আফগানিস্তানে নিরপরাধ মানুষ হত্যায় আন্তর্জাতিক তদন্ত চাই: ইলহান ওমর
jugantor
আফগানিস্তানে নিরপরাধ মানুষ হত্যায় আন্তর্জাতিক তদন্ত চাই: ইলহান ওমর

  অনলাইন ডেস্ক  

২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৫৫:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেস সদস্য ইলহান ওমর আফগানিস্তানে নিরপরাধ ও বেসামরিক মানুষ হত্যার বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ আন্তর্জাতিক তদন্তের দাবি জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, গত দুই দশকে মার্কিন গোপন ড্রোন হামলায় হাজার হাজার মানুষ নিহত হয়েছেন। এসব হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে তদন্ত জরুরি। তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের চিহ্নিত করে জবাবদিহিতার আওতায় আনতে হবে। খবর নিউজ উইকের।

আফগানিস্তান ছাড়ার আগে কাবুলে ড্রোন হামলা চালিয়ে ১০ বেসামরিক মানুষ হত্যার কথা আমেরিকা স্বীকার করার পর তিনি এসব মন্তব্য করলেন।

ইলহান ওমর বলেন, কাবুলে ড্রোন হামলায় নিহতদের পরিবারের প্রতি আমরা ঋণী। আমরা যে অপরাধ করেছি তা স্বীকার করে তাদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। একই সঙ্গে এ বিষয়ে আন্তর্জাতিক তদন্ত চালাতে হবে।

গত ২৯ আগস্ট কাবুল বিমানবন্দরের কাছে একটি বাড়িতে ড্রোন থেকে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় মার্কিন বাহিনী। হামলায় ৭ শিশুসহ ১০ বেসামরিক ব্যক্তি নিহত হন।

প্রথমে নিহতদের জঙ্গি বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছিল মার্কিন বাহিনী। কিন্তু হামলার পর পরই প্রকাশ হয়ে পড়ে যে, নিহতরা বেসামরিক মানুষ। তাদের জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা ছিল না।

এর পর আমেরিকা আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকার করেছে যে, জঙ্গি নয়, বেসামরিক মানুষ হত্যা করেছে তারা।

আফগানিস্তানে নিরপরাধ মানুষ হত্যায় আন্তর্জাতিক তদন্ত চাই: ইলহান ওমর

 অনলাইন ডেস্ক 
২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৫৫ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেস সদস্য ইলহান ওমর আফগানিস্তানে নিরপরাধ ও বেসামরিক মানুষ হত্যার বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ আন্তর্জাতিক তদন্তের দাবি জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, গত দুই দশকে মার্কিন গোপন ড্রোন হামলায় হাজার হাজার মানুষ নিহত হয়েছেন। এসব হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে তদন্ত জরুরি। তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের চিহ্নিত করে জবাবদিহিতার আওতায় আনতে হবে।  খবর নিউজ উইকের।

আফগানিস্তান ছাড়ার আগে কাবুলে ড্রোন হামলা চালিয়ে ১০ বেসামরিক মানুষ হত্যার কথা আমেরিকা স্বীকার করার পর তিনি এসব মন্তব্য করলেন।

ইলহান ওমর বলেন, কাবুলে ড্রোন হামলায় নিহতদের পরিবারের প্রতি আমরা ঋণী। আমরা যে অপরাধ করেছি তা স্বীকার করে তাদের ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। একই সঙ্গে এ বিষয়ে আন্তর্জাতিক তদন্ত চালাতে হবে।

গত ২৯ আগস্ট কাবুল বিমানবন্দরের কাছে একটি বাড়িতে ড্রোন থেকে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় মার্কিন বাহিনী। হামলায় ৭ শিশুসহ ১০ বেসামরিক ব্যক্তি নিহত হন।

প্রথমে নিহতদের জঙ্গি বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছিল মার্কিন বাহিনী। কিন্তু হামলার পর পরই প্রকাশ হয়ে পড়ে যে, নিহতরা বেসামরিক মানুষ। তাদের জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা ছিল না।

এর পর আমেরিকা আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকার করেছে যে, জঙ্গি নয়, বেসামরিক মানুষ হত্যা করেছে তারা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : আফগানিস্তানে তালেবানের পুনরুত্থান

আরও খবর