আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের পাশে থাকা আমাদের ভুল ছিল: ইমরান খান
jugantor
আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের পাশে থাকা আমাদের ভুল ছিল: ইমরান খান

  অনলাইন ডেস্ক  

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:৩১:৩৯  |  অনলাইন সংস্করণ

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, আফগানিস্তানে আমেরিকার পাশে থাকাটা চরম ভুল ছিল। এ জন্য তাদের চড়া দাম দিতে হয়েছে।

সম্প্রতি আফগানিস্তান নিয়ে পাকিস্তানের অবস্থানের সমালোচনা করেছিল আমেরিকা। জবাবে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এ কথা বলেছেন। খবর এনডিটিভির।

ইমরান খান বলেন, কাবুলে আমেরিকার সঙ্গ দেওয়াই ভুল হয়েছিল আমাদের। এর জন্য তার দেশের সরকারকে বড় মূল্য দিতে হয়েছে।

রাশিয়ার একটি সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেছেন ইমরান খান। এর আগে আমেরিকার এক সিনেটর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তালেবানকে মদত দেওয়ার অভিযোগ এনেছিলেন।

এমনকি আফগানিস্তান থেকে আমেরিকার সেনা প্রত্যাহারের জন্যও দায়ী করেছিলেন ইসলামাবাদকেই। আমেরিকার সিনেটরের সেই বক্তব্যের সমালোচনা করে ইমরান বলেন, নিজেদের ব্যর্থতার দায় যেভাবে ইসলামাবাদের ওপর চাপাতে চাইছে ওয়াশিংটন, তা বেদনাদায়ক।

ইমরান খান বলেন, একজন পাকিস্তানি হিসেবে আমার এই দোষারোপ শুনতে ভালো লাগেনি। আমেরিকার আচরণে আমরা মর্মাহত।

বস্তুত ৯/১১ হামলার পর আন্তর্জাতিক মহলে কোণঠাসা হওয়া পাকিস্তানের নতুন সরকার গঠনের জন্য আমেরিকার সমর্থন দরকার ছিল। বদলে কাবুল প্রশ্নে ওয়াশিংটনকে সমর্থন করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল ইসলামাবাদ।

কিন্তু ইমরান এখন মনে করছেন, সেখানেই বড় গলদ হয়েছিল। কারণ আফগানিস্তানে সোভিয়েত সেনার বিরুদ্ধে লড়ার জন্য পাকিস্তান যে মুজাহিদ বাহিনী তৈরি করেছিল, ওই সিদ্ধান্তের জন্যই রাশিয়া ইসলামাবাদের শত্রু হয়ে যায়। ইমরানের বক্তব্য, আমেরিকার সঙ্গে বন্ধুত্বের জন্যই শেষ পর্যন্ত বিপদে পড়েছে পাকিস্তান।

আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের পাশে থাকা আমাদের ভুল ছিল: ইমরান খান

 অনলাইন ডেস্ক 
১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, আফগানিস্তানে আমেরিকার পাশে থাকাটা চরম ভুল ছিল। এ জন্য তাদের চড়া দাম দিতে হয়েছে।

সম্প্রতি আফগানিস্তান নিয়ে পাকিস্তানের অবস্থানের সমালোচনা করেছিল আমেরিকা। জবাবে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এ কথা বলেছেন। খবর এনডিটিভির।

ইমরান খান বলেন, কাবুলে আমেরিকার সঙ্গ দেওয়াই ভুল হয়েছিল আমাদের। এর জন্য তার দেশের সরকারকে বড় মূল্য দিতে হয়েছে।

রাশিয়ার একটি সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেছেন ইমরান খান। এর আগে আমেরিকার এক সিনেটর পাকিস্তানের বিরুদ্ধে তালেবানকে মদত দেওয়ার অভিযোগ এনেছিলেন।

এমনকি আফগানিস্তান থেকে আমেরিকার সেনা প্রত্যাহারের জন্যও দায়ী করেছিলেন ইসলামাবাদকেই। আমেরিকার সিনেটরের সেই বক্তব্যের সমালোচনা করে ইমরান বলেন, নিজেদের ব্যর্থতার দায় যেভাবে ইসলামাবাদের ওপর চাপাতে চাইছে ওয়াশিংটন, তা বেদনাদায়ক।

ইমরান খান বলেন, একজন পাকিস্তানি হিসেবে আমার এই দোষারোপ শুনতে ভালো লাগেনি। আমেরিকার আচরণে আমরা মর্মাহত।

বস্তুত ৯/১১ হামলার পর আন্তর্জাতিক মহলে কোণঠাসা হওয়া পাকিস্তানের নতুন সরকার গঠনের জন্য আমেরিকার সমর্থন দরকার ছিল। বদলে কাবুল প্রশ্নে ওয়াশিংটনকে সমর্থন করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল ইসলামাবাদ।

কিন্তু ইমরান এখন মনে করছেন, সেখানেই বড় গলদ হয়েছিল। কারণ আফগানিস্তানে সোভিয়েত সেনার বিরুদ্ধে লড়ার জন্য পাকিস্তান যে মুজাহিদ বাহিনী তৈরি করেছিল, ওই সিদ্ধান্তের জন্যই রাশিয়া ইসলামাবাদের শত্রু  হয়ে যায়। ইমরানের বক্তব্য, আমেরিকার সঙ্গে বন্ধুত্বের জন্যই শেষ পর্যন্ত বিপদে পড়েছে পাকিস্তান।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : আফগানিস্তানে তালেবানের পুনরুত্থান