ডুবোজাহাজ বিতর্কে ক্ষুব্ধ ফ্রান্স, সাফাই গাইল অস্ট্রেলিয়া
jugantor
ডুবোজাহাজ বিতর্কে ক্ষুব্ধ ফ্রান্স, সাফাই গাইল অস্ট্রেলিয়া

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:৩৯:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

পরমাণু শক্তিচালিত ডুবোজাহাজ বিতর্কের জেরে ভীষণ চটেছে ফ্রান্স। ফ্রান্সের কাছ থেকে পরমাণু শক্তিচালিত ডুবোজাহাজ কেনার কথা থাকলেও তা বাতিল করেছে অস্ট্রেলিয়া। এ নিয়ে অবশ্য রোববার সাফাই গেয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন।

তিনি বলেন, অস্ট্রেলিয়া উদ্বিগ্ন ছিল যে ফ্রান্সের কাছ থেকে অর্ডার করা ডুবোজাহাজগুলো তাদের কৌশলগত চাহিদা পূরণ করতে পারবে না। তাই ফ্রান্সের সঙ্গে শতকোটি ডলারের চুক্তি বাতিল করে তারা।
স্কট মরিসন আরও বলেন, ফ্রান্সের ক্ষোভের কারণ তারা বুঝতে পারছেন। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার স্বার্থ তাকে সবার আগে দেখতে হবে।

এদিকে ফ্রান্স সরকারের মুখপাত্র গ্যাব্রিয়েল আট্টাল রোববার জানিয়েছেন, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই এ নিয়ে জো বাইডেনের সঙ্গে ফোনে কথা বলবেন।

অন্যদিকে নতুন নিরাপত্তা চুক্তি অকাস নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়া মিথ্যাচারিতা করেছে বলে অভিযোগ তুলেছেন ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জিয়ান যুভেস লে ড্রিয়ান। এর জের ধরে ওই দুটি দেশ থেকে নিজেদের কূটনীতিক প্রত্যাহার করেছে ফ্রান্স।

ফান্সের কাছ থেকে ডুবোজাহাজ কেনার কথা ছিল অস্ট্রেলিয়ার। কিন্তু চলতি সপ্তাহের শুরুতে যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে আধুনিক পরমাণু শক্তিচালিত ডুবোজাহাজ কেনার সিদ্ধান্ত নেয় অস্ট্রেলিয়া।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ও অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের ভার্চুয়াল বৈঠকে বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে সম্ভাব্য চীনা আগ্রাসনের মোকাবিলায় অস্ট্রেলিয়াকে ওই ডুবোজাহাজ বিক্রির সিদ্ধান্তের কথা জানায় যুক্তরাষ্ট্র।

এই বিষয়টিই ক্ষুব্ধ করেছে ফ্রান্সকে। আনুষ্ঠানিক ঘোষণার মাত্র কয়েকঘণ্টা আগে ফ্রান্স চুক্তির বিষয়টি জানতে পারে বলে জানা গেছে।

ডুবোজাহাজ বিতর্কে ক্ষুব্ধ ফ্রান্স, সাফাই গাইল অস্ট্রেলিয়া

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৩৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পরমাণু শক্তিচালিত ডুবোজাহাজ বিতর্কের জেরে ভীষণ চটেছে ফ্রান্স। ফ্রান্সের কাছ থেকে পরমাণু শক্তিচালিত ডুবোজাহাজ কেনার কথা থাকলেও তা বাতিল করেছে অস্ট্রেলিয়া।  এ নিয়ে অবশ্য রোববার সাফাই গেয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। 

তিনি বলেন, অস্ট্রেলিয়া উদ্বিগ্ন ছিল যে ফ্রান্সের কাছ থেকে অর্ডার করা ডুবোজাহাজগুলো তাদের কৌশলগত চাহিদা পূরণ করতে পারবে না।  তাই ফ্রান্সের সঙ্গে শতকোটি ডলারের চুক্তি বাতিল করে তারা। 
স্কট মরিসন আরও বলেন, ফ্রান্সের ক্ষোভের কারণ তারা বুঝতে পারছেন। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার স্বার্থ তাকে সবার আগে দেখতে হবে। 

এদিকে ফ্রান্স সরকারের মুখপাত্র গ্যাব্রিয়েল আট্টাল রোববার জানিয়েছেন, ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই এ নিয়ে জো বাইডেনের সঙ্গে ফোনে কথা বলবেন।

অন্যদিকে নতুন নিরাপত্তা চুক্তি অকাস নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও অস্ট্রেলিয়া মিথ্যাচারিতা করেছে বলে অভিযোগ তুলেছেন ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জিয়ান যুভেস লে ড্রিয়ান।  এর জের ধরে ওই দুটি দেশ থেকে নিজেদের কূটনীতিক প্রত্যাহার করেছে ফ্রান্স।

ফান্সের কাছ থেকে ডুবোজাহাজ কেনার কথা ছিল অস্ট্রেলিয়ার। কিন্তু চলতি সপ্তাহের শুরুতে যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে আধুনিক পরমাণু শক্তিচালিত ডুবোজাহাজ কেনার সিদ্ধান্ত নেয় অস্ট্রেলিয়া। 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ও অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের ভার্চুয়াল বৈঠকে বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে সম্ভাব্য চীনা আগ্রাসনের মোকাবিলায় অস্ট্রেলিয়াকে ওই ডুবোজাহাজ বিক্রির সিদ্ধান্তের কথা জানায় যুক্তরাষ্ট্র।

এই বিষয়টিই ক্ষুব্ধ করেছে ফ্রান্সকে। আনুষ্ঠানিক ঘোষণার মাত্র কয়েকঘণ্টা আগে ফ্রান্স চুক্তির বিষয়টি জানতে পারে বলে জানা গেছে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন