বিদায় নিচ্ছেন মেরকেল, কে হচ্ছেন উত্তরসূরি?
jugantor
বিদায় নিচ্ছেন মেরকেল, কে হচ্ছেন উত্তরসূরি?

  হাবিবুল্লাহ আল বাহার, জার্মানি থেকে  

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:৫৮:৪০  |  অনলাইন সংস্করণ

জার্মানিতে অনুষ্ঠিত হলো জাতীয় নির্বাচন। স্থানীয় সময় রোববার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৬টা পর্যন্ত চলে নির্বাচনের ভোট গ্রহণ। দীর্ঘ ১৬ বছরের মেরকেল আমলের পর এ নির্বাচনের মাধ্যমে নির্বাচিত হবেন ইউরোপের শক্তিশালী দেশ জার্মানির নতুন চ্যান্সেলর।

২০০৫ সাল থেকে টানা ১৬ বছর জার্মানির চ্যান্সেলর হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন অ্যাঞ্জেলা মেরকেল। পূর্বের ঘোষণা অনুযায়ী তিনি এবার আর চ্যান্সেলর পদের জন্য লড়ছেন না। রোববার অনুষ্ঠিত ফেডারেল নির্বাচনের মাধ্যমে নির্বাচিত নতুন চ্যান্সেলরের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করে রাজনীতি থেকে বিদায় নিবেন জার্মানির অত্যন্ত জনপ্রিয় চ্যান্সেলর মেরকেল।

এবারের নির্বাচনে চ্যান্সেলর পদের জন্য লড়ছেন তিন জন। মেরকেলের দল ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ইউনিয়ন (সিডিইউ) থেকে চ্যান্সেলর পদের জন্য লড়ছেন দলটির বর্তমান চেয়ারম্যান আরমিন লাশেট। আরমিন লাশেট বর্তমানে জনসংখ্যার হিসেবে জার্মানির সবচেয়ে বড় রাজ্য নর্থ রাইন-ওয়েস্টফালিয়ারের (এনআরডব্লিউ) বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী।

সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এসপিডি) থেকে চ্যান্সেলর পদের জন্য লড়ছেন জার্মানির বর্তমান ভাইস চ্যান্সেলর এবং অর্থ মন্ত্রী ওলাফ শোলজ। তার রয়েছে দীর্ঘ রাজনৈতিক অভিজ্ঞতা।

পরিবেশবাদী দল গ্রিন পার্টি থেকে চ্যান্সেলর পদের জন্য লড়ছেন আনালেনা বেয়ারবক। তিনি বর্তমানে দলটির প্রধান এবং ২০১৩ সাল থেকে জার্মান পার্লামেন্টের সদস্য। পরিবেশবাদী রাজনৈতিক দল হিসেবে বর্তমানে গ্রিন পার্টির সমর্থন ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় এবছর দলটি উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ভোট পাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে জার্মানির জাতীয় নির্বাচনে দেশটির সোয়েস্ট জেলার নির্বাচনী আসন নাম্বর ১৪৬ এ গ্রিন পার্টি থেকে নির্বাচন করছেন প্রবাসি বাংলাদেশি শাহাবুদ্দিন মিয়া। তিনিই জার্মান সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করা প্রথম বাংলাদেশি।

জার্মানির জাতীয় নির্বাচনে একজন ভোটারকে ২টি ভোট দিতে হয়। একটি সরাসরি তার এলাকার সদস্য প্রার্থীকে এবং অন্যটি যে কোনো একটি রাজনৈতিক দলকে। জার্মানির ফেডারেল পার্লামেন্টের (বুন্দেস্টাগ) ৫৯৮টি আসনের অর্ধেক অর্থাৎ ২৯৯টি আসনের সদস্যরা সরাসরি ভোটে নির্বাচিত হবেন এবং বাকি অর্ধেক সদস্য নির্বাচিত হবেন সারা দেশে দলের প্রাপ্ত ভোটের হিসেবে। এবারের নির্বাচনে মোট ভোটার সংখ্যা ৬ কোটি ৪০ লাখ।

বিদায় নিচ্ছেন মেরকেল, কে হচ্ছেন উত্তরসূরি?

 হাবিবুল্লাহ আল বাহার, জার্মানি থেকে 
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৫৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জার্মানিতে অনুষ্ঠিত হলো জাতীয় নির্বাচন। স্থানীয় সময় রোববার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৬টা পর্যন্ত চলে নির্বাচনের ভোট গ্রহণ। দীর্ঘ ১৬ বছরের মেরকেল আমলের পর এ নির্বাচনের মাধ্যমে নির্বাচিত হবেন ইউরোপের শক্তিশালী দেশ জার্মানির নতুন চ্যান্সেলর।

২০০৫ সাল থেকে টানা ১৬ বছর জার্মানির চ্যান্সেলর হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন অ্যাঞ্জেলা মেরকেল। পূর্বের ঘোষণা অনুযায়ী তিনি এবার আর চ্যান্সেলর পদের জন্য লড়ছেন না। রোববার অনুষ্ঠিত ফেডারেল নির্বাচনের মাধ্যমে নির্বাচিত নতুন চ্যান্সেলরের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করে রাজনীতি থেকে বিদায় নিবেন জার্মানির অত্যন্ত জনপ্রিয় চ্যান্সেলর মেরকেল।

এবারের নির্বাচনে চ্যান্সেলর পদের জন্য লড়ছেন তিন জন। মেরকেলের দল ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ইউনিয়ন (সিডিইউ) থেকে চ্যান্সেলর পদের জন্য লড়ছেন দলটির বর্তমান চেয়ারম্যান আরমিন লাশেট। আরমিন লাশেট বর্তমানে জনসংখ্যার হিসেবে জার্মানির সবচেয়ে বড় রাজ্য নর্থ রাইন-ওয়েস্টফালিয়ারের (এনআরডব্লিউ) বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী।

সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এসপিডি) থেকে চ্যান্সেলর পদের জন্য লড়ছেন জার্মানির বর্তমান ভাইস চ্যান্সেলর এবং অর্থ মন্ত্রী ওলাফ শোলজ। তার রয়েছে দীর্ঘ রাজনৈতিক অভিজ্ঞতা।

পরিবেশবাদী দল গ্রিন পার্টি থেকে চ্যান্সেলর পদের জন্য লড়ছেন আনালেনা বেয়ারবক। তিনি বর্তমানে দলটির প্রধান এবং ২০১৩ সাল থেকে জার্মান পার্লামেন্টের সদস্য। পরিবেশবাদী রাজনৈতিক দল হিসেবে বর্তমানে গ্রিন পার্টির সমর্থন ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় এবছর দলটি উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ভোট পাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

এদিকে জার্মানির জাতীয় নির্বাচনে দেশটির সোয়েস্ট জেলার নির্বাচনী আসন নাম্বর ১৪৬ এ গ্রিন পার্টি থেকে নির্বাচন করছেন প্রবাসি বাংলাদেশি শাহাবুদ্দিন মিয়া। তিনিই জার্মান সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করা প্রথম বাংলাদেশি।

জার্মানির জাতীয় নির্বাচনে একজন ভোটারকে ২টি ভোট দিতে হয়। একটি সরাসরি তার এলাকার সদস্য প্রার্থীকে এবং অন্যটি যে কোনো একটি রাজনৈতিক দলকে। জার্মানির ফেডারেল পার্লামেন্টের (বুন্দেস্টাগ) ৫৯৮টি আসনের অর্ধেক অর্থাৎ ২৯৯টি আসনের সদস্যরা সরাসরি ভোটে নির্বাচিত হবেন এবং বাকি অর্ধেক সদস্য নির্বাচিত হবেন সারা দেশে দলের প্রাপ্ত ভোটের হিসেবে। এবারের নির্বাচনে মোট ভোটার সংখ্যা ৬ কোটি ৪০ লাখ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন