সিরিয়ায় বড় ধরনের অভিযান শুরু করতে যাচ্ছে তুরস্ক
jugantor
সিরিয়ায় বড় ধরনের অভিযান শুরু করতে যাচ্ছে তুরস্ক

  অনলাইন ডেস্ক  

১৫ অক্টোবর ২০২১, ২২:৫৪:০৭  |  অনলাইন সংস্করণ

কুর্দি বাহিনীর বিরুদ্ধে বড় ধরনের সামরিক অভিযান শুরু করতে যাচ্ছে তুরস্ক। তুর্কির দুইজন কর্মকর্তা এই তথ্য জানিয়েছেন।

ওই কর্মকর্তারা বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনা ব্যর্থ হলে অভিযান শুরু করবে তুরস্ক।

চলতি সপ্তাহে এক হামলায় তুরস্কের দুইজন পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হওয়ার পর প্রেসিডেন্ট এরদোগান এই ঘটনাকে সর্বোচ্চ খারাপ ঘটনা হিসেবে মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, আঙ্কারা উত্তর সিরিয়া থেকে তৈরি হওয়া হুমকি প্রতিহত করতে বদ্ধপরিকর।

তুরস্ক জানায়, সিরিয়ার আজাজ অঞ্চলে গাইডেড ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় তাদের দুই পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হয়। তেল রিফাত অঞ্চল থেকে ওয়াইপিজে গোষ্ঠী এই হামলা করেছে বলে তাদের বিশ্বাস।

তুরস্কের একজন কর্মকর্তা বলেন, যে অঞ্চল থেকে হামলা চালানো হয়েছে বিশেষ করে তেল রিফাত এলাকা, পরিচ্ছন্ন করা প্রয়োজন।

গত পাঁচ বছরে তুরস্ক এই কুর্দি বাহিনীর বিরুদ্ধে তিনটি বড় ধরনের অভিযান চালিয়ে তাদেরকে উত্তর সিরিয়ার ৩০ কিলোমিটার দূরে তাড়িয়ে দিয়েছে।

সিরিয়ার এই অঞ্চলে রাশিয়ার যুদ্ধবিমান, ইরান সমর্থিত বাহিনী, তুরস্ক সমর্থিত যোদ্ধা ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র ও সিরিয়ার সেনাবাহিনী ও কুর্দি ওয়াইপিজে বাহিনী সক্রিয় রয়েছে।

তুরস্কের ওই দুই কর্মকর্তা বলেন, অভিযানের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার সঙ্গেআলোচনা করা হবে। আলোচনা সফল না হলে অভিযান শুরু করা হবে।

সিরিয়ায় বড় ধরনের অভিযান শুরু করতে যাচ্ছে তুরস্ক

 অনলাইন ডেস্ক 
১৫ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কুর্দি বাহিনীর বিরুদ্ধে বড় ধরনের সামরিক অভিযান শুরু করতে যাচ্ছে তুরস্ক। তুর্কির দুইজন কর্মকর্তা এই তথ্য জানিয়েছেন। 

ওই কর্মকর্তারা বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনা ব্যর্থ হলে অভিযান শুরু করবে তুরস্ক। 

চলতি সপ্তাহে এক হামলায় তুরস্কের দুইজন পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হওয়ার পর প্রেসিডেন্ট এরদোগান এই ঘটনাকে সর্বোচ্চ খারাপ ঘটনা হিসেবে মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, আঙ্কারা উত্তর সিরিয়া থেকে তৈরি হওয়া হুমকি প্রতিহত করতে বদ্ধপরিকর।    

তুরস্ক জানায়, সিরিয়ার আজাজ অঞ্চলে গাইডেড ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় তাদের দুই পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হয়। তেল রিফাত অঞ্চল থেকে ওয়াইপিজে গোষ্ঠী এই হামলা করেছে বলে তাদের বিশ্বাস।   

তুরস্কের একজন কর্মকর্তা বলেন, যে অঞ্চল থেকে হামলা চালানো হয়েছে বিশেষ করে তেল রিফাত এলাকা, পরিচ্ছন্ন করা প্রয়োজন। 

গত পাঁচ বছরে তুরস্ক এই কুর্দি বাহিনীর বিরুদ্ধে তিনটি বড় ধরনের অভিযান চালিয়ে তাদেরকে উত্তর সিরিয়ার ৩০ কিলোমিটার দূরে তাড়িয়ে দিয়েছে। 

সিরিয়ার এই অঞ্চলে রাশিয়ার যুদ্ধবিমান, ইরান সমর্থিত বাহিনী, তুরস্ক সমর্থিত যোদ্ধা ছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র ও সিরিয়ার সেনাবাহিনী ও কুর্দি ওয়াইপিজে বাহিনী সক্রিয় রয়েছে। 

তুরস্কের ওই দুই কর্মকর্তা বলেন, অভিযানের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার সঙ্গে আলোচনা করা হবে। আলোচনা সফল না হলে অভিযান শুরু করা হবে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন