তৃণমূলে বাবুল সুপ্রিয় যোগ দেওয়া নিয়ে যা বললেন শুভেন্দু
jugantor
তৃণমূলে বাবুল সুপ্রিয় যোগ দেওয়া নিয়ে যা বললেন শুভেন্দু

  অনলাইন ডেস্ক  

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৩৪:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। ছবি: পিটিআই

বিনা মেঘে বজ্রপাতের মতই শনিবার হঠাৎ বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন বিজেপির দুইবারের মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। তার চলে যাওয়া নিয়ে বিজেপি শিবিরও চমকে গেছে। বাবুল সুপ্রিয় যে, এই ভাবে দল বদল করবেন তা যে ভাবতেই পারেননি তারা। বিষয়টি নিয়ে কষ্ট পেয়েছেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।

বাবুলের দলবদল প্রসঙ্গে শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ‘দল ছাড়ার আগে বিজেপিকে জানানো উচিত ছিল বাবুল সুপ্রিয়র। তবে তার দল ছেড়ে যাওয়ায় বিজেপির কোনও বড় ক্ষতি হবে না। বাবুল খুব একটা জনপ্রিয় নেতা ছিলেন না, রাজনৈতিক সংগঠকও ছিলেন না। যদিও বাবুল আমার ভালো বন্ধু।’

এদিকে বাবুলের দলবদলের পরই আসানসোলে বিশেষ বৈঠক করতে চলেছেন শুভেন্দু অধিকারী। বিজেপি সূত্রে জানানো হয়েছে, সোমবার বেলা তিনটে নাগাদ আসানসোল জেলা কার্যালয়ে কার্যকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন শুভেন্দু অধিকারী।

উল্লেখ্য, বাবুল সুপ্রিয় ২০১৪ সালে আসানসোল থেকে জিতেই কেন্দ্রের মন্ত্রী হয়েছিলেন। যা চমকে দিয়েছিল সবাইকে। ২০১৯ সালেও তাকে মন্ত্রিসভায় রেখেছিলেন নরেন্দ্র মোদি। কিন্তু মোদি ক্যাবিনেটের সাম্প্রতিক রদবদলে তিনি বাদ পড়েন। আর তার পর থেকেই দলের সঙ্গে তার দূরত্ব বাড়তে শুরু করে।

গত ৭ জুলাই মন্ত্রিত্ব চলে যাওয়ার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন বাবুল। এরপর বাবুল রাজনীতি ছাড়তে চাইলে তাকে চেষ্টা করা হয় শীর্ষ নেতৃত্বের তরফে। সাংসদ পদ ছাড়া থেকে বিরত করা হয়েছিল বিজেপির তরফে। তবে আগাম সতর্কবার্তা না দিয়েই তৃণমূলে যোগ দিলেন আসানসোলের দুই বারের সাং বাবুল সুপ্রিয়।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

তৃণমূলে বাবুল সুপ্রিয় যোগ দেওয়া নিয়ে যা বললেন শুভেন্দু

 অনলাইন ডেস্ক 
১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৩৪ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। ছবি: পিটিআই
পশ্চিমবঙ্গের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। ছবি: পিটিআই

বিনা মেঘে বজ্রপাতের মতই শনিবার হঠাৎ বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন বিজেপির দুইবারের মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। তার চলে যাওয়া নিয়ে বিজেপি শিবিরও চমকে গেছে। বাবুল সুপ্রিয় যে, এই ভাবে দল বদল করবেন তা যে ভাবতেই পারেননি তারা। বিষয়টি নিয়ে কষ্ট পেয়েছেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভার বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। 

বাবুলের দলবদল প্রসঙ্গে শুভেন্দু অধিকারী বলেন, ‘দল ছাড়ার আগে বিজেপিকে জানানো উচিত ছিল বাবুল সুপ্রিয়র। তবে তার দল ছেড়ে যাওয়ায় বিজেপির কোনও বড় ক্ষতি হবে না। বাবুল খুব একটা জনপ্রিয় নেতা ছিলেন না, রাজনৈতিক সংগঠকও ছিলেন না। যদিও বাবুল আমার ভালো বন্ধু।’

এদিকে বাবুলের দলবদলের পরই আসানসোলে বিশেষ বৈঠক করতে চলেছেন শুভেন্দু অধিকারী। বিজেপি সূত্রে জানানো হয়েছে, সোমবার বেলা তিনটে নাগাদ আসানসোল জেলা কার্যালয়ে কার্যকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন শুভেন্দু অধিকারী।

উল্লেখ্য, বাবুল সুপ্রিয় ২০১৪ সালে আসানসোল থেকে জিতেই কেন্দ্রের মন্ত্রী হয়েছিলেন। যা চমকে দিয়েছিল সবাইকে। ২০১৯ সালেও তাকে মন্ত্রিসভায় রেখেছিলেন নরেন্দ্র মোদি। কিন্তু মোদি ক্যাবিনেটের সাম্প্রতিক রদবদলে তিনি বাদ পড়েন। আর তার পর থেকেই দলের সঙ্গে তার দূরত্ব বাড়তে শুরু করে।

গত ৭ জুলাই মন্ত্রিত্ব চলে যাওয়ার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন বাবুল। এরপর বাবুল রাজনীতি ছাড়তে চাইলে তাকে চেষ্টা করা হয় শীর্ষ নেতৃত্বের তরফে। সাংসদ পদ ছাড়া থেকে বিরত করা হয়েছিল বিজেপির তরফে। তবে আগাম সতর্কবার্তা না দিয়েই তৃণমূলে যোগ দিলেন আসানসোলের দুই বারের সাং বাবুল সুপ্রিয়।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন