্য দিল্লির কাছে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বলছে, গত সপ্তাহে তালেবান সরকারের ঘোষণার পর থেকে লাগাতার পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে দিল্লি। একটানা কয়েকদিন আলোচনার পরে শুধুমাত্র একটি দেশের ক্ষমতাসীন শক্তি হিসেবে তালেবানকে স্বীকৃতি দিয়েছে ভারত।

আফগানিস্তানের পরিস্থিতি নিয়ে ভারতের পাশাপাশি উদ্বেগ প্রকাশ করেছে অস্ট্রেলিয়াও। ইতিমধ্যেই ভারতে সফরে এসে এ কথা জানিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

যৌথ বিবৃতিতে আফগানিস্তান থেকে বিদেশি নাগরিকদের বেরোতে সবরকম সহযোগিতা করতে তালেবানদের কাছে দাবি করা হয়েছে। পাশাপাশি যেসব আফগান নাগরিকরা দেশ ছেড়ে অন্যত্র যেতে চাইছেন তাদেরও সেই সুযোগ দেওয়ার দাবি জানানো হয়।

তালেবানকে স্বীকৃতির বিষয়ে যা ভাবছে ভারত-অস্ট্রেলিয়া

 অনলাইন ডেস্ক 
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৩৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
তালেবান
ফাইল ছবি

আফগানিস্তানে ক্ষমতায় থাকা শক্তি হিসেবে তালেবানকে স্বীকৃতি দিয়েছে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া। 

রোববার ভারত অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে একটি যৌথ বিবৃতিতে স্বীকার করেছে, তালেবান আফগানিস্তান জুড়ে ক্ষমতা ও কর্তৃত্ব দখল করেছে। একটি দেশের ক্ষমতাসীন শক্তি হিসেবে তালেবানকে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া স্বীকৃতি দিয়েছে। 

তবে একক ও সরকারিভাবে তালেবানকে এখনো স্বীকৃতি দেয়নি ভারত ও অস্ট্রেলিয়া। 

ভারত আফগানিস্তানের পরিস্থিতির ওপর প্রতিনিয়ত নজর রাখছে। সে দেশে আটকে থাকা ভারতীয়দের দেশে ফেরানোই এখন একমাত্র লক্ষ্য দিল্লির কাছে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বলছে, গত সপ্তাহে তালেবান সরকারের ঘোষণার পর থেকে লাগাতার পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে দিল্লি। একটানা কয়েকদিন আলোচনার পরে শুধুমাত্র একটি দেশের ক্ষমতাসীন শক্তি হিসেবে তালেবানকে স্বীকৃতি দিয়েছে ভারত।

আফগানিস্তানের পরিস্থিতি নিয়ে ভারতের পাশাপাশি উদ্বেগ প্রকাশ করেছে অস্ট্রেলিয়াও। ইতিমধ্যেই ভারতে সফরে এসে এ কথা জানিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী। 

যৌথ বিবৃতিতে আফগানিস্তান থেকে বিদেশি নাগরিকদের বেরোতে সবরকম সহযোগিতা করতে তালেবানদের কাছে দাবি করা হয়েছে।  পাশাপাশি যেসব আফগান নাগরিকরা দেশ ছেড়ে অন্যত্র যেতে চাইছেন তাদেরও সেই সুযোগ দেওয়ার দাবি জানানো হয়। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : আফগানিস্তানে তালেবানের পুনরুত্থান