স্মার্টফোনই সামলে নিল গুলির আঘাত, বাঁচল যুবকের প্রাণ
jugantor
স্মার্টফোনই সামলে নিল গুলির আঘাত, বাঁচল যুবকের প্রাণ

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৫ অক্টোবর ২০২১, ০৮:০০:৪২  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রযুক্তির উৎকর্ষতার এই যুগে স্মার্টফোন জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আধুনিক এই ডিভাইস ছাড়া একটা দিন কাটানোর কথাও ভাবতে পারেন না অনেকে। স্মার্টফোনে আসক্ত হয়ে মানুষ দিন দিন আত্মকেন্দ্রিক হয়ে পড়ছে অভিযোগ তুলে স্ক্রিন টাইম কমিয়ে সামাজিকীকরণের দিকে মনোনিবেশ করার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। তবে স্মার্টফোনের কারণেই প্রাণে বেঁচে গেলেন একযুবক।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ব্রাজিলের ওই যুবক সম্প্রতি সশস্ত্র ডাকাত দলের কবলে পড়েন। এ সময় ডাকাত দলের সদস্যরা তার দিকে গুলি ছুঁড়লে পকেটে থাকা পাঁচ বছরের পুরোনো মটোরোলা স্মার্টফোন গুলি লাগলে তিনি প্রাণে বেঁচে যান। গুলির আঘাতে অবশ্য ফোনটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে ওই প্রতিবেদনে জানা গেছে।

অবশ্য শুধু মটোরোলা জিফাইভ মডেলের ওই স্মার্টফোনই নয়, ফোনের সঙ্গে লাগানো ইনক্রেডিবল হাল্কের কভারটিও গুলির আঘাত সামলানোর ক্ষেত্রে ভূমিকা রেখেছে। তবে প্রাণে বেঁচে গেলেও ওই যুবক আহতাবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। যদিও তার আঘাত গুরুতর নয় বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

ওই ব্যক্তি যে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন সেখানকার চিকিৎসক পেড্রো কার্ভাহো স্মার্টফোনের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করলে তা ভাইরাল হয়। যেখানে সশস্ত্র ডাকাতির ঘটনায় প্রায়ইকরুণ মৃত্যুর ঘটনা ঘটে, সেখানে ফোনটি গুলির বেশির ভাগ আঘাত সামলে নেওয়ার বিষয়টি চিকিৎসকদের অবাক করেছে।

স্মার্টফোনই সামলে নিল গুলির আঘাত, বাঁচল যুবকের প্রাণ

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৫ অক্টোবর ২০২১, ০৮:০০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

প্রযুক্তির উৎকর্ষতার এই যুগে স্মার্টফোন জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আধুনিক এই ডিভাইস ছাড়া একটা দিন কাটানোর কথাও ভাবতে পারেন না অনেকে। স্মার্টফোনে আসক্ত হয়ে মানুষ দিন দিন আত্মকেন্দ্রিক হয়ে পড়ছে অভিযোগ তুলে স্ক্রিন টাইম কমিয়ে সামাজিকীকরণের দিকে মনোনিবেশ করার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। তবে স্মার্টফোনের কারণেই প্রাণে বেঁচে গেলেন এক যুবক।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ব্রাজিলের ওই যুবক সম্প্রতি সশস্ত্র ডাকাত দলের কবলে পড়েন। এ সময় ডাকাত দলের সদস্যরা তার দিকে গুলি ছুঁড়লে পকেটে থাকা পাঁচ বছরের পুরোনো মটোরোলা স্মার্টফোন গুলি লাগলে তিনি প্রাণে বেঁচে যান। গুলির আঘাতে অবশ্য ফোনটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে ওই প্রতিবেদনে জানা গেছে।

অবশ্য শুধু মটোরোলা জিফাইভ মডেলের ওই স্মার্টফোনই নয়, ফোনের সঙ্গে লাগানো ইনক্রেডিবল হাল্কের কভারটিও গুলির আঘাত সামলানোর ক্ষেত্রে ভূমিকা রেখেছে। তবে প্রাণে বেঁচে গেলেও ওই যুবক আহতাবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। যদিও তার আঘাত গুরুতর নয় বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

ওই ব্যক্তি যে হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন সেখানকার চিকিৎসক পেড্রো কার্ভাহো স্মার্টফোনের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করলে তা ভাইরাল হয়। যেখানে সশস্ত্র ডাকাতির ঘটনায় প্রায়ই করুণ মৃত্যুর ঘটনা ঘটে, সেখানে ফোনটি গুলির বেশির ভাগ আঘাত সামলে নেওয়ার বিষয়টি চিকিৎসকদের অবাক করেছে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর