কান্দাহারে শিয়া মসজিদে বোমা হামলায় নিহত বেড়ে ৪৭
jugantor
কান্দাহারে শিয়া মসজিদে বোমা হামলায় নিহত বেড়ে ৪৭

  অনলাইন ডেস্ক  

১৬ অক্টোবর ২০২১, ১১:৩৬:৫৩  |  অনলাইন সংস্করণ

আফগানিস্তানের কান্দাহারে শুক্রবার জুমার নামাজের সময় একটি মসজিদে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৪৭ জনে দাঁড়িয়েছে।

এ ঘটনায় আরও অন্তত ৭০ জন মুসল্লি আহত হয়েছেন। এখন পর্যন্ত কেউ ওই ঘটনার দায় স্বীকার করেনি। খবর এপির।

আগস্টের শেষে মার্কিন সৈন্যরা আফগানিস্তান ছেড়ে চলে যাওয়ার পর এটাই সবচেয়ে বড় হামলার ঘটনা।

এর আগে গত শুক্রবার কুন্দুজের একটি শিয়া মসজিদে শুক্রবারের জুমার নামাজের সময় আত্মঘাতী হামলা চালানো হয়েছিল, যাতে অন্তত ৫০ জন মুসল্লি নিহত হন।

তালেবান সরকারের স্থানীয় এক কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে বলেছেন, আমাদের প্রাথমিক ধারণা, কান্দাহারে মসজিদের ভিতরে আত্মঘাতী হামলা চালানো হয়েছে। এ বিষয়ে আমরা অনুসন্ধান চালাচ্ছি।

মিরওয়াইস হাসপাতালের এক চিকিৎসক বলেন, নিহত মুসল্লিদের লাশ ও ৭০ জন আহত ব্যক্তি হাসপাতালে রয়েছেন।

ওই চিকৎসক বলেন, এখন জরুরি ভিত্তিতে প্রচুর রক্ত দরকার। আমরা স্থানীয় মিডিয়াগুলোকে আহ্বান জানিয়েছি যে, যাতে তারা মানুষদের রক্ত দিতে উদ্বুদ্ধ করেন। এছাড়াও ব্লাড ব্যাংকগুলোকে সহায়তার জন্য আহ্বান জানিয়েছি।

মার্কিন বাহিনী আফগান ত্যাগের পর একের পর এক এ ধরনের জঙ্গি হামলা হচ্ছে দেশটিতে। তালেবান সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে আইএস-কে এ ধরনের হামলা চালাচ্ছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

কান্দাহারে শিয়া মসজিদে বোমা হামলায় নিহত বেড়ে ৪৭

 অনলাইন ডেস্ক 
১৬ অক্টোবর ২০২১, ১১:৩৬ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আফগানিস্তানের কান্দাহারে শুক্রবার জুমার নামাজের সময় একটি মসজিদে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৪৭ জনে দাঁড়িয়েছে।

এ ঘটনায় আরও অন্তত ৭০ জন মুসল্লি আহত হয়েছেন। এখন পর্যন্ত কেউ ওই ঘটনার দায় স্বীকার করেনি।  খবর এপির।

আগস্টের শেষে মার্কিন সৈন্যরা আফগানিস্তান ছেড়ে চলে যাওয়ার পর এটাই সবচেয়ে বড় হামলার ঘটনা।

এর আগে গত শুক্রবার কুন্দুজের একটি শিয়া মসজিদে শুক্রবারের জুমার নামাজের সময় আত্মঘাতী হামলা চালানো হয়েছিল, যাতে অন্তত ৫০ জন মুসল্লি নিহত হন।

তালেবান সরকারের স্থানীয় এক কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে বলেছেন, আমাদের প্রাথমিক ধারণা, কান্দাহারে মসজিদের ভিতরে আত্মঘাতী হামলা চালানো হয়েছে। এ বিষয়ে আমরা অনুসন্ধান চালাচ্ছি।  

মিরওয়াইস হাসপাতালের এক চিকিৎসক বলেন, নিহত মুসল্লিদের লাশ ও ৭০ জন আহত ব্যক্তি হাসপাতালে রয়েছেন।

ওই চিকৎসক বলেন, এখন জরুরি ভিত্তিতে প্রচুর রক্ত দরকার। আমরা স্থানীয় মিডিয়াগুলোকে আহ্বান জানিয়েছি যে, যাতে তারা মানুষদের রক্ত দিতে উদ্বুদ্ধ করেন। এছাড়াও ব্লাড ব্যাংকগুলোকে সহায়তার জন্য আহ্বান জানিয়েছি।  

মার্কিন বাহিনী আফগান ত্যাগের পর একের পর এক এ ধরনের জঙ্গি হামলা হচ্ছে দেশটিতে। তালেবান সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে আইএস-কে এ ধরনের হামলা চালাচ্ছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : আফগানিস্তানে তালেবানের পুনরুত্থান