চাদরে মুড়িয়ে দেওয়া হলো বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু গাছ
jugantor
চাদরে মুড়িয়ে দেওয়া হলো বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু গাছ

  অনলাইন ডেস্ক  

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৫৭:১৭  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বের সব উঁচু গাছকে দাবানলের কবল থেকে বাঁচাতে অগ্নিনির্বাপক চাদর দিয়ে মুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলে শুক্রবার গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

ক্যালিফোর্নিয়ার বিশ্ববিখ্যাত সেকুইয়া জাতীয় উদ্যানের বিখ্যাত গাছগুলো দাবালনের কবল থেকে রক্ষার জন্য এই উদ্যোগ নেওয়া হয়।

দমকল বাহিনীর মুখপাত্র রেবেকা প্যাটারসন জানান, সেকুইয়া জাতীয় উদ্যানে বিশাল জেনারেল শেরম্যান গাছ, অন্যান্য প্রজাতির সিকোয়াইয়া, জায়ান্ট ফরেস্ট মিউজিয়াম এবং অন্যান্য ভবনগুলোকেও দাবালন থেকে বাঁচাতে অগ্নিনির্বাপক চাদর দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, অ্যালুমিনিয়ানের র্যাপিং অল্প সময়ের জন্য তীব্র তাপ সহ্য করতে পারে। আগুন থেকে গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাগুলোতে বাঁচাতে তারা কয়েকবছর ধরেই এই উপাদান ব্যবহার করে আসছে।

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ওই দাবানল আগামী বৃহস্পতিবারের কোনো সময় সেকুইয়া জাতীয় উদ্যানে পৌঁছাতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। গত বছর ওই দাবালনে শতাব্দী প্রচীন অনেক উঁচু গাছ পুড়ে গিয়েছিল বলে জানা গেছে।

চাদরে মুড়িয়ে দেওয়া হলো বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু গাছ

 অনলাইন ডেস্ক 
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৫৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বের সব উঁচু গাছকে দাবানলের কবল থেকে বাঁচাতে অগ্নিনির্বাপক চাদর দিয়ে মুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে বলে শুক্রবার গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

ক্যালিফোর্নিয়ার বিশ্ববিখ্যাত সেকুইয়া জাতীয় উদ্যানের বিখ্যাত গাছগুলো দাবালনের কবল থেকে রক্ষার জন্য এই উদ্যোগ নেওয়া হয়।

দমকল বাহিনীর মুখপাত্র রেবেকা প্যাটারসন জানান, সেকুইয়া জাতীয় উদ্যানে বিশাল জেনারেল শেরম্যান গাছ, অন্যান্য প্রজাতির সিকোয়াইয়া, জায়ান্ট ফরেস্ট মিউজিয়াম এবং অন্যান্য ভবনগুলোকেও দাবালন থেকে বাঁচাতে অগ্নিনির্বাপক চাদর দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, অ্যালুমিনিয়ানের র্যাপিং অল্প সময়ের জন্য তীব্র তাপ সহ্য করতে পারে।  আগুন থেকে গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাগুলোতে বাঁচাতে তারা কয়েকবছর ধরেই এই উপাদান ব্যবহার করে আসছে। 

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ওই দাবানল আগামী বৃহস্পতিবারের কোনো সময় সেকুইয়া জাতীয় উদ্যানে পৌঁছাতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। গত বছর ওই দাবালনে শতাব্দী প্রচীন অনেক উঁচু গাছ পুড়ে গিয়েছিল বলে জানা গেছে। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন