রাতারাতি পরিচয় মুছে যাওয়া সেই শত কোটিপতি অভিনেত্রীর খোঁজ মিলল
jugantor
রাতারাতি পরিচয় মুছে যাওয়া সেই শত কোটিপতি অভিনেত্রীর খোঁজ মিলল

  অনলাইন ডেস্ক  

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:০১:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

রাতারাতি ইন্টারনেট থেকে পরিচয় মুছে যাওয়া শত কোটিপতি চীনা অভিনেত্রী ঝাও ওয়েইকে নিজের জন্মভূমি আনহুই প্রদেশের উহুতে দেখা গেছে। সিএনএন শুক্রবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত মঙ্গলবার উহুর একটি মোবাইলের দোকানে ওয়েইকে দেখা যায়। সেখানে ওয়েইকে বেগুনী রংয়ের ঢোলা টিশার্ট, সবুজ প্যান্ট আর মাথায় হ্যাট পরা অবস্থায় দেখা গেছে বলে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। এ সময় তার গলায় একটি ইলেকট্রিক সিগারেট ঝুলতে দেখা গেছে।

ওই দোকানে তোলা ওয়েইয়ের ছবি অনলাইনে আপলোড করার সঙ্গে সঙ্গে ভাইরাল হয়।
ভিকি ঝাও নামেও পরিচিত ঝাও ওয়েই। জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী চীনের প্রথম সারির ধনকুবেরদের মধ্যে অন্যতম। চীনের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক নেওয়া অভিনেত্রী তিনি।

বিনোদন জগতের বিভিন্ন সেলিব্রেটিদের ওপর চীনের সরকারের আরোপ করা অবরোধের অংশ হিসেবে চীনের সবচেয়ে ধনী এই অভিনেত্রীর সব তথ্য রাতারাতি ইন্টারনেট থেকে মুছে যায়। চীনের কোনো গণমাধ্যমে তার কোনো তার কোনো অ্যাকাউন্ট নেই। এমনকি রাস্তার পাশের বিলবোর্ড থেকেও সরিয়ে দেওয়া হয় ওয়েইয়ের সব ছবি।

গত মাসে, চীনের নেটদুনিয়া থেকে উধাও হয়ে যাওয়ার পর ওয়েইকে জনসম্মুখে দেখা যায়নি। মঙ্গলবার প্রথমবারের মতো তিনি প্রকাশ্যে আসেন বলে ওই প্রতিবেদনে জানা গেছে।

তবে কেন ওয়েইয়ের সব অস্তিত্ব চীন থেকে মুছে দেওয়া হলো সে ব্যাপারে কোনো ব্যাখ্যা দেয়নি চীনের সরকার।

তবে সেলিব্রেটিদের ওপর চীনা সরকারের চাপিয়ে দেওয়া সেন্সরশিপের অংশ হিসেবেই ওয়েইয়ের সব অস্তিত্ব মুছে দেওয়া হয় বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সম্প্রতি, চীনের টেলিভিশন চ্যানেলগুলোতে মেয়েলি চেহারার পুরুষদের প্রদর্শন নিষিদ্ধ করেছে চীন।

রাতারাতি পরিচয় মুছে যাওয়া সেই শত কোটিপতি অভিনেত্রীর খোঁজ মিলল

 অনলাইন ডেস্ক 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:০১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাতারাতি ইন্টারনেট থেকে পরিচয় মুছে যাওয়া শত কোটিপতি চীনা অভিনেত্রী ঝাও ওয়েইকে নিজের জন্মভূমি আনহুই প্রদেশের উহুতে দেখা গেছে। সিএনএন শুক্রবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত মঙ্গলবার উহুর একটি মোবাইলের দোকানে ওয়েইকে দেখা যায়। সেখানে ওয়েইকে বেগুনী রংয়ের ঢোলা টিশার্ট, সবুজ প্যান্ট আর মাথায় হ্যাট পরা অবস্থায় দেখা গেছে বলে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। এ সময় তার গলায় একটি ইলেকট্রিক সিগারেট ঝুলতে দেখা গেছে।

ওই দোকানে তোলা ওয়েইয়ের ছবি অনলাইনে আপলোড করার সঙ্গে সঙ্গে ভাইরাল হয়। 
ভিকি ঝাও নামেও পরিচিত ঝাও ওয়েই। জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী চীনের প্রথম সারির ধনকুবেরদের মধ্যে অন্যতম। চীনের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক নেওয়া অভিনেত্রী তিনি।

বিনোদন জগতের বিভিন্ন সেলিব্রেটিদের ওপর চীনের সরকারের আরোপ করা অবরোধের অংশ হিসেবে চীনের সবচেয়ে ধনী এই অভিনেত্রীর সব তথ্য রাতারাতি ইন্টারনেট থেকে মুছে যায়। চীনের কোনো গণমাধ্যমে তার কোনো তার কোনো অ্যাকাউন্ট নেই। এমনকি রাস্তার পাশের বিলবোর্ড থেকেও সরিয়ে দেওয়া হয় ওয়েইয়ের সব ছবি।

গত মাসে, চীনের নেটদুনিয়া থেকে উধাও হয়ে যাওয়ার পর ওয়েইকে জনসম্মুখে দেখা যায়নি। মঙ্গলবার প্রথমবারের মতো তিনি প্রকাশ্যে আসেন বলে ওই প্রতিবেদনে জানা গেছে।

তবে কেন ওয়েইয়ের সব অস্তিত্ব চীন থেকে মুছে দেওয়া হলো সে ব্যাপারে কোনো ব্যাখ্যা দেয়নি চীনের সরকার।

তবে সেলিব্রেটিদের ওপর চীনা সরকারের চাপিয়ে দেওয়া সেন্সরশিপের অংশ হিসেবেই ওয়েইয়ের সব অস্তিত্ব মুছে দেওয়া হয় বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সম্প্রতি, চীনের টেলিভিশন চ্যানেলগুলোতে মেয়েলি চেহারার পুরুষদের প্রদর্শন নিষিদ্ধ করেছে চীন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন