এবার কাঁধে রাইফেল নিয়ে চিড়িয়াখানায় তালেবান
jugantor
এবার কাঁধে রাইফেল নিয়ে চিড়িয়াখানায় তালেবান

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৩১:২১  |  অনলাইন সংস্করণ

তালেবান

কাঁধে একে-৪৭ কিংবা এম-১৬ এর মতো অস্ত্র আর মুখে শিশুর মতো অনাবিল হাসি নিয়ে কাবুলের চিড়িয়াখানা ঘুরতে গিয়েছিলেন আফগানিস্তানের প্রত্যন্ত এলাকা থেকে আসা তালেবান যোদ্ধারা।

কাবুলের চিড়িয়াখানায় পরিবারের সঙ্গে আসা শিশুদের পাশাপাশি সশস্ত্র তালেবান যোদ্ধাদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। অন্যরা যেখানে মাটিতে বসে আইসক্রিম আর লবণ মাখানো ডালিমের দানা খাচ্ছিলেন, ভারি অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তালেবান যোদ্ধারা তখন সিংহ, চিতা, উট, নেকড়ে ও উটপাখির খাঁচায় উঁকি দিয়ে এসব প্রাণী দেখছিলেন।

অনেক বছর ধরে আফগানিস্তানের প্রত্যন্ত এলাকায় লড়াই করা অনেক তালেবান যোদ্ধাই প্রথমবার কাবুলের মতো কোনো বড় শহরে প্রবেশ করেছে। তাই চিড়িয়াখানার মতো বিনোদন কেন্দ্রে আসাও তাদের জন্য প্রথম বলে শনিবার একটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

তারা সেলফি ও গ্রুপ ফটো তুলেছে বলে জানা গেছে। শুক্রবার জুমার নামাজের পর অনেকেই অস্ত্রসহ আবার অনেকেই অস্ত্র ছাড়া, ঐহিত্যবাহী আফগান পোশাক পরে সেখানে গিয়েছেন বলে জানা গেছে।

ঘুরতে আসা তালেবান যোদ্ধা আবদুল কাদির বর্তমানে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে কর্মরত রয়েছেন। বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে এসেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, আমি প্রাণী খুব পছন্দ করি। বিশেষ করে যেসব প্রাণী আমাদের দেশে পাওয়া যায়। আমার সবচেয়ে পছন্দ সিংহ।

অস্ত্র নিয়ে কেন এসেছেন, বিশ্বের কোনো চিড়িয়াখানায় তো অস্ত্র নিয়ে যাওয়া যায় না জানতে চাইলে তিনি বলেন, নারী ও শিশুরা যেন ভয় না পান তাই তালেবান অস্ত্র ছাড়াই আসতে চেয়েছিল।

এবার কাঁধে রাইফেল নিয়ে চিড়িয়াখানায় তালেবান

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
তালেবান
ছবি : সংগৃহীত

কাঁধে একে-৪৭ কিংবা এম-১৬ এর মতো অস্ত্র আর মুখে শিশুর মতো অনাবিল হাসি নিয়ে কাবুলের চিড়িয়াখানা ঘুরতে গিয়েছিলেন আফগানিস্তানের প্রত্যন্ত এলাকা থেকে আসা তালেবান যোদ্ধারা। 

কাবুলের চিড়িয়াখানায় পরিবারের সঙ্গে আসা শিশুদের পাশাপাশি সশস্ত্র তালেবান যোদ্ধাদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। অন্যরা যেখানে মাটিতে বসে আইসক্রিম আর লবণ মাখানো ডালিমের দানা খাচ্ছিলেন, ভারি অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তালেবান যোদ্ধারা তখন সিংহ, চিতা, উট, নেকড়ে ও উটপাখির খাঁচায় উঁকি দিয়ে এসব প্রাণী দেখছিলেন।

অনেক বছর ধরে আফগানিস্তানের প্রত্যন্ত এলাকায় লড়াই করা অনেক তালেবান যোদ্ধাই প্রথমবার কাবুলের মতো কোনো বড় শহরে প্রবেশ করেছে।  তাই চিড়িয়াখানার মতো বিনোদন কেন্দ্রে আসাও তাদের জন্য প্রথম বলে শনিবার একটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

তারা সেলফি ও গ্রুপ ফটো তুলেছে বলে জানা গেছে। শুক্রবার জুমার নামাজের পর অনেকেই অস্ত্রসহ আবার অনেকেই অস্ত্র ছাড়া, ঐহিত্যবাহী আফগান পোশাক পরে সেখানে গিয়েছেন বলে জানা গেছে।

ঘুরতে আসা তালেবান যোদ্ধা আবদুল কাদির বর্তমানে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে কর্মরত রয়েছেন। বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে এসেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। 

তিনি বলেন, আমি প্রাণী খুব পছন্দ করি। বিশেষ করে যেসব প্রাণী আমাদের দেশে পাওয়া যায়। আমার সবচেয়ে পছন্দ সিংহ।

অস্ত্র নিয়ে কেন এসেছেন, বিশ্বের কোনো চিড়িয়াখানায় তো অস্ত্র নিয়ে যাওয়া যায় না জানতে চাইলে তিনি বলেন,  নারী ও শিশুরা যেন ভয় না পান তাই তালেবান অস্ত্র ছাড়াই আসতে চেয়েছিল।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন