আমি প্রেসিডেন্ট হলে ফ্রান্সে মোহাম্মদ নাম নিষিদ্ধ করব: জেমুর
jugantor
আমি প্রেসিডেন্ট হলে ফ্রান্সে মোহাম্মদ নাম নিষিদ্ধ করব: জেমুর

  অনলাইন ডেস্ক  

১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:৩৫:৩৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ফ্রান্সের কট্টর ডানপন্থি বিতর্কিত রাজনীতিক, লেখক ও প্রেসিডেন্ট প্রার্থী এরিক জেমুরের ইসলামবিদ্বেষী মন্তব্যের কারণে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিন্দার ঝড় বইছে।

বর্ণবাদী এ রাজনীতিবিদ বলেছেন, তিনি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে ফ্রান্সে করো নাম মোহাম্মদ রাখতে দেওয়া হবে না। মুসলিমদের কাছে প্রিয় এ নামটির ওপর তিনি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবেন বলেও জানান।

সম্প্রতি এক টিভি সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন।এতে এরিক জেমুর আরও বলেন, তিনি ক্ষমতায় গেলে মুসলিম অভিবাসীদের ফ্রান্সে ঢুকতে দেওয়া হবে না।

তিনি আরও বলেন, ১৮০৩ সালে সেই আইন আবারও বলবৎ করবেন, যে আইনে বলা হয়েছে ফ্রান্সে কোনো শিশুর নাম মোহাম্মদ রাখা যাবে না।

এছাড়া, যেসব মুসলিম বর্তমানে ফান্সে আছেন- তাদেরকে ফ্রান্সের কৃষ্টি ও সংস্কৃতি শিখানো হবে। এ দেশের ভাবধারায় তাদের অভ্যস্ত করে তুলতে হবে।

তার লেখা নতুন বই ‘ফ্রান্স হ্যাজ নট ইয়েট সেইড ইটস লাস্ট ওয়ার্ড’ এর মোড়ক উন্মোচণ উপলক্ষে গণমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এসব ধর্মবিদ্বেষী মন্তব্য করেন।

এরিক জেমুরের বর্ণবাদী বক্তব্যের প্রতিবাদে একটি রেডিও স্টেশনে ফোন করে নিন্দা জানিয়েছেন মালি বংশোদ্ভূত আব্দুল্লায়ে কান্তে নামে ফ্রান্সের এক পুলিশ কর্মকর্তা।

আমি প্রেসিডেন্ট হলে ফ্রান্সে মোহাম্মদ নাম নিষিদ্ধ করব: জেমুর

 অনলাইন ডেস্ক 
১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:৩৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ফ্রান্সের কট্টর ডানপন্থি বিতর্কিত রাজনীতিক, লেখক ও প্রেসিডেন্ট প্রার্থী এরিক জেমুরের ইসলামবিদ্বেষী মন্তব্যের কারণে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নিন্দার ঝড় বইছে।

বর্ণবাদী এ রাজনীতিবিদ বলেছেন, তিনি প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলে ফ্রান্সে করো নাম মোহাম্মদ রাখতে দেওয়া হবে না। মুসলিমদের কাছে প্রিয় এ নামটির ওপর তিনি নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবেন বলেও জানান।

সম্প্রতি এক টিভি সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন।এতে এরিক জেমুর আরও বলেন, তিনি ক্ষমতায় গেলে মুসলিম অভিবাসীদের ফ্রান্সে ঢুকতে দেওয়া হবে না।

তিনি আরও বলেন, ১৮০৩ সালে সেই আইন আবারও বলবৎ করবেন, যে আইনে বলা হয়েছে ফ্রান্সে কোনো শিশুর নাম মোহাম্মদ রাখা যাবে না।

এছাড়া, যেসব মুসলিম বর্তমানে ফান্সে আছেন- তাদেরকে ফ্রান্সের কৃষ্টি ও সংস্কৃতি শিখানো হবে।  এ দেশের ভাবধারায় তাদের অভ্যস্ত করে তুলতে হবে।

তার লেখা নতুন বই ‘ফ্রান্স হ্যাজ নট ইয়েট সেইড ইটস লাস্ট ওয়ার্ড’ এর মোড়ক উন্মোচণ উপলক্ষে গণমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এসব ধর্মবিদ্বেষী মন্তব্য করেন।

এরিক জেমুরের বর্ণবাদী বক্তব্যের প্রতিবাদে একটি রেডিও স্টেশনে ফোন করে নিন্দা জানিয়েছেন মালি বংশোদ্ভূত আব্দুল্লায়ে কান্তে নামে ফ্রান্সের এক পুলিশ কর্মকর্তা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন