শাড়ি পরায় রেস্টুরেন্টে ঢুকতে দেওয়া হলো না তরুণীকে (ভিডিও)
jugantor
শাড়ি পরায় রেস্টুরেন্টে ঢুকতে দেওয়া হলো না তরুণীকে (ভিডিও)

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:১২:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতীয় উপমহাদেশের নারীদের ঐহিত্যবাহী পোশাক শাড়ি। শাড়ি বাংলাদেশ, ভারত ও শ্রীলংকার নারীদের অন্যতম প্রধান পোশাক। বিশ্বজুড়ে এই উপমহাদেশের নারীদের প্রতিনিধিত্ব করে শাড়ি।

কিন্তু শাড়ি পরায় এক তরুণীকে রেস্টুরেন্টে ঢুকতে দেয়নি কর্তৃপক্ষ। রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষের দাবি, শাড়ি মোটেও স্মার্ট পোশাক নয়। তাই শাড়ি পরিহিত কাউকে তারা রেস্টুরেন্টে ঢুকতে দেবেন না।

ভারতের রাজধানী দিল্লির অ্যাকুইলা রেস্টুরেন্টে ওই ঘটনা ঘটে বলে বুধবার গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা গেছে, ওই তরুণী বারবার জিজ্ঞাসা করছেন কেন শাড়ি পরে তিনি রেস্টুরেন্টে ঢুকতে পারবেন না। তখন রেস্টুরেন্টের এক নারী কর্মী জানান, ম্যাম আমরা স্মার্ট পোশাক ছাড়া রেস্টুরেন্টে ঢোকার অনুমতি দেই না। শাড়ি স্মার্ট পোশাকের মধ্যে পড়ে না।

আনিতা চৌধুরী নামে এক নারী ওই ভিডিও টুইটারে পোস্ট করেন। ভিডিও ক্যাপশনে বলা হয়েছে, অ্যাকুইলা রেস্টুরেন্টে শাড়ি পরে প্রবেশের অনুমতি নেই। কারণ ভারতীয় শাড়ি নাকি স্মার্ট পোশাক নয়। স্মার্ট পোশাকের সুনির্দিষ্ট সংজ্ঞা আসলে কী তা জানতে চাই। দয়া করে স্মার্ট পোশাকের সংজ্ঞা দিন যেন আমি শাড়ি পরা বন্ধ করতে পারি।

১৬ সেকেন্ডের ওই ভিডিওটি ফেসবুক, টুইটার ও ইউটিউবসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। ওই ভিডিও দেখা হয়েছে প্রায় আড়াই লাখ বারের মতো। ভিডিও দেখার পর ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন তারা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই রেস্টুরেন্টের পেজে গিয়ে নেগেটিভ রিভিউ দিচ্ছেন তারা।

তবে ঠিক কবে ওই ভিডিও ধারণ করা হয়েছে আর ভিডিওটি কে ধারণ করেছে তা জানা যায়নি। এ ব্যাপারে রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

শাড়ি পরায় রেস্টুরেন্টে ঢুকতে দেওয়া হলো না তরুণীকে (ভিডিও)

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:১২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতীয় উপমহাদেশের নারীদের ঐহিত্যবাহী পোশাক শাড়ি। শাড়ি বাংলাদেশ, ভারত ও শ্রীলংকার নারীদের অন্যতম প্রধান পোশাক।  বিশ্বজুড়ে এই উপমহাদেশের নারীদের প্রতিনিধিত্ব করে শাড়ি। 

কিন্তু শাড়ি পরায় এক তরুণীকে রেস্টুরেন্টে ঢুকতে দেয়নি কর্তৃপক্ষ।  রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষের দাবি, শাড়ি মোটেও স্মার্ট পোশাক নয়। তাই শাড়ি পরিহিত কাউকে তারা রেস্টুরেন্টে ঢুকতে দেবেন না।

ভারতের রাজধানী দিল্লির অ্যাকুইলা রেস্টুরেন্টে ওই ঘটনা ঘটে বলে বুধবার গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।  ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা গেছে, ওই তরুণী বারবার জিজ্ঞাসা করছেন কেন শাড়ি পরে তিনি রেস্টুরেন্টে ঢুকতে পারবেন না।  তখন রেস্টুরেন্টের এক নারী কর্মী জানান, ম্যাম আমরা স্মার্ট পোশাক ছাড়া রেস্টুরেন্টে ঢোকার অনুমতি দেই না। শাড়ি স্মার্ট পোশাকের মধ্যে পড়ে না।

আনিতা চৌধুরী নামে এক নারী ওই ভিডিও টুইটারে পোস্ট করেন। ভিডিও ক্যাপশনে বলা হয়েছে, অ্যাকুইলা রেস্টুরেন্টে শাড়ি পরে প্রবেশের অনুমতি নেই।  কারণ ভারতীয় শাড়ি নাকি স্মার্ট পোশাক নয়। স্মার্ট পোশাকের সুনির্দিষ্ট সংজ্ঞা আসলে কী তা জানতে চাই। দয়া করে স্মার্ট পোশাকের সংজ্ঞা দিন যেন আমি শাড়ি পরা বন্ধ করতে পারি।

১৬ সেকেন্ডের ওই ভিডিওটি ফেসবুক, টুইটার ও ইউটিউবসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।  ওই ভিডিও দেখা হয়েছে প্রায় আড়াই লাখ বারের মতো।  ভিডিও দেখার পর ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন তারা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই রেস্টুরেন্টের পেজে গিয়ে নেগেটিভ রিভিউ দিচ্ছেন তারা। 

তবে ঠিক কবে ওই ভিডিও ধারণ করা হয়েছে আর ভিডিওটি কে ধারণ করেছে তা জানা যায়নি।  এ ব্যাপারে রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন