বুধবার পর্যন্ত মুম্বাইয়ের জেলে থাকবেন শাহরুখপুত্র আরিয়ান
jugantor
বুধবার পর্যন্ত মুম্বাইয়ের জেলে থাকবেন শাহরুখপুত্র আরিয়ান

  অনলাইন ডেস্ক  

১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৫৬:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

কয়েক বছর আগে ‘বীর-জারা’ ছবিতে পাকিস্তানি জেলবন্দি অবস্থায় দেখানো হয়েছিল শাহরুখ খানকে।

কারাগারে দাঁড়িয়ে শাহরুখের গলায়, ‘ম্যায় কয়েদি নম্বর ৭৮৬…’ সংলাপ শুনে উল্লাসে ফেটে পড়েননি এমন মানুষ পাওয়া মুশকিল।

কিন্তু কে জানত, সেই ডায়লগই এভাবে সত্যি হয়ে ফিরে আসবে তার পুত্রের জীবনে! বৃহস্পতিবার মুম্বাইয়ের আর্থার রোড জেলে কয়েদিদের নম্বর দেওয়া হয়েছে।

সেখানে শাহরুখপুত্র আরিয়ানের পরিচয় ‘কয়েদি নম্বর ৯৫৬’। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

বৃহস্পতিবার মুম্বই সেন্ট্রাল জেলখানায় এক সপ্তাহ হয়ে গেল শাহরুখপুত্র আরিয়ান খানের। ওই প্রমোদতরী মাদক মামলায় আরিয়ানের জামিনের আবেদন স্থগিত রেখেছে আদালত।

অর্থাৎ আগামী ২০ অক্টোবর, বুধবার পর্যন্ত আর্থার রোড জেলই ঠিকানা আরিয়ানসহ মাদক মামলায় আটকদের।

করোনা আবহে জেলে প্রবেশ করলেই থাকতে হয় আইসোলেশনে। সেজন্য জেলের মধ্যেই রয়েছে পৃথক ব্যবস্থা। বুধবার পর্যন্ত সেই কোয়রেন্টাইন সেলেই ছিলেন আরিয়ানরা।

সবার করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পর তাদের সাধারণ ব্যারাকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার কয়েদি নম্বর পেয়েছেন আরিয়ান। তার নম্বর ‘এন-৯৫৬’।

জেলের খাবারই খেতে হচ্ছে আরিয়ানদের। এখানে বাইরে থেকে খাবার পাঠানোর নিয়ম নেই। কিন্তু প্রথম কয়েকদিন জেলের খাবার না খেলেও ইদানীং সেই খাবার খেতে বাধ্য হচ্ছেন আরিয়ান।

বুধবার পর্যন্ত মুম্বাইয়ের জেলে থাকবেন শাহরুখপুত্র আরিয়ান

 অনলাইন ডেস্ক 
১৬ অক্টোবর ২০২১, ০২:৫৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কয়েক বছর আগে ‘বীর-জারা’ ছবিতে পাকিস্তানি জেলবন্দি অবস্থায় দেখানো হয়েছিল শাহরুখ খানকে।

কারাগারে দাঁড়িয়ে শাহরুখের গলায়, ‘ম্যায় কয়েদি নম্বর ৭৮৬…’ সংলাপ শুনে উল্লাসে ফেটে পড়েননি এমন মানুষ পাওয়া মুশকিল।

কিন্তু কে জানত, সেই ডায়লগই এভাবে সত্যি হয়ে ফিরে আসবে তার পুত্রের জীবনে! বৃহস্পতিবার মুম্বাইয়ের আর্থার রোড জেলে কয়েদিদের নম্বর দেওয়া হয়েছে।

সেখানে শাহরুখপুত্র আরিয়ানের পরিচয় ‘কয়েদি নম্বর ৯৫৬’। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

বৃহস্পতিবার মুম্বই সেন্ট্রাল জেলখানায় এক সপ্তাহ হয়ে গেল শাহরুখপুত্র আরিয়ান খানের। ওই প্রমোদতরী মাদক মামলায় আরিয়ানের জামিনের আবেদন স্থগিত রেখেছে আদালত।

অর্থাৎ আগামী ২০ অক্টোবর, বুধবার পর্যন্ত আর্থার রোড জেলই ঠিকানা আরিয়ানসহ মাদক মামলায় আটকদের।

করোনা আবহে জেলে প্রবেশ করলেই থাকতে হয় আইসোলেশনে। সেজন্য জেলের মধ্যেই রয়েছে পৃথক ব্যবস্থা। বুধবার পর্যন্ত সেই কোয়রেন্টাইন সেলেই ছিলেন আরিয়ানরা।

সবার করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পর তাদের সাধারণ ব্যারাকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার কয়েদি নম্বর পেয়েছেন আরিয়ান। তার নম্বর ‘এন-৯৫৬’।

জেলের খাবারই খেতে হচ্ছে আরিয়ানদের। এখানে বাইরে থেকে খাবার পাঠানোর নিয়ম নেই। কিন্তু প্রথম কয়েকদিন জেলের খাবার না খেলেও ইদানীং সেই খাবার খেতে বাধ্য হচ্ছেন আরিয়ান।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন