সুহাইল শাহিনকে জাতিসংঘের স্থায়ী প্রতিনিধি করার প্রস্তাব তালেবানের
jugantor
সুহাইল শাহিনকে জাতিসংঘের স্থায়ী প্রতিনিধি করার প্রস্তাব তালেবানের

  অনলাইন ডেস্ক  

২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৫৮:১০  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেসের কাছে লেখা এক চিঠিতে তালেবান বলেছে, গত ১৫ আগস্ট সাবেক আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনির পতন হয়েছে এবং বিশ্ব এখন আর তাকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে স্বীকৃতি দেয় না।

চিঠিতে জাতিসংঘে নিযুক্ত গনি সরকারের স্থায়ী প্রতিনিধি গোলাম ইসাকজাইকে ওই পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

এতে তালেবান মুখপাত্র মোহাম্মদ সুহাইল শাহিনকে জাতিসংঘে আফগানিস্তানের স্থায়ী প্রতিনিধি করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে আফগানিস্তানের ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকি ভাষণ দিতে চান বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র ফারহান হক মঙ্গলবার রাতে নিউইয়র্কে সাংবাদিকদের বলেন, তালেবানের এ চিঠি নিয়ে জাতিসংঘ মহাসচিবের দপ্তরে আলোচনা হয়েছে।

তিনি বলেন, তালেবানের চিঠিটি সাধারণ পরিষদের ৭৬তম অধিবেশনের বাছাই কমিটিতে পাঠানো হয়েছে।

তালেবানের পক্ষ থেকে আমির খান মুত্তাকি ওই চিঠিতে সই করেছেন এবং এতে মোহাম্মদ সুহাইল শাহিনকে জাতিসংঘে আফগানিস্তানের স্থায়ী প্রতিনিধি করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

আফগানিস্তানে গৃহযুদ্ধ চলার সময় শাহিন বেশিরভাগ সময় সাংস্কৃতিক তৎপরতা চালিয়েছেন এবং গণমাধ্যমে তার অসংখ্য প্রবন্ধ ও নিবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে।

পশতু ও ইংরেজি সমানভাবে দক্ষ এই কূটনীতিক ১৯৯০-এর দশকে তালেবান শাসনামলে কাবুল টাইমস পত্রিকার ব্যবস্থাপনা সম্পাদক, জাতিসংঘে আফগানিস্তানের প্রতিনিধি এবং ইসলামাবাদে আফগানিস্তানের উপ-রাষ্ট্রদূত হিসেবে কাজ করেছেন।

২০০১ সালে ইঙ্গো-মার্কিন হামলায় তালেবান সরকারের পতন হওয়ার পর সুহাইল শাহিন তালেবানের ওয়েবসাইটের ইংরেজি ভার্সনের সম্পাদকের দায়িত্ব গ্রহণ করেন এবং পরবর্তী সময় তাকে কাতারে তালেবানের রাজনৈতিক দপ্তরে নিয়োগ দেওয়া হয়।

তালেবানের পক্ষ থেকে পাঠানো চিঠি জাতিসংঘের বাছাই কমিটিতে অনুমোদন পেলেও এ সংক্রান্ত প্রক্রিয়া শেষ হতে কয়েক দিন সময় লেগে যাবে। সে ক্ষেত্রে তালেবানের পক্ষ থেকে কোনো প্রতিনিধির চলতি বছরের অধিবেশনে ভাষণ দেওয়ার সুযোগ নাও হতে পারে বলে কূটনীতিকরা মনে করছেন।

সুহাইল শাহিনকে জাতিসংঘের স্থায়ী প্রতিনিধি করার প্রস্তাব তালেবানের

 অনলাইন ডেস্ক 
২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৫৮ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেসের কাছে লেখা এক চিঠিতে তালেবান বলেছে, গত ১৫ আগস্ট সাবেক আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনির পতন হয়েছে এবং বিশ্ব এখন আর তাকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে স্বীকৃতি দেয় না।

চিঠিতে জাতিসংঘে নিযুক্ত গনি সরকারের স্থায়ী প্রতিনিধি গোলাম ইসাকজাইকে ওই পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

এতে তালেবান মুখপাত্র মোহাম্মদ সুহাইল শাহিনকে জাতিসংঘে আফগানিস্তানের স্থায়ী প্রতিনিধি করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে আফগানিস্তানের ভারপ্রাপ্ত পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকি ভাষণ দিতে চান বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

জাতিসংঘ মহাসচিবের মুখপাত্র ফারহান হক মঙ্গলবার রাতে নিউইয়র্কে সাংবাদিকদের বলেন, তালেবানের এ চিঠি নিয়ে জাতিসংঘ মহাসচিবের দপ্তরে আলোচনা হয়েছে।

তিনি বলেন, তালেবানের চিঠিটি সাধারণ পরিষদের ৭৬তম অধিবেশনের বাছাই কমিটিতে পাঠানো হয়েছে।

তালেবানের পক্ষ থেকে আমির খান মুত্তাকি ওই চিঠিতে সই করেছেন এবং এতে মোহাম্মদ সুহাইল শাহিনকে জাতিসংঘে আফগানিস্তানের স্থায়ী প্রতিনিধি করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

আফগানিস্তানে গৃহযুদ্ধ চলার সময় শাহিন বেশিরভাগ সময় সাংস্কৃতিক তৎপরতা চালিয়েছেন এবং গণমাধ্যমে তার অসংখ্য প্রবন্ধ ও নিবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে।

পশতু ও ইংরেজি সমানভাবে দক্ষ এই কূটনীতিক ১৯৯০-এর দশকে তালেবান শাসনামলে কাবুল টাইমস পত্রিকার ব্যবস্থাপনা সম্পাদক, জাতিসংঘে আফগানিস্তানের প্রতিনিধি এবং ইসলামাবাদে আফগানিস্তানের উপ-রাষ্ট্রদূত হিসেবে কাজ করেছেন।

২০০১ সালে ইঙ্গো-মার্কিন হামলায় তালেবান সরকারের পতন হওয়ার পর সুহাইল শাহিন তালেবানের ওয়েবসাইটের ইংরেজি ভার্সনের সম্পাদকের দায়িত্ব গ্রহণ করেন এবং পরবর্তী সময় তাকে কাতারে তালেবানের রাজনৈতিক দপ্তরে নিয়োগ দেওয়া হয়।  

তালেবানের পক্ষ থেকে পাঠানো চিঠি জাতিসংঘের বাছাই কমিটিতে অনুমোদন পেলেও এ সংক্রান্ত প্রক্রিয়া শেষ হতে কয়েক দিন সময় লেগে যাবে। সে ক্ষেত্রে তালেবানের পক্ষ থেকে কোনো প্রতিনিধির চলতি বছরের অধিবেশনে ভাষণ দেওয়ার সুযোগ নাও হতে পারে বলে কূটনীতিকরা মনে করছেন।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : আফগানিস্তানে তালেবানের পুনরুত্থান