মালির কারাগারে রুয়ান্ডা গণহত্যার ‘হোতা’ বাগোসোরার মৃত্যু
jugantor
মালির কারাগারে রুয়ান্ডা গণহত্যার ‘হোতা’ বাগোসোরার মৃত্যু

  অনলাইন ডেস্ক  

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:০২:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

রুয়ান্ডায় আট লাখ মানুষকে হত্যার হোতা বলে অভিযুক্ত সেনাবাহিনীর সাবেক কর্নেল থিওনেস্টে বাগোসোরা মারা গেছেন।

মালির একটি কারাগারে বন্দি অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে বলে শনিবার দেশটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। খবর রয়টার্সের।

মানবতাবিরোধী অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর তৎকালীন ইন্টারন্যাশনাল ক্রিমিনাল ট্রাইব্যুনাল ফর রুয়ান্ডা (আইসিটিআর) বাগোসোরাকে আজীবন কারাদণ্ড দিয়েছিলেন। পরে শাস্তি কমিয়ে ৩৫ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। মালির কারাগারে সেই দণ্ডই ভোগ করছিলেন তিনি।

তার বয়স ৮০ বছরেরও বেশি। হৃদরোগের কারণে গুরুতর অসুস্থ ছিলেন তিনি। বেশ কয়েকবার তাকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছিল। তিনবার অস্ত্রোপচারও করা হয়েছিল।

শনিবার একটি ক্লিনিকে তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানান মালির কারা প্রশাসনের একজন কর্মকর্তা।

১৯৯৪ সালে রুয়ান্ডার তৎকালীন প্রেসিডেন্ট জুভেনাল হাবিয়ারিমানাকে বহনকারী বিমানকে গুলি করে ভূপাতিত করা হলে প্রেসিডেন্টসহ সব আরোহী নিহত হন। এর পর প্রতিরক্ষামন্ত্রী বাগোসোরা আফ্রিকার মধ্যাঞ্চলীয় দেশটির সামরিক বাহিনী ও রাজনীতির নিয়ন্ত্রণ নেন।

প্রেসিডেন্টকে হত্যার জন্য সংখ্যালঘু টুটসি বিদ্রোহীদের দায়ী করে বাগোসোরার অধীনস্ত সেনারা ও ইন্টেরাহামওয়ে হুতু মিলিশিয়ারা তাদের ও প্রগতিশীল হুতুদের হত্যা শুরু করে।

তারা মাত্র ১০০ দিনে প্রায় আট লাখ টুটসি ও প্রগতিশীল হুতুকে হত্যা করে। তাঞ্জানিয়াভিত্তিক ট্রাইব্যুনাল এই গণহত্যার জন্য বাগোসোরাসহ ৯৩ জনের বিচার করে। বিচারে বাগোসোরা দোষী সাব্যস্ত হন।

মালির কারাগারে রুয়ান্ডা গণহত্যার ‘হোতা’ বাগোসোরার মৃত্যু

 অনলাইন ডেস্ক 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:০২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রুয়ান্ডায় আট লাখ মানুষকে হত্যার হোতা বলে অভিযুক্ত সেনাবাহিনীর সাবেক কর্নেল থিওনেস্টে বাগোসোরা মারা গেছেন।

মালির একটি কারাগারে বন্দি অবস্থায় তার মৃত্যু হয়েছে বলে শনিবার দেশটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।  খবর রয়টার্সের।

মানবতাবিরোধী অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পর তৎকালীন ইন্টারন্যাশনাল ক্রিমিনাল ট্রাইব্যুনাল ফর রুয়ান্ডা (আইসিটিআর) বাগোসোরাকে আজীবন কারাদণ্ড দিয়েছিলেন। পরে শাস্তি কমিয়ে ৩৫ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। মালির কারাগারে সেই দণ্ডই ভোগ করছিলেন তিনি।

তার বয়স  ৮০ বছরেরও বেশি। হৃদরোগের কারণে গুরুতর অসুস্থ ছিলেন তিনি। বেশ কয়েকবার তাকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছিল। তিনবার অস্ত্রোপচারও করা হয়েছিল।

শনিবার একটি ক্লিনিকে তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানান মালির কারা প্রশাসনের একজন কর্মকর্তা।

১৯৯৪ সালে রুয়ান্ডার তৎকালীন প্রেসিডেন্ট জুভেনাল হাবিয়ারিমানাকে বহনকারী বিমানকে গুলি করে ভূপাতিত করা হলে  প্রেসিডেন্টসহ সব আরোহী নিহত হন। এর পর প্রতিরক্ষামন্ত্রী বাগোসোরা আফ্রিকার মধ্যাঞ্চলীয় দেশটির সামরিক বাহিনী ও রাজনীতির নিয়ন্ত্রণ নেন।

প্রেসিডেন্টকে হত্যার জন্য সংখ্যালঘু টুটসি বিদ্রোহীদের দায়ী করে বাগোসোরার অধীনস্ত সেনারা ও ইন্টেরাহামওয়ে হুতু মিলিশিয়ারা তাদের ও প্রগতিশীল হুতুদের হত্যা শুরু করে।

তারা মাত্র ১০০ দিনে প্রায় আট লাখ টুটসি ও প্রগতিশীল হুতুকে হত্যা করে। তাঞ্জানিয়াভিত্তিক ট্রাইব্যুনাল এই গণহত্যার জন্য বাগোসোরাসহ ৯৩ জনের বিচার করে। বিচারে বাগোসোরা দোষী সাব্যস্ত হন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন