লেবাননে ইরানের তেল: যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে বিজয় বলছে হিজবুল্লাহ
jugantor
লেবাননে ইরানের তেল: যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে বিজয় বলছে হিজবুল্লাহ

  অনলাইন ডেস্ক  

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:২১:০১  |  অনলাইন সংস্করণ

মার্কিন নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ইরান থেকে পাঠানো জ্বালানি তেল অবশেষে লেবাননে পৌঁছেছে। এ ঘটনাকে যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে বিজয় বলছে হিজবুল্লাহ।

বৃহস্পতিবার সিরিয়ার সমুদ্রবন্দর থেকে ট্যাংকারে করে স্থলপথে ৩৩ হাজার ম্যাট্রিক টন তেল লেবাননে নেয়া হয়। খবর আরব নিউজের।

লেবাননের গণমাধ্যম জানিয়েছে, ইরানের তেল বহনকারী ট্যাংকারের বহর লেবাননের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় বালবেক-হারমেল প্রদেশের হাওয়াশ আল-সাইয়েদ আলী এলাকা দিয়ে লেবাননে প্রবেশ করে।

হিজবুল্লাহর মহাসচিব হাসান নাসরুল্লাহ বলেছেন, মার্কিন নিষেধাজ্ঞার মুখে ইরান থেকে তেল পাঠানোর ঘটনা রাজনৈতিক, সামাজিক ও নৈতিক দিক দিয়ে ইরান এবং হিজবুল্লাহর জন্য বিশাল অর্জন।

জনগণের প্রতি তেল বহনকারী ট্যাংকার বহরের কাছে ভিড় না করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, লোকজনের নিরাপত্তা এবং ট্যাংকার বহরের স্বাভাবিক চলাচলে যাতে বিঘ্ন সৃষ্টি হয় এজন্য ভিড় এড়াতে হবে।

আগস্ট মাসের মাঝামাঝি সময়ে ইরান থেকে তেলবাহী জাহাজ লেবাননের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। হিজবুল্লাহ মহাসচিব হাসান নাসরুল্লাহ তেলবাহী জাহাজকে সমুদ্রে লেবাননের ভূখণ্ড বলে ঘোষণা করেছিলেন। তিনি এ বক্তব্যের মধ্যদিয়ে মূলত ইসরাইল ও আমেরিকাকে সতর্কবার্তা দিয়েছিলেন।

লেবাননে ইরানের তেল: যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে বিজয় বলছে হিজবুল্লাহ

 অনলাইন ডেস্ক 
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:২১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মার্কিন নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ইরান থেকে পাঠানো জ্বালানি তেল অবশেষে লেবাননে পৌঁছেছে। এ ঘটনাকে যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে বিজয় বলছে হিজবুল্লাহ।

বৃহস্পতিবার সিরিয়ার সমুদ্রবন্দর থেকে ট্যাংকারে করে স্থলপথে ৩৩ হাজার ম্যাট্রিক টন তেল লেবাননে নেয়া হয়। খবর আরব নিউজের।

লেবাননের গণমাধ্যম জানিয়েছে, ইরানের তেল বহনকারী ট্যাংকারের বহর লেবাননের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় বালবেক-হারমেল প্রদেশের হাওয়াশ আল-সাইয়েদ আলী এলাকা দিয়ে লেবাননে প্রবেশ করে।

হিজবুল্লাহর মহাসচিব হাসান নাসরুল্লাহ বলেছেন, মার্কিন নিষেধাজ্ঞার মুখে ইরান থেকে তেল পাঠানোর ঘটনা রাজনৈতিক, সামাজিক ও নৈতিক দিক দিয়ে ইরান এবং হিজবুল্লাহর জন্য বিশাল অর্জন।

জনগণের প্রতি তেল বহনকারী ট্যাংকার বহরের কাছে ভিড় না করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, লোকজনের নিরাপত্তা এবং ট্যাংকার বহরের স্বাভাবিক চলাচলে যাতে বিঘ্ন সৃষ্টি হয় এজন্য ভিড় এড়াতে হবে।

আগস্ট মাসের মাঝামাঝি সময়ে ইরান থেকে তেলবাহী জাহাজ লেবাননের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। হিজবুল্লাহ মহাসচিব হাসান নাসরুল্লাহ তেলবাহী জাহাজকে সমুদ্রে লেবাননের ভূখণ্ড বলে ঘোষণা করেছিলেন। তিনি এ বক্তব্যের মধ্যদিয়ে মূলত ইসরাইল ও আমেরিকাকে সতর্কবার্তা দিয়েছিলেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ইসরাইল-হিজবুল্লাহ উত্তেজনা