‘তালেবানের সঙ্গে চুক্তি নিয়ে ভারতকে অন্ধকারে রাখে যুক্তরাষ্ট্র’
jugantor
‘তালেবানের সঙ্গে চুক্তি নিয়ে ভারতকে অন্ধকারে রাখে যুক্তরাষ্ট্র’

  অনলাইন ডেস্ক  

০১ অক্টোবর ২০২১, ১৬:১২:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শংকর

গত বছর দোহায় আফগান শান্তি চুক্তি স্বাক্ষর করে যুক্তরাষ্ট্র ও তালেবান। সেই চুক্তি অনুযায়ী এবছর আগস্টে আফগান মাটি ছাড়ে মার্কিন সেনা। মার্কিন সেনা প্রত্যাহার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার আগেই কাবুল দখল করে তালেবান।

ওই চুক্তির বিষয়েভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শংকর বলেছেন, দোহা চুক্তির বহু বিষয় নিয়ে ভারতকে অন্ধকারে রেখেছিল যুক্তরাষ্ট্র।শুক্রবার মার্কিন-ভারত কৌশলগত পার্টনারশিপ ফোরামে তিনি এ কথা বলেন। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

খবরে বলা হয়, পাশাপাশি জয়শংকর এদিন সন্দেহ প্রকাশ করে জানান, আফগানিস্তানে সবাইকে নিয়ে সরকার গঠনের বিষয়টি অসম্ভব। উল্লেখ্য, গতবছর দোহায় আফগান শান্তি চুক্তি সই করে আমেরিকা এবং তালেবান। সেই চুক্তি অনুযায়ী এবছর আগস্টে আফগান মাটি ছাড়ে মার্কিন সেনা। আর মার্কিন সেনার প্রত্যাহার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার আগেই কাবুল দখল করে তালেবান।

‘তালেবানের সঙ্গে চুক্তি নিয়ে ভারতকে অন্ধকারে রাখে যুক্তরাষ্ট্র’

 অনলাইন ডেস্ক 
০১ অক্টোবর ২০২১, ০৪:১২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শংকর
ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শংকর। ফাইল ছবি

গত বছর দোহায় আফগান শান্তি চুক্তি স্বাক্ষর করে যুক্তরাষ্ট্র ও তালেবান। সেই চুক্তি অনুযায়ী এবছর আগস্টে আফগান মাটি ছাড়ে মার্কিন সেনা। মার্কিন সেনা প্রত্যাহার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার আগেই কাবুল দখল করে তালেবান।  

ওই চুক্তির বিষয়ে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শংকর বলেছেন, দোহা চুক্তির বহু বিষয় নিয়ে ভারতকে অন্ধকারে রেখেছিল যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার মার্কিন-ভারত কৌশলগত পার্টনারশিপ ফোরামে তিনি এ কথা বলেন। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

খবরে বলা হয়, পাশাপাশি জয়শংকর এদিন সন্দেহ প্রকাশ করে জানান, আফগানিস্তানে সবাইকে নিয়ে সরকার গঠনের বিষয়টি অসম্ভব। উল্লেখ্য, গতবছর দোহায় আফগান শান্তি চুক্তি সই করে আমেরিকা এবং তালেবান। সেই চুক্তি অনুযায়ী এবছর আগস্টে আফগান মাটি ছাড়ে মার্কিন সেনা। আর মার্কিন সেনার প্রত্যাহার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার আগেই কাবুল দখল করে তালেবান।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন-তালেবান শান্তি আলোচনা