যেভাবে স্মার্টওয়াচ প্রাণ বাঁচাল মোটরসাইকেল আরোহীর
jugantor
যেভাবে স্মার্টওয়াচ প্রাণ বাঁচাল মোটরসাইকেল আরোহীর

  অনলাইন ডেস্ক  

০২ অক্টোবর ২০২১, ০০:০২:১৭  |  অনলাইন সংস্করণ

স্মার্টওয়াচের পেছনে অর্থ ব্যয় করাকে অনেকেই অপচয় বলে মনে করেন। কিন্তু এই স্মার্টওয়াচের নানা ফিচারের আছে বেশ উপকারিতা। এই ডিভাইস হার্টবিট গণনা করে, রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা পরীক্ষা করে, ব্যবহারকারী দৈনিক কতটুকু হাঁটল তার হিসাব রাখে, ব্যবহারকারীর শারীরিক বিভিন্ন বিষয়ে নিয়মিত আপডেট দেয়।

আধুনিক এই যন্ত্রটি দিয়ে গান শোনা যায়, ব্লুটুথের মাধ্যমে স্মার্টফোনের সঙ্গে সংযোগ ঘটিয়ে কল করা যায়। এমনকি স্মার্টফোন খুঁজেও বের করা যায়।

তবে প্রযুক্তি যত উন্নত হচ্ছে এই যন্ত্রটির কাজের পরিধিও তত বাড়ছে। স্মার্টওয়াচের এক ফিচারের কারণে সম্প্রতি সিঙ্গাপুরের দুর্ঘটনার কবলে পড়া এক মোটরসাইকেল আরোহী হাতে থাকা স্মার্টফোনের কারণেই প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন।

একটি ব্রিটিশ গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মোহাম্মদ ফিতরি নামে ওই ব্যক্তি একটি মোটরসাইকেলে যাচ্ছিলেন। পথে একটি ভ্যানের সঙ্গে ধাক্কা লেগে রাস্তায় পড়ে অজ্ঞান হয়ে যান তিনি। কেউ পৌঁছানোর আগেই ফিতরির হাতে থাকা স্মার্টওয়াচ অজ্ঞান হওয়ার বিষয়টি বুঝতে পেরে স্বয়ংক্রিয়ভাবে জরুরি পরিষেবা নম্বরে ফোন করে দুর্ঘটনার ব্যাপারে সর্তক করে। সঙ্গে স্বয়ংক্রিয়ভাবে দুর্ঘটনাস্থলের ঠিকানাও পাঠিয়ে দেয়।

গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অ্যাপলের স্মার্টওয়াচ ফিতরির জোরে পড়ে যাওয়ার বিষয়টি শনাক্ত করতে পেরে তার হয়ে এসওএস পাঠায়।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্মার্টওয়াচের ফিচার কোনো ব্যক্তির নড়াচড়া করছে কী না তাও বুঝতে পারে। ব্যবহারকারী কোনো নড়াচড়া না করছে স্মার্টওয়াচে আগে থেকে সেভ করে রাখা জরুরি পরিষেবা নম্বরে স্বয়ংক্রিয়ভাবেই ফোন চলে যায়।

যেভাবে স্মার্টওয়াচ প্রাণ বাঁচাল মোটরসাইকেল আরোহীর

 অনলাইন ডেস্ক 
০২ অক্টোবর ২০২১, ১২:০২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

স্মার্টওয়াচের পেছনে অর্থ ব্যয় করাকে অনেকেই অপচয় বলে মনে করেন। কিন্তু এই স্মার্টওয়াচের নানা ফিচারের আছে বেশ উপকারিতা। এই ডিভাইস হার্টবিট গণনা করে, রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা পরীক্ষা করে, ব্যবহারকারী দৈনিক কতটুকু হাঁটল তার হিসাব রাখে, ব্যবহারকারীর শারীরিক বিভিন্ন বিষয়ে নিয়মিত আপডেট দেয়।

আধুনিক এই যন্ত্রটি দিয়ে গান শোনা যায়, ব্লুটুথের মাধ্যমে স্মার্টফোনের সঙ্গে সংযোগ ঘটিয়ে কল করা যায়। এমনকি স্মার্টফোন খুঁজেও বের করা যায়।

তবে প্রযুক্তি যত উন্নত হচ্ছে এই যন্ত্রটির কাজের পরিধিও তত বাড়ছে। স্মার্টওয়াচের এক ফিচারের কারণে সম্প্রতি সিঙ্গাপুরের দুর্ঘটনার কবলে পড়া এক মোটরসাইকেল আরোহী হাতে থাকা স্মার্টফোনের কারণেই প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন।

একটি ব্রিটিশ গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মোহাম্মদ ফিতরি নামে ওই ব্যক্তি একটি মোটরসাইকেলে যাচ্ছিলেন। পথে একটি ভ্যানের সঙ্গে ধাক্কা লেগে রাস্তায় পড়ে অজ্ঞান হয়ে যান তিনি। কেউ পৌঁছানোর আগেই ফিতরির হাতে থাকা স্মার্টওয়াচ অজ্ঞান হওয়ার বিষয়টি বুঝতে পেরে স্বয়ংক্রিয়ভাবে জরুরি পরিষেবা নম্বরে ফোন করে দুর্ঘটনার ব্যাপারে সর্তক করে। সঙ্গে স্বয়ংক্রিয়ভাবে দুর্ঘটনাস্থলের ঠিকানাও পাঠিয়ে দেয়।

গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অ্যাপলের স্মার্টওয়াচ ফিতরির জোরে পড়ে যাওয়ার বিষয়টি শনাক্ত করতে পেরে তার হয়ে এসওএস পাঠায়।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্মার্টওয়াচের ফিচার কোনো ব্যক্তির নড়াচড়া করছে কী না তাও বুঝতে পারে। ব্যবহারকারী কোনো নড়াচড়া না করছে স্মার্টওয়াচে আগে থেকে সেভ করে রাখা জরুরি পরিষেবা নম্বরে স্বয়ংক্রিয়ভাবেই ফোন চলে যায়।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন