‘অপেশাদার আচরণের’ জেরে কাবুলে ফ্লাইট স্থগিত করল পাকিস্তান এয়ারলাইন্স
jugantor
‘অপেশাদার আচরণের’ জেরে কাবুলে ফ্লাইট স্থগিত করল পাকিস্তান এয়ারলাইন্স

  অনলাইন ডেস্ক  

১৪ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৫৪:২৬  |  অনলাইন সংস্করণ

তালেবান ক্ষমতা নেওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত কাবুলে পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্স শুধু নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালনা করে যাচ্ছিল। ফাইল ছবি

তালেবান সরকারের ‘অপেশাদার আচরণের’ কারণে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলগামী ফ্লাইট স্থগিত করেছে পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্স (পিআইএ)।বৃহস্পতিবার তারা এ ঘোষণা দেয়। খবর এএফপির।

পাকিস্তান এয়ারলাইন্সের মুখপাত্র আবদুল্লাহ হাফিজ খান এএফপিকে বলেন, আমাদের ফ্লাইট কাবুল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের অপেশাদার আচরণের কারণে আমাদের ফ্লাইট বারবার মাত্রাতিরিক্ত পেছাতে হচ্ছে। তাই এই পরিস্থিতি উত্তোরণ না হওয়া পর্যন্ত আমাদের ফ্লাইট স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

একটি সূত্র জানায়, পাকিস্তান এয়ালাইন্সের এক কর্মকর্তাকে একটি তালেবান কর্মকর্তারা চড় মারেন। এতেই মূলত তারা ক্ষুব্ধ হন।

এছাড়াও কাবুল থেকে ইসলামাবাদের ৪০ মিনিটের একটি ফ্লাইটে ১২০০ ডলারেরও বেশি ভাড়া নেওয়ায় সমালোচনার মুখে পড়েছে পাকিস্তান এয়ারলাইন্স।

গত ১৫ আগস্ট কাবুল দখল করার পর থেকে আন্তর্জাতিক সব ফ্লাইট বাতিল হয়ে যায়। পরে পাকিস্তান এয়ারলাইন্স বিশেষ ফ্লাইট চালু করে।

এর আগে পাকিস্তানের রাষ্ট্রীয় বিমান সংস্থা পিআইএ’র কার্যক্রম আফগানিস্তানেবন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছিল তালেবান।

এক বিবৃতিতে আফগান বেসামরিক বিমান চলাচল সংস্থা জানায়, ওই দুটি বিমান সংস্থা যদি তাদের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ভাড়া না নেয়, তাহলে কাবুল থেকে ইসলামাবাদের ফ্লাইট বন্ধ করে দেওয়া হবে।

নীতিমালা ভঙ্গ করলে বিমান সংস্থা দুটিকে জরিমানার পাশাপাশি শাস্তিও দেওয়া হবে বলে ওই বিবৃতিতে বলা হয়।

পাকিস্তানের রাষ্ট্রীয় বিমান সংস্থা পিআইএ কাবুল থেকে ইসলামাবাদে যাওয়ার টিকিটের দাম আড়াই হাজার ডলার নির্ধারণ করার পর তালেবান সরকারের পক্ষ থেকে ওই বিবৃতি দেওয়া হয়।

বিবৃতিতে নীতিমালা ভঙ্গের ব্যাপারে যথাযথ কর্তৃপক্ষকে অভিযোগ করে প্রশাসনকে সহযোগিতা করার ব্যাপারে যাত্রীদের অনুরোধ করেছে তালেবান সরকার।

‘অপেশাদার আচরণের’ জেরে কাবুলে ফ্লাইট স্থগিত করল পাকিস্তান এয়ারলাইন্স

 অনলাইন ডেস্ক 
১৪ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
তালেবান ক্ষমতা নেওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত কাবুলে পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্স শুধু নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালনা করে যাচ্ছিল। ফাইল ছবি
তালেবান ক্ষমতা নেওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত কাবুলে পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্স শুধু নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালনা করে যাচ্ছিল। ফাইল ছবি

তালেবান সরকারের ‘অপেশাদার আচরণের’ কারণে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলগামী ফ্লাইট স্থগিত করেছে পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্স (পিআইএ)। বৃহস্পতিবার তারা এ ঘোষণা দেয়। খবর এএফপির।

পাকিস্তান এয়ারলাইন্সের মুখপাত্র আবদুল্লাহ হাফিজ খান এএফপিকে বলেন, আমাদের ফ্লাইট কাবুল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের অপেশাদার আচরণের কারণে আমাদের ফ্লাইট বারবার মাত্রাতিরিক্ত পেছাতে হচ্ছে। তাই এই পরিস্থিতি উত্তোরণ না হওয়া পর্যন্ত আমাদের ফ্লাইট স্থগিত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

একটি সূত্র জানায়, পাকিস্তান এয়ালাইন্সের এক কর্মকর্তাকে একটি তালেবান কর্মকর্তারা চড় মারেন।  এতেই মূলত তারা ক্ষুব্ধ হন।

এছাড়াও কাবুল থেকে ইসলামাবাদের ৪০ মিনিটের একটি ফ্লাইটে ১২০০ ডলারেরও বেশি ভাড়া নেওয়ায় সমালোচনার মুখে পড়েছে পাকিস্তান এয়ারলাইন্স। 

গত ১৫ আগস্ট কাবুল দখল করার পর থেকে আন্তর্জাতিক সব ফ্লাইট বাতিল হয়ে যায়। পরে পাকিস্তান এয়ারলাইন্স বিশেষ ফ্লাইট চালু করে। 

এর আগে পাকিস্তানের রাষ্ট্রীয় বিমান সংস্থা পিআইএ’র কার্যক্রম আফগানিস্তানে বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছিল তালেবান।

এক বিবৃতিতে আফগান বেসামরিক বিমান চলাচল সংস্থা জানায়, ওই দুটি বিমান সংস্থা যদি তাদের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ভাড়া না নেয়, তাহলে কাবুল থেকে ইসলামাবাদের ফ্লাইট বন্ধ করে দেওয়া হবে। 

নীতিমালা ভঙ্গ করলে বিমান সংস্থা দুটিকে জরিমানার পাশাপাশি শাস্তিও দেওয়া হবে বলে ওই বিবৃতিতে বলা হয়। 

পাকিস্তানের রাষ্ট্রীয় বিমান সংস্থা পিআইএ কাবুল থেকে ইসলামাবাদে যাওয়ার টিকিটের দাম আড়াই হাজার ডলার নির্ধারণ করার পর তালেবান সরকারের পক্ষ থেকে ওই বিবৃতি দেওয়া হয়। 

বিবৃতিতে নীতিমালা ভঙ্গের ব্যাপারে যথাযথ কর্তৃপক্ষকে অভিযোগ করে প্রশাসনকে সহযোগিতা করার ব্যাপারে যাত্রীদের অনুরোধ করেছে তালেবান সরকার।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : আফগানিস্তানে তালেবানের পুনরুত্থান