এবার ড্রোন প্রযুক্তি উন্নয়নে নজর ইসরাইলের
jugantor
এবার ড্রোন প্রযুক্তি উন্নয়নে নজর ইসরাইলের

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৫ অক্টোবর ২০২১, ১৭:২৬:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ড্রোন

বিশ্বজুড়েই চলছে ড্রোনের নানামুখী ব্যবহার। শুধু যুদ্ধক্ষেত্রই নয় কৃষিক্ষেত্র, উদ্ধারকাজ, সিনেমার শুটিং, ড্রোনের ব্যবহার এখন আর এক জায়গায় আটকে নেই। এর আগে শুধু সামরিক ক্ষেত্রে ড্রোন ব্যবহার করেছে ইসরাইল। তবে দেশের মানুষের কাছে খাবার পৌঁছে দেওয়াসহ বিভিন্ন কাজে এবার ড্রোনকে বেছে নিয়েছে দেশটি।

বার্তা সংস্থা এএফপি শুক্রবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, দেশটিতে ড্রোন প্রযুক্তির উন্নয়নে সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগে ছয় মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করা হয়েছে। সেই বিনিয়োগের অংশ হিসেবে ড্রোনের মাধ্যমে খাবার পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

ইসরাইলের নতুন এই উদ্যোগের নেতৃত্ব দিচ্ছেন ডেনিয়েলা পারটেম । এ ব্যাপারে তিনি বলেন, ভবিষ্যতে দেশের জনবহুল শহরের ওপর দিয়ে হাজার হাজার ড্রোন একই সঙ্গে উড়বে। এসব ড্রোনের মাধ্যমে জরুরি চিকিৎসা সামগ্রী, পুলিশের সেবাদানের পাশাপাশি খাবার ডেলিভারি দেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

তবে এ ধরনের ড্রোন নির্মাণে কোনো একক প্রতিষ্ঠানকে আধিপত্য বিস্তার করতে দেওয়া হবে না বলে জানান তিনি। এ ধরনের ড্রোন নির্মাণের ক্ষেত্রে প্রতিযোগিতা মূলক বাজার সৃষ্টির লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

এছাড়া ড্রোনের ব্যবহারের মাধ্যমে যানজট নিরসন ও বায়ুদূষণ কমানোও তাদের অন্যতম লক্ষ্য বলে জানান ডেনিয়েলা পারটেম।

সম্প্রতি ড্রোনের সাহায্যে সুশি, বিয়ার এবং আইসক্রিম গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে বলে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

ইসরাইলি প্রতিষ্ঠান হাই ল্যান্ডার খাবার সরবরাহকারী ড্রোনের কার্যক্রম পরিচালনা করছে। একটা ড্রোন চালানো খুব একটা কঠিন কাজ নয় বলে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্ধাহী অ্যালন অ্যাবেলসন জানান।

তবে একাধিক ড্রোন পরিচালনার সময় সতর্ক থাকতে হয় বলে জানান তিনি। ড্রোনগুলো মধ্যে যেন সংঘর্ষের ঘটনা না ঘটে সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হয় বলেও জানিয়েছেন অ্যালন অ্যাবেলসন।

এবার ড্রোন প্রযুক্তি উন্নয়নে নজর ইসরাইলের

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৫ অক্টোবর ২০২১, ০৫:২৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ড্রোন
ছবি : সংগৃহীত

বিশ্বজুড়েই চলছে ড্রোনের নানামুখী ব্যবহার। শুধু যুদ্ধক্ষেত্রই নয় কৃষিক্ষেত্র, উদ্ধারকাজ, সিনেমার শুটিং, ড্রোনের ব্যবহার এখন আর এক জায়গায় আটকে নেই। এর আগে শুধু সামরিক ক্ষেত্রে ড্রোন ব্যবহার করেছে ইসরাইল। তবে দেশের মানুষের কাছে খাবার পৌঁছে দেওয়াসহ বিভিন্ন কাজে এবার ড্রোনকে বেছে নিয়েছে  দেশটি।

বার্তা সংস্থা এএফপি শুক্রবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, দেশটিতে ড্রোন প্রযুক্তির উন্নয়নে  সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগে ছয় মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করা হয়েছে। সেই বিনিয়োগের অংশ হিসেবে ড্রোনের মাধ্যমে খাবার পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। 

ইসরাইলের নতুন এই উদ্যোগের নেতৃত্ব দিচ্ছেন ডেনিয়েলা পারটেম ।  এ ব্যাপারে তিনি বলেন, ভবিষ্যতে দেশের জনবহুল শহরের ওপর দিয়ে হাজার হাজার ড্রোন একই সঙ্গে উড়বে। এসব ড্রোনের মাধ্যমে জরুরি চিকিৎসা সামগ্রী, পুলিশের সেবাদানের পাশাপাশি খাবার ডেলিভারি দেওয়া হবে বলেও জানান তিনি। 

তবে এ ধরনের ড্রোন নির্মাণে কোনো একক প্রতিষ্ঠানকে আধিপত্য বিস্তার করতে দেওয়া হবে না বলে জানান তিনি। এ ধরনের ড্রোন নির্মাণের ক্ষেত্রে প্রতিযোগিতা মূলক বাজার সৃষ্টির লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

এছাড়া ড্রোনের ব্যবহারের মাধ্যমে যানজট নিরসন ও বায়ুদূষণ কমানোও তাদের অন্যতম লক্ষ্য বলে জানান ডেনিয়েলা পারটেম।

সম্প্রতি ড্রোনের সাহায্যে সুশি, বিয়ার এবং আইসক্রিম গ্রাহকের কাছে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে বলে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

ইসরাইলি প্রতিষ্ঠান হাই ল্যান্ডার খাবার সরবরাহকারী ড্রোনের কার্যক্রম পরিচালনা করছে।  একটা ড্রোন চালানো খুব একটা কঠিন কাজ নয় বলে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্ধাহী অ্যালন অ্যাবেলসন জানান। 

তবে একাধিক ড্রোন পরিচালনার সময় সতর্ক থাকতে হয় বলে জানান তিনি। ড্রোনগুলো মধ্যে যেন সংঘর্ষের ঘটনা না ঘটে সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হয় বলেও জানিয়েছেন অ্যালন অ্যাবেলসন।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন