ইরানকে যে হুমকি দিল ইসরাইল
jugantor
ইরানকে যে হুমকি দিল ইসরাইল

  অনলাইন ডেস্ক  

১৪ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৫৭:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

ইরানকে যে হুমকি দিল ইসরাইল

ইসরাইলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়ার লাপিদ বলেছেন, ইরানকে থামাতে বিশ্বকে একযোগেকাজ করতে হবে।

বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিঙ্কেন ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল্লাহ বিন জায়েদের সঙ্গে ওয়াশিংটনে বৈঠকে এ কথা বলেন ইসরাইলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। খবর জেরুজালেম পোস্টের।

লাপিদ বলেন, ইসরাইল যে কোনো মুহূর্তে, যে কোনো উপায়ে ব্যবস্থা নেওয়ার অধিকার রাখে। এটি শুধু আমাদের অধিকার নয়, এটি আমাদের দায়িত্বের মধ্যে পড়ে।

‘ইরান প্রকাশ্যে বলেছে, তারা আমাদের নিশ্চিহ্ন করতে চায়। তাদের স্বপ্ন বাস্তবে রূপ নিক তা হতে দেওয়ার কোনো ইচ্ছে আমাদের নেই’, যোগ করেন ইসরাইলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

লাপিদ সতর্ক করে বলেন, যেখানে বিশ্ব অপেক্ষা করছে ইরান পরমাণু চুক্তিতে ফিরে আসবে সেসময় দেশটি তাদের ইউরোনিয়াম ও ব্যালাস্টিক মিসাইল কর্মসূচি এগিয়ে নিচ্ছে।

‘যদি কোনো সন্ত্রাসী দেশ পরমাণু অস্ত্র তৈরি করতে যায় তবে অবশ্যই আমরা ব্যবস্থা নেব। আমাদের অবশ্যই পরিষ্কার করতে হবে যে, সভ্য বিশ্ব এটিকে অনুমতি দেবে না’, যোগ করেন ইসরাইলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

লাপিদ আরও বলেন, যদি বিশ্ব সম্প্রদায় ও ইরানের মধ্যে কূটনৈতিক উদ্যোগ ব্যর্থ হয় তবে অন্যান্য বিকল্পও টেবিলে থাকবে। অন্যান্য বিকল্প বলতে কী বোঝায় সেটি ইসরাইলে, আরব আমিরাত বা তেহরানের সবাই ভালোভাবেই বোঝেন বলে আমি মনে করি।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিঙ্কেন জানান, তিনি এ বিষয়ে একমত যে— ইরান যেন কোনোভাবেই পরমাণু অস্ত্র বানাতে না পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, তিন দেশ (যুক্তরাষ্ট্র, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ইসরাইল) নতুন দুটি ওয়ার্কিং গ্রুপ তৈরি করেছে। প্রথমটি ধর্মীয় সহাবস্থান নিয়ে। আর বাকিটি পানি ও জ্বালানি বিষয়ক।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল্লাহ বিন জায়েদ বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত-ইসরাইল সম্পর্ক কেবল উদযাপন করা উচিত নয় বরং সহযোগিতার নতুন ক্ষেত্র বাড়ানো উচিত।

আব্রাহাম অ্যাকর্ড সইয়ের এক বছর উপলক্ষে তিন দেশের মধ্যে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। যে চুক্তির মাধ্যমে ইসরাইল সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং বাহরাইনের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করেন। এরপর ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করে মরক্কো ও সুদান।

ইরানকে যে হুমকি দিল ইসরাইল

 অনলাইন ডেস্ক 
১৪ অক্টোবর ২০২১, ০২:৫৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ইরানকে যে হুমকি দিল ইসরাইল
ইসরাইলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়ার লাপিদ। ছবি: সংগৃহীত

ইসরাইলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়ার লাপিদ বলেছেন, ইরানকে থামাতে বিশ্বকে একযোগে কাজ করতে হবে।

বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিঙ্কেন ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল্লাহ বিন জায়েদের সঙ্গে ওয়াশিংটনে বৈঠকে এ কথা বলেন ইসরাইলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। খবর জেরুজালেম পোস্টের।

লাপিদ বলেন, ইসরাইল যে কোনো মুহূর্তে, যে কোনো উপায়ে ব্যবস্থা নেওয়ার অধিকার রাখে। এটি শুধু আমাদের অধিকার নয়, এটি আমাদের দায়িত্বের মধ্যে পড়ে। 

‘ইরান প্রকাশ্যে বলেছে, তারা আমাদের নিশ্চিহ্ন করতে চায়। তাদের স্বপ্ন বাস্তবে রূপ নিক তা হতে দেওয়ার কোনো ইচ্ছে আমাদের নেই’, যোগ করেন ইসরাইলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

লাপিদ সতর্ক করে বলেন, যেখানে বিশ্ব অপেক্ষা করছে ইরান পরমাণু চুক্তিতে ফিরে আসবে সেসময় দেশটি তাদের ইউরোনিয়াম ও ব্যালাস্টিক মিসাইল কর্মসূচি এগিয়ে নিচ্ছে।

‘যদি কোনো সন্ত্রাসী দেশ পরমাণু অস্ত্র তৈরি করতে যায় তবে অবশ্যই আমরা ব্যবস্থা নেব। আমাদের অবশ্যই পরিষ্কার করতে হবে যে, সভ্য বিশ্ব এটিকে অনুমতি দেবে না’, যোগ করেন ইসরাইলের পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

লাপিদ আরও বলেন, যদি বিশ্ব সম্প্রদায় ও ইরানের মধ্যে কূটনৈতিক উদ্যোগ ব্যর্থ হয় তবে অন্যান্য বিকল্পও টেবিলে থাকবে। অন্যান্য বিকল্প বলতে কী বোঝায় সেটি ইসরাইলে, আরব আমিরাত বা তেহরানের সবাই ভালোভাবেই বোঝেন বলে আমি মনে করি।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিঙ্কেন জানান, তিনি এ বিষয়ে একমত যে— ইরান যেন কোনোভাবেই পরমাণু অস্ত্র বানাতে না পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, তিন দেশ (যুক্তরাষ্ট্র, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও ইসরাইল) নতুন দুটি ওয়ার্কিং গ্রুপ তৈরি করেছে। প্রথমটি ধর্মীয় সহাবস্থান নিয়ে। আর বাকিটি পানি ও জ্বালানি বিষয়ক।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল্লাহ বিন জায়েদ বলেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত-ইসরাইল সম্পর্ক কেবল উদযাপন করা উচিত নয় বরং সহযোগিতার নতুন ক্ষেত্র বাড়ানো উচিত।

আব্রাহাম অ্যাকর্ড সইয়ের এক বছর উপলক্ষে  তিন দেশের মধ্যে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। যে চুক্তির মাধ্যমে ইসরাইল সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং বাহরাইনের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন করেন। এরপর ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করে মরক্কো ও সুদান।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন