জাপান সাগরে রাশিয়ার ধাওয়া নিয়ে যা বলছে যুক্তরাষ্ট্র
jugantor
জাপান সাগরে রাশিয়ার ধাওয়া নিয়ে যা বলছে যুক্তরাষ্ট্র

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৫৪:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

জাপান সাগরে রাশিয়ার ধাওয়া নিয়ে যা বলছে যুক্তরাষ্ট্র

জাপান সাগরে রুশ পানিসীমা লঙ্ঘনের চেষ্টায় মার্কিন যুদ্ধজাহাজকে ধাওয়া করেছে রাশিয়া। যদিও রাশিয়ার এ দাবি অস্বীকার করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

মার্কিন ডেস্ট্রয়ারটি শুক্রবার জাপান সাগরে রুশ পানিসীমা লঙ্ঘনের চেষ্টা করছিল বলে দাবি রাশিয়ার।

দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, মার্কিন যুদ্ধজাহাজ ইউএসএস চ্যাফি রাশিয়ার পানিসীমার খুব কাছাকাছি চলে এলে রুশ নৌ-সেনারা মার্কিন জাহাজকে ধাওয়া করে এবং ওই এলাকা থেকে তাড়িয়ে দেয়।

ওয়াশিংটন অবশ্য মস্কোর এই ভাষ্যকে প্রত্যাখ্যান করেছে। তারা বলছে, তাদের গাইডেড মিসাইল ডেস্ট্রয়ার চ্যাফি জাপান সাগরের আন্তর্জাতিক জলসীমায় ছিল, এসময় রাশিয়ার একটি ডেস্ট্রয়ার ৬০ মিটারের মধ্যে চলে আসে।

এক বিবৃতিতে মার্কিন সামরিক বাহিনী জানায়, রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় দুটি নৌযানের মধ্যে যা যা হয়েছে বলে জানিয়েছে তা মিথ্যা। সব সময় ইউএসএস চ্যাফি আন্তর্জাতিক আইন ও রীতি অনুযায়ী তার কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।

এদিকে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, চীনের সঙ্গে যৌথ সামরিক মহড়া চালানোর সময় মার্কিন যুদ্ধজাহাজ ওই এলাকায় যায় কিন্তু তাকে বারবার হুশিয়ার করা সত্ত্বেও সেখানে অবস্থান করছিল।

পরে রুশ সেনারা বাধ্য হয়ে মার্কিন জাহাজকে ধাওয়া করে। রাশিয়ার পানিসীমায় মার্কিন জাহাজের অবৈধভাবে ঢুকে পড়ার প্রচেষ্টাকে রাশিয়া আন্তর্জাতিক আইনের চরম লঙ্ঘন বলে মন্তব্য করেছে।

মার্কিন ডেস্ট্রয়ারের ক্রুদের ‘অপেশাদার আচরণে’ ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানাতে পরে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় মার্কিন সামরিক অ্যাটাশেকে ডেকে পাঠায় বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা আরআইএ।


জাপান সাগরে রাশিয়ার ধাওয়া নিয়ে যা বলছে যুক্তরাষ্ট্র

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৬ অক্টোবর ২০২১, ০২:৫৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
জাপান সাগরে রাশিয়ার ধাওয়া নিয়ে যা বলছে যুক্তরাষ্ট্র
ছবি: সংগৃহীত

জাপান সাগরে রুশ পানিসীমা লঙ্ঘনের চেষ্টায় মার্কিন যুদ্ধজাহাজকে ধাওয়া করেছে রাশিয়া। যদিও রাশিয়ার এ দাবি অস্বীকার করেছে যুক্তরাষ্ট্র। 

মার্কিন ডেস্ট্রয়ারটি শুক্রবার জাপান সাগরে রুশ পানিসীমা লঙ্ঘনের চেষ্টা করছিল বলে দাবি রাশিয়ার। 

দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, মার্কিন যুদ্ধজাহাজ ইউএসএস চ্যাফি রাশিয়ার পানিসীমার খুব কাছাকাছি চলে এলে রুশ নৌ-সেনারা মার্কিন জাহাজকে ধাওয়া করে এবং ওই এলাকা থেকে তাড়িয়ে দেয়।

ওয়াশিংটন অবশ্য মস্কোর এই ভাষ্যকে প্রত্যাখ্যান করেছে। তারা বলছে, তাদের গাইডেড মিসাইল ডেস্ট্রয়ার চ্যাফি জাপান সাগরের আন্তর্জাতিক জলসীমায় ছিল, এসময় রাশিয়ার একটি ডেস্ট্রয়ার ৬০ মিটারের মধ্যে চলে আসে।

এক বিবৃতিতে মার্কিন সামরিক বাহিনী জানায়, রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় দুটি নৌযানের মধ্যে যা যা হয়েছে বলে জানিয়েছে তা মিথ্যা। সব সময় ইউএসএস চ্যাফি আন্তর্জাতিক আইন ও রীতি অনুযায়ী তার কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। 

এদিকে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, চীনের সঙ্গে যৌথ সামরিক মহড়া চালানোর সময় মার্কিন যুদ্ধজাহাজ ওই এলাকায় যায় কিন্তু তাকে বারবার হুশিয়ার করা সত্ত্বেও সেখানে অবস্থান করছিল।

পরে রুশ সেনারা বাধ্য হয়ে মার্কিন জাহাজকে ধাওয়া করে। রাশিয়ার পানিসীমায় মার্কিন জাহাজের অবৈধভাবে ঢুকে পড়ার প্রচেষ্টাকে রাশিয়া আন্তর্জাতিক আইনের চরম লঙ্ঘন বলে মন্তব্য করেছে।

মার্কিন ডেস্ট্রয়ারের ক্রুদের ‘অপেশাদার আচরণে’ ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানাতে পরে রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় মার্কিন সামরিক অ্যাটাশেকে ডেকে পাঠায় বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা আরআইএ। 


 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন