ইরানের সঙ্গে আলোচনাকে আমরা খুবই গুরুত্ব দিচ্ছি: সৌদি
jugantor
ইরানের সঙ্গে আলোচনাকে আমরা খুবই গুরুত্ব দিচ্ছি: সৌদি

  অনলাইন ডেস্ক  

১৬ অক্টোবর ২০২১, ১২:৫০:৪৮  |  অনলাইন সংস্করণ

সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিন্স ফয়সল বিন ফারহান আল সাউদ বলেছেন, ইরানের সঙ্গে আলোচনাকে আমরা অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দেখছি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্যা ফিন্যান্সিয়াল টাইমসকে শুক্রবার দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রিন্স ফয়সল বিন ফারহান আল সাউদ এ কথা বলেন। খবর আনাদোলুর।

এ অঞ্চলে পরিস্থিতি স্থিতিশীল করতে ইরানের সঙ্গে সৌদি আরবের সম্পর্ক জোরদারের বিকল্প নেই।

তিনি আরও বলেছেন, আলোচনায় ইরান বেশ আন্তরিক ও সহযোগিতামূলক মনোভাব দেখিয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২১ সেপ্টেম্বর ইরানের সঙ্গে চতুর্থ দফা গোপন আলোচনা হয়েছে সৌদি আরবের।

সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আশা প্রকাশ করেন, আলোচনার মধ্য দিয়ে দুই দেশের মধ্যকার সমস্যার সমাধান করা সম্ভব।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক প্রধান জোসেফ বোরেলের সঙ্গে গত সপ্তাহে রিয়াদে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনেও একথা বলেন তিনি।

ইরানের সঙ্গে এই আলোচনাকে স্বাগত জানিয়েছেন বোরেল। তবে সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী এই আলোচনা কোথায় হয়েছে, কারা প্রতিনিধিত্ব করেছেন সে বিষয়ে বিস্তারিত বলেননি।

মধ্যপ্রাচ্যের অনেক ইস্যুতে পরস্পরের বিরোধী অবস্থানে রয়েছে এই দেশ দুটি। ২০১৬ সালে তাদের মধ্যে সম্পর্ক ছিন্ন হয়। এরপর ২০২১ সালের এপ্রিলে আবার আলোচনা শুরু হয়েছে।

প্রথম তিন দফা আলোচনা হয় ইরাকে। উপসাগরীয় অঞ্চলের নিরাপত্তার জন্য এ আলোচনাকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে দেখা হচ্ছে।

ইরানের সঙ্গে আলোচনাকে আমরা খুবই গুরুত্ব দিচ্ছি: সৌদি

 অনলাইন ডেস্ক 
১৬ অক্টোবর ২০২১, ১২:৫০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রিন্স ফয়সল বিন ফারহান আল সাউদ বলেছেন, ইরানের সঙ্গে আলোচনাকে আমরা অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দেখছি।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্যা ফিন্যান্সিয়াল টাইমসকে শুক্রবার দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রিন্স ফয়সল বিন ফারহান আল সাউদ এ কথা বলেন। খবর আনাদোলুর।

এ অঞ্চলে পরিস্থিতি স্থিতিশীল করতে ইরানের সঙ্গে সৌদি আরবের সম্পর্ক জোরদারের বিকল্প নেই।

তিনি আরও বলেছেন, আলোচনায় ইরান বেশ আন্তরিক ও সহযোগিতামূলক মনোভাব দেখিয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২১ সেপ্টেম্বর ইরানের সঙ্গে চতুর্থ দফা গোপন আলোচনা হয়েছে সৌদি আরবের।

সৌদি আরবের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আশা প্রকাশ করেন, আলোচনার মধ্য দিয়ে দুই দেশের মধ্যকার সমস্যার সমাধান করা সম্ভব।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক প্রধান জোসেফ বোরেলের সঙ্গে গত সপ্তাহে রিয়াদে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনেও একথা বলেন তিনি।

ইরানের সঙ্গে এই আলোচনাকে স্বাগত জানিয়েছেন বোরেল। তবে সৌদি পররাষ্ট্রমন্ত্রী এই আলোচনা কোথায় হয়েছে, কারা প্রতিনিধিত্ব করেছেন সে বিষয়ে বিস্তারিত বলেননি।

মধ্যপ্রাচ্যের অনেক ইস্যুতে পরস্পরের বিরোধী অবস্থানে রয়েছে এই দেশ দুটি।  ২০১৬ সালে তাদের মধ্যে সম্পর্ক ছিন্ন হয়। এরপর ২০২১ সালের এপ্রিলে আবার আলোচনা শুরু হয়েছে।

প্রথম তিন দফা আলোচনা হয় ইরাকে। উপসাগরীয় অঞ্চলের নিরাপত্তার জন্য এ আলোচনাকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে দেখা হচ্ছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : মার্কিন-ইরান সংকট

আরও খবর